Download WordPress Themes, Happy Birthday Wishes

ইতিহাস পুনরাবৃত্তি করলো যুবা-আজিরা

ক্রীড়ালোক প্রতিবেদকঃ

একই গল্পের পুনরাবৃত্তি হয়েছে আহমেদাবাদের নরেন্দ্র মোদি স্টেডিয়ামে ও বেনোনির উইলোমুর পার্কেও। দুই জায়গাতেই ভারত একতরফাভাবে হেরেছে অস্ট্রেলিয়ার কাছে। গত বছরের ১৯ নভেম্বর অস্ট্রেলিয়া ৬ উইকেটে জিতে ওয়ানডে বিশ্বকাপের হেক্সা মিশন পূর্ণ করেছে। তার প্রায় ২ মাস পর গতকাল বেনোনিতে ভারতকে ৭৯ রানে হারিয়ে ২০২৪ অনূর্ধ্ব-১৯ বিশ্বকাপের শিরোপা জিতেছে অস্ট্রেলিয়া। 

দক্ষিণ আফ্রিকার বেনোনিতে রোববার (১১ ফেব্রুয়ারি)  টস জিতে ব্যাটিংয়ের সিদ্ধান্ত নেয় অস্ট্রেলিয়া। প্রথমে ব্যাটিংয়ে নেমে ভারতকে ২৫৪ রানের বড় লক্ষ্য দেয় অজিরা। জবাব দিতে নেমে ১৭৪ রানেই গুটিয়ে যায় ভারত। এতে ৭৯ রানের জয় দিয়ে বিশ্বকাপ শিরোপা জিতেছে অজিরা।

টস জিতে ব্যাট করতে নেমে দলীয় ১৬ রানের মাথায় প্রথম উইকেট হারায় অস্ট্রেলিয়া। ব্যাট করতে নেমে রানের খাতা খোলার আগেই প্যাভিলিয়নে ফেরেন ওপেনার স্যাম কন্টাস। দ্বিতীয় উইকেটে অধিনায়ক হাগ ওয়েবগেনকে সঙ্গে নিয়ে বড় সংগ্রহের ইঙ্গিত দেন আরেক ওপেনার হ্যারি ডিক্সন।

তবে ইনিংসের ২১তম ওভারে নামান তিওয়ারির আউটসাইড ডেলিভারিতে ড্রাইভ করতে গিয়ে পয়েন্টে ক্যাচ তুলে দেন তিনি। সেখানে সহজ ক্যাচ লুফে নেন মুশের খান। এতে ৭৮ রানে ভাঙে এই জুটি। এরপর ফিফটি না পাওয়ার আক্ষেপ নিয়ে ফেরেন অধিনায়কও। ৬৬ বলে ৪৮ রানে সাজঘরে ফেরেন ওয়েবগেন। ৫৬ বলে ৪২ রানে ফেরেন ডিক্সনও।

অজিদের দেওয়া বড় লক্ষ্য তাড়া করতে নেমে, শুরুতে হোঁচট খায় ভারত। ৬ বলে ৩ রান করে আউট হন আর্শীন কুলকারনি। তৃতীয় উইকেটে মুশের খানকে সঙ্গে নিয়ে রান তুলতে থাকেন আরেক ওপেনার আর্দশ সিং। তবে ইনিংস বড় করতে পারেনি মুশের খান। ৩৩ বলে ২২ রান করে আউট হন তিনি।

এদিন ব্যাট হাতে আলো ছড়াতে পারেননি অধিনায়ক উদায় সারানও। ১৮ বলে ৮ রান করে উদায় আউট হলে ৮ বলে ৯ রান করে তাকে সঙ্গ দেন শচীন দাস। আর্দশ এক প্রান্ত আগলে রাখলেও উইকেট মিছিলে যোগ দেন প্রীয়াংশু মোলিয়া (৯) ও অ্যারাভেলি অবিনাশ (০)।

৭৭ বলে ৪৭ রান করে আউট হন আদর্শ সিং। এরপর ভারত শিবিরে হাল ধরেন মুরুগান অভিষেক। ৪৬ বলে ৪২ রান করে এই ভারতীয় অলরাউন্ডার অলরাউন্ডার আউট হলে ম্যাচ থেকে ছিটকে যায় ভারত। শেষ দিকে রাজ লিমবানি (০) এবং পান্ডে ২ রানে আউট হলে ৩৭ বলে হাতে থাকতেই ১৭৪ রানে অলআউট হয় ভারত। এতে ৭৯ রানের জয় পায় অস্ট্রেলিয়া।

অস্ট্রেলিয়া হলে মাহলি বার্ডম্যান ও রাফ ম্যাকমিলান তিনটি করে উইকেট শিকার করেন। দুই উইকেট শিকার করেন কালুম ভিল্ডার। এ ছাড়াও চার্লি অ্যান্ডারসন ও টস স্ট্রাকের একটি উইকেট নেন।

গত বছর আহমেদাবাদের মাটিতে এক লাখ ত্রিশ হাজার দর্শকের সামনে ভারতকে হারিয়ে বিশ্বকাপ শিরোপা জিতে নিয়েছিলো অস্ট্রেলিয়া। সেই ক্ষত না সারতেই আরও একটি বিশ্বকাপ হারলো ভারত, এবারের প্রতিপক্ষও ছিলো মাইটি অস্ট্রেলিয়া। অনূর্ধ্ব-১৯ বিশ্বকাপের ফাইনালে ভারতকে হারিয়ে চতুর্থ শিরোপা ঘরে তুলেছে অজিরা।

রন/ক্রী/০০৪