Download WordPress Themes, Happy Birthday Wishes

নাসিরের সামনে আরও কঠিন পথ

আহসান হাবীব সুমন/ক্রীড়ালোকঃ

একটা সময় বাংলাদেশ জাতীয় ক্রিকেট দলের নিয়মিত সদস্য ছিলেন নাসির হোসেন । ছিলেন মিডল অর্ডারের অন্যতম ভরসা । বল হাতেও দিয়েছেন দলকে আস্থা আর নির্ভরতা । কিন্তু সেই নাসির অনেকদিন ধরে জাতীয় দলের আশেপাশেও নেই । ফর্মহীনতা আর ব্যক্তিগত জীবনের নানা বিতর্কে তিনি সরে গেছেন আন্তর্জাতিক ক্রিকেট থেকে অনেকটা দূরে ।

জাতীয় দলের বাইরে থাকা নাসির বর্তমানে খেলছেন বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লীগ (বিপিএল) ক্রিকেটে । শুধু খেলছেন না , বলা যায় নিজের সেরা ফর্মে রয়েছেন । এখন পর্যন্ত বিপিএলের ছয় ম্যাচ শেষে করেছেন আসরে দ্বিতীয় সর্বোচ্চ ৯০ গড়ে ২৬৯ রান । সবচেয়ে বেশী ৯২ গড়ে ২৭৫ রান করেছেন সাকিব আল হাসান । বল হাতেও সাত উইকেট নিয়ে বোলারদের মধ্যে আছেন সেরা চারে ।

চলতি বিপিএলে দুইটি অর্ধশতক হাঁকিয়েছেন নাসির ১৩১.২১ স্ট্রাইক রেটে । বল হাতে ইকোনমি ৭.৩৫ । জাতীয় দলের বেশীরভাগ খেলোয়াড়দের চেয়ে চলতি বিপিএলে অনেক উজ্জ্বল নাসির । যে পারফর্মেন্সে নাসিরের জাতীয় দলে ফেরার সম্ভাবনা দেখছেন অনেকে । বিশেষ করে বাংলাদেশের জাতীয় নির্বাচক মিনহাজুল আবেদিন দারুণ খুশী নাসিরের পারফর্মেন্সে ।

বাংলাদেশের সাবেক অধিনায়ক নান্নু জানিয়েছেন , ‘ অনেক দিন পর এসে খেলছে নাসির। ভালো খেলছে। তাকে আগে খেলতে দিন। স্থির হতে হবে। অনেকদিন পর এসে পারফর্ম করা একটা বিরাট ব্যাপার একজন খেলোয়াড়ের জন্য। কামব্যাক করেছে। ধারাবাহিকভাবে এই প্রক্রিয়ায় থাকলে অবশ্যই বিবেচনা করা হবে।’

বিপিএলের সর্বশেষ আসরেও খেলেন নি নাসির । ইনজুরির কথা বলা হলেও তাঁকে নিয়ে আসলে মাথা ঘামায় নি কোন ফ্রেঞ্চাইজি । তবে চলতি আসরে ঢাকা ডমিনেটর শুধু দলেই নেয়নি তাঁকে , করেছে অধিনায়ক । ঢাকার সিদ্ধান্ত যে ভুল ছিল না সেটা দেখাচ্ছেন নাসির । এখন পর্যন্ত ৩৬*, ৪৪, ৩০, ৩৯, ৬৬* ও ৫৪* বিপিএলে নাসিরের রান। প্রতি ম্যাচে নিজেকে ছাড়িয়ে যাওয়ার মিশনে নামা নাসির বেশ ভালোভাবেই সফল হচ্ছেন।

নাসিরের এমন পারফরম্যান্স দেখে এই ক্রিকেটারকে নিয়ে আশাবাদ জানিয়েছেন বাংলাদেশের নামকরা কোচ মোহাম্মদ সালাউদ্দিন। যিনি নাসিরের পারফরম্যান্সকে বিবেচনায় নিয়ে নাসিরের জাতীয় দলে ফেরার ভবিষ্যৎ নিয়ে বলেন, ‘আমার দেখা বাংলাদেশের ব্যাটসম্যানদের মধ্যে নাসিরের ক্রিকেটীয় ব্রেইন ভালো। সে যদি তার ফিটনেস নিয়ে কাজ করে তবে সে আবারও জাতীয় দলে ফিরতে পারবে। তার সে যোগ্যতা আছে। এখন কেবল সে নিজে বুঝলেই হবে।’

নাসির হোসেন জাতীয় দলের হয়ে ১৯ টেস্টে ১০৪৪ আর ৬৫ একদিনের ম্যাচে ১২৮১ রান করেছেন । টি-টুয়েন্টি আন্তর্জাতিক ম্যাচ খেলেছেন ৩১টি । রান ৩৭১ । ক্রিকেটের তিন সংস্করণে তার উইকেটের সংখ্যা ৩৯টি । তবে ২০১৮ সালে ঢাকায় শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে শেষবার মাঠে নেমেছিলেন । তারপর আর সুযোগ মেলে জাতীয় দলের খেলার ।

ঢাকা দলে নাসিরের সতীর্থ উসমান গনি জানিয়েছেন , ‘ নাসিরের খেলা দেখে মুগ্ধ হওয়ার অনেক কারণ আছে । তিনি এখনও ফুরিয়ে যান নি । ব্যাট , বল এমনকি ফিল্ডিং এর ক্ষেত্রে নাসির দুর্দান্ত । সবচেয়ে বড় কথা , খেলার প্রতি তার সিরিয়াসনেস দেখা যাচ্ছে । ‘

আফগান ক্রিকেটার বলেন , ‘ নাসির একজন সিনিয়র আর অভিজ্ঞ খেলোয়াড় । তিনি অনেক দিয়েছেন বাংলাদেশের ক্রিকেটকে । এখনও অনেক কিছু দেয়ার সামর্থ্য রাখেন । তাঁকে বাংলাদেশ আবার সুযোগ দিতেই পারে । ‘

যদিও বিষয়টা খুব সহজ না । নাসিরের জায়গায় জাতীয় দলে মেহেদি হাসান মিরাজ , মোসাদ্দেক আর আফিফরা চলে এসেছেন । তাই শুরু এক মাসের বিপিএলের কয়েকটি ম্যাচে পারফর্মেন্স দিয়ে নাসির ফের জাতীয় দলে সুযোগ পেয়ে যাবে , এমন ভাবনা ভুল । তাঁকে আগামীতেও ঘরোয়া ক্রিকেটে ধারাবাহিক হতে হবে । শৃঙ্খলা আনতে হবে ব্যক্তিগত জীবনে । তাহলে হয়ত জাতীয় দলে শিকে ছিঁড়বে । আর আগামী ওয়ানডে বিশ্বকাপকে সামনে রেখে নিজের জন্য এটুকু করতেই পারেন এক সময়ের ‘মিস্টার ফিনিশার’ ।

আহাস/ক্রী/০০৫