Download WordPress Themes, Happy Birthday Wishes

আইপিএলের নিলামে ৮ বাংলাদেশি নারী ক্রিকেটার

ক্রীড়ালোক প্রতিবেদকঃ

ক্রিকেট দুনিয়ায় ইন্ডিয়ান প্রিমিয়ার লীগ (আইপিএল) ফ্রাঞ্চাইজি আসর হিসেবে জনপ্রিয়তার শীর্ষে । ইতোমধ্যে আইপিএলের ১৫টি আসর সফলভাবে শেষ হয়েছে । প্রস্তুতি শেষ ১৬তম আসরের । বাংলাদেশ থেকে আগামী আইপিএলে সাকিব আল হাসান , মোস্তাফিজুর রহমান আর লিটন দাস অংশ নিচ্ছেন ।

এদিকে , চলতি বছরেই মার্চ-এপ্রিলে অনুষ্ঠিত হবে নারীদের আইপিএল । যা হবে নারীদের আইপিএলের উদ্বোধনী আসর ।ভারতীয় ক্রিকেট বোর্ড ‘বিসিসিআই’ আয়োজন করতে চলেছে নারীদের আইপিএল । এই আসর চালু হলে বিশ্বব্যাপী নারী ক্রিকেটারদের আর্থিকভাবে লাভবান হবার সুযোগ বাড়বে সন্দেহ নেই । কারণ বিশ্বের যে কোন ফ্রেঞ্চাইজি আসরের চাইতে অর্থনৈতিকভাবে আইপিএল অনেক বেশী জমজমাট ।

প্রথমবারের মতো অনুষ্ঠিতব্য আইপিএল বাংলাদেশের নারী ক্রিকেটারদের জন্য হতে পারে বড় সুযোগ । ইতোমধ্যে আইপিএল নিলামের জন্য বাংলাদেশের আট নারী ক্রিকেটারের নাম পাঠিয়েছে বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড ‘বিসিবি’ । বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন বিসিবির নারী বিভাগের চেয়ারম্যান শফিউল আলম চৌধুরী নাদেল।

বিসিবি থেকে পাঠানো তালিকায় চলমান নারী অনূর্ধ্ব-১৯ বিশ্বকাপে ব্যাট হাতে ঝলক দেখানো স্বর্ণা আক্তারও আছেন। জাতীয় দলে খেলে ফেলা অনূর্ধ্ব-১৯ দলের আরেক ক্রিকেটার মারুফা আক্তারও নিবন্ধন করেছেন। এ ছাড়া জাতীয় দলের অধিনায়ক নিগার সুলতানা জ্যোতি, সালমা খাতুন, জাহানারা আলম, রিতু মনি, নাহিদা আক্তারও আছেন তালিকায়।

বিসিবির নারী বিভাগের চেয়ারম্যান বলেন,’ হ্যাঁ ৮ জনের নাম পাঠিয়েছি। তারা হলে জাহানারা আলম, সালমা খাতুন, নিগার সুলতানা জ্যোতি, নাহিদা আক্তার, মারুফা আক্তার, রুমানা আহমেদ, রিতু মনি ও স্বর্ণা আক্তার।’

নারীদের আইপিএলের প্রথম মৌসুমে ৬টি দল অংশগ্রহণ করবে। ইতোমধ্যে পাঁচ বছরের জন্য ৯২১ কোটি রুপিতে মিডিয়া স্বত্ব বিক্রি করেছে বিসিসিআই। প্রতি মৌসুমে ২২ ম্যাচ ধরে পাঁচ বছরের জন্য এই স্বত্ব বিক্রি করে ভারতীয় ক্রিকেট নিয়ন্ত্রক সংস্থা। ম্যাচ প্রতি আয় যেখানে ৭ কোটি রুপির বেশি। তবে প্রথম আসরে অংশগ্রহণকারী ৬টি দলের মালিকানা কারা পাচ্ছে তা জানা যাবে ২৫ জানুয়ারি নিলামের পর। ক্রিকেটারদের নিলামের তারিখ অবশ্য এখনো চূড়ান্ত হয়নি।

বিসিসিআই জানিয়েছে, প্রতিটি দল একাদশে পাঁচ বিদশি ক্রিকেটার রাখতে পারবে। পূর্ণ সদস্য দেশের ৪ জনের সঙ্গে বাধ্যতামূলক একজন সহযোগী দেশের ক্রিকেটার রাখতে হবে একাদশে।

এর আগে বিসিসিআই ওমেন্স টি-টোয়েন্টি চ্যালেঞ্জ নামে তিন দলের একটি টুর্নামেন্ট আয়োজন করতো। যেটিকে অনেকে নারী আইপিএল হিসেবে চিনতো। ওই টুর্নামেন্টে বাংলাদেশের সালমা খাতুন, জাহানারা আলম ও শারমিন আক্তার সুপ্তা খেলেছেন। এবার টুর্নামেন্টটিকে বন্ধ করে প্রকৃত নারী আইপিএল শুরু করছে বিসিসিআই।

এদিকে ফেব্রুয়ারিতে দক্ষিণ আফ্রিকায় অনুষ্ঠিত হবে নারী টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ। টুর্নামেন্ট সামনে রেখে দল ঘোষণা হওয়ার কথা আগামী দুই-একদিনের মধ্যে। এমনটা জানিয়েছেন বিসিবির নারী বিভাগের চেয়ারম্যান নাদেল।

আহাস/ক্রী/০০৭