Download WordPress Themes, Happy Birthday Wishes

দুর্বল ব্রাজিলের সুযোগ নেবে ক্যামেরুন !

ক্রীড়ালোক প্রতিবেদকঃ

টানা দুই জয়ে ব্রাজিলের নক আউট পর্ব নিশ্চিত । ‘জি’ গ্রুপে ক্যামেরুনের বিপক্ষে শেষ ম্যাচটি সেলেকাওদের জন্য শুধু নিয়মরক্ষার । সঙ্গত কারণেই ক্যামেরুনের বিপক্ষে পূর্ণ শক্তির দল নামাচ্ছেন না কোন তিতে । বরং রিজার্ভ বেঞ্চের শক্তি পরীক্ষা করে নেয়ার স্বাভাবিক পথে হাঁটবেণ তিনি । আর এতে ক্যামেরুনের সুযোগ বাড়বে , কোন সন্দেহ নেই ।

শুক্রবার (২ ডিসেম্বর) বাংলাদেশ সময় রাত একটায় মুখোমুখি হবে ব্রাজিল আর ক্যামেরুন । অন্যদিকে , একই গ্রুপের আরেক ম্যাচে লড়াই হবে সুইজারল্যান্ড বনাম সার্বিয়ার ।

৬ পয়েন্ট পাওয়া ব্রাজিল ছাড়া ‘জি’ গ্রুপ থেকে বাকী তিন দলের সম্ভাবনা আছে নক আউট পর্বে খেলার । তবে ৩ পয়েন্ট নিয়ে বেশী এগিয়ে সুইসরা । শেষ ম্যাচে সার্বিয়ার বিপক্ষে জয় পেলে কোন হিসেব ছাড়াই তারা চলে যাবে নক আউট পর্বে । আর ড্র করলেও তাদের সমস্যা নেই , যদি ব্রাজিল না হারে ক্যামেরুনের কাছে । কারণ ক্যামেরুন আর সার্বিয়ার পয়েন্ট ১ । সার্বিয়া আর ক্যামেরুনকে দ্বিতীয় রাউন্ডে খেলতে হলে নিজেদের ম্যাচ জিততেই হবে । তারপর বাকী সমীকরণ ।

নেইমার, দানিলো এবং চোট পাওয়া অ্যালেক্স সান্দ্রোরা যে ক্যামেরুনের বিরুদ্ধে দলে থাকবেন না, আগেই সিদ্ধান্ত হয়ে গিয়েছিল। এখন প্রশ্ন হচ্ছে, নকআউটে কি নেইমার খেলতে পারবেন? কিন্তু এখনও টিম ম্যানেজমেন্টের তরফে নেইমারের খেলা নিয়ে নিশ্চিত করে কিছু জানানো হয়নি। তবে ক্যামেরুন ম্যাচের আগে সারাদিন ফিজিওথেরাপি করার পর সুইমিং পুলের জলে অনেকক্ষণ দৌড়েছেন নেইমার । এই মুহূর্তে মাঠে দৌড় না করিয়ে, সুইমিং পুলের জলে নেইমারকে দৌড় করানোর একটাই কারণ- ব্রাজিলিয়ান তারকার চোট থেকে সেরে ওঠার ব্যাপারে তাড়াহুড়ো করতে চাইছে না ব্রাজিল। কারণ, নক আউটে নেইমারকে খেলানোর জন্য এখন উঠে পড়ে লেগেছে ব্রাজিল টিম ম্যানেজমেন্ট।

যদিও তিতে প্রকাশ্যে কিছু না বলে জানিয়েছেন, ‘নেইমারের ব্যাপারে টিম ডাক্তার একমাত্র বলতে পারবেন।

তিতে জানিয়েছেন , বেশ কিছু ফুটবলারের ভাইরাল জ্বরের জন্যও তাঁদের বিশ্রাম দিচ্ছেন ক্যামেরুন ম্যাচে।

ক্যামেরুনের বিপক্ষে ড্যানি আলাভেজ অধিনায়কত্ব করবেন । ৩৯ বছরের ফুটবলার কাতার বিশ্বকাপে নামছেন প্রথমবারের মতো । তবে অধিনায়কত্বের সম্মান পেয়ে নিজেকে গর্বিত মনে করছেন আলভেজ। তিনি তিতের সঙ্গে এসেছিলেন সাংবাদিক সম্মেলনেও। বললেন, ‘ব্রাজিলের জার্সি পরে খেলার সুযোগ পাওয়াটাই গর্বের। নিজের সেরাটা দিয়ে দলকে বিশ্বকাপ জিততে সাহায্য করব।’

এছাড়া ক্যামেরুনের বিপক্ষে সুযোগ পাচ্ছেন গ্যাবরিয়েল হেসুস আর ফ্যাবিনিওরা । গোলরক্ষক হিসেবেও পোস্ট সামাল দেবেন এডারসণ । সব মিলিয়ে পুরো একাদশ বদলেই মাঠে নামছে ব্রাজিল ।

দুই ম্যাচ জিতে আগেই নক আউট নিশ্চিত হয়ে যাওয়ায় ফ্রান্স আর স্পেন একই কাজ করেছিল । তারা শেষ ম্যাচে হেরেছে । স্পেনকে হারিয়ে তো জাপান উঠেই গেছে নক আউটে । তেমন সুযোগ কি পাচ্ছে ক্যামেরুন ? সেটা অবশ্য পরের কথা । তবে , ক্যামেরুনের বিপক্ষে ব্রাজিলের রিজার্ভ বেঞ্চের একটা কঠিন পরীক্ষা হবে । বিশ্বকাপ জিততে গেলে শুধু সেরা একাদশ নিয়ে ভরসায় থাকলে হয় না , থাকতে হবে শক্তিশালী রিজার্ভ বেঞ্চ । ২০১৪ সালে নেইমার আর ২০১৮ ক্যাসিমিরো শেষ ম্যাচে না থাকায় ব্রাজিল বিদায় নিয়েছিল । এবারেও তেমন কিছু হতে পারে । তাই আগেভাগে তিতের রিজার্ভ বেঞ্চের পরীক্ষায় যাওয়া বুদ্ধিমানের কাজ ।

ব্রাজিল একাদশ- এডারসন (গোলরক্ষক) , এলেক্স টেলেক্স , ড্যানি আলাভেজ , ব্রেমার , মিলিতাও , ফ্রেড , ফ্যাবিনিও , রদ্রিগো , মার্তেনেল্লি , এন্টোনি , গ্যাব্রিয়েল হেসুস

আহাস/ক্রী/০০৫