Download WordPress Themes, Happy Birthday Wishes

মেসিদের পর কাতারের কাছ থেকে ঘুষ নিয়েছে ইকুয়েডর

ক্রীড়ালোক প্রতিবেদকঃ

২০১৮ সালের বিশ্বকাপ বাছাই পর্ব থেকে বাদ পড়ার উপক্রম হয়েছিল আর্জেন্টিনার । ল্যাটিন বাছাইয়ের শেষ ম্যাচে আর্জেন্টিনার সামনে একটাই পথ খোলা ছিল । বিশ্বকাপের টিকেট পেতে হারাতে হবে ইকুয়েডরকে । তাও সমুদ্রপৃষ্ঠ থেকে ২ হাজার ৭৮২ মিটার উঁচুতে কিটো স্টেডিয়ামে । যেখানে যে কোন দলের জন্য জয় পেতে প্রাণ ওষ্ঠাগত হয়ে যায় । আর্জেন্টিনাও সেই ম্যাচের আগে ১৬ বছর জিততে পারেনি এই মাঠে । এমন কঠিন পরিস্থিতির মধ্যে প্রথমে গোল করেও জেতা দুরের কথা , ড্র করতে পারেনি স্বাগতিক ইকুয়েডর । বরং লিওনেল মেসির হ্যাট্রিকে স্বাগতিকদের ৩-১ গোলে হারিয়ে রাশিয়া বিশ্বকাপের টিকেট পেয়েছিল আর্জেন্টিনা ।

ইকুয়েডরের বিপক্ষে সেই ম্যাচ নিয়ে পরবর্তীতে কম আলোচনা হয় নি । ম্যাচে ইকুয়েডরের খেলোয়াড়দের শারীরিক ভাষা ছিল রহস্যজনক । মেসির তিনটি গোলের সময়েই রক্ষণের খেলোয়াড়রা সেভাবে  বাঁধা দেয় নি । আসলে ইকুয়েডর অনেক আগেই বাদ পরে গিয়েছিল বিশ্বকাপ বাছাই থেকে । এই ম্যাচ হারা-জেতায় তাদের কিছু যায় আসে নি । বরং আর্জেন্টিনাকে ম্যাচ ছেড়ে দিয়ে অনৈতিক পন্থায় লাভবান হবার পথে হেঁটেছিল দলটি । 

সেই ইকুয়েডর খেলছে কাতার বিশ্বকাপে । মাঠে নামছে উদ্বোধনী দিনেই । ২১ নভেম্বর কাতারের বিপক্ষে ইকুয়েডরের ম্যাচ দিয়েই পর্দা উঠছে ২০২২ সালের ফিফা বিশ্বকাপের । কিন্তু , সেই ম্যাচের  আগে আবারও আলোচনায় ইকুয়েডর । অভিযোগ উঠেছে ,  তারা প্রথম ম্যাচ হারার জন্য কাতারের কাছ থেকে নিয়েছে  আর্থিক সুবিধা ! 

মধ্যপ্রাচ্য সম্পর্কিত ব্রিটিশ গবেষণা কেন্দ্রের আঞ্চলিক প্রধান আমজাদ তাহা টুইটারে জানিয়েছেন , উদ্বোধনী ম্যাচে হারার জন্য ইকুয়েডরের আটজন খেলোয়াড়কে প্রায় সাড়ে সাত মিলিয়ন আমেরিকান  ডলার ঘুষ হিসেবে দিচ্ছে কাতার ! বাংলাদেশি মুদ্রায় যা ৭৬ কোটি টাকার বেশী ।

সৌদি নাগরিক আমজাদ তাহা আরও জানিয়েছেন , কাতার এবং ইকুয়েডর স্কোয়াডের অন্তত পাঁচজন এই খবর নিশ্চিত করেছে ।

আমজাদ তাহার অভিযোগটি গুরুতর । তবে এই বিষয়ে কাতার বা ফিফা’র তরফে কোন আনুষ্ঠানিক বক্তব্য পাওয়া যায় নি । অবশ্য বিশ্বকাপ ফুটবলে ঘুষ বা অনৈতিক সুবিধা নিয়ে ম্যাচ ছাড়ার ঘটনা নতুন কিছু না । ১৯৭৮ সালে ফাইনালে ওঠার রাস্তা পরিস্কার করতে আর্জেন্টিনা পেরুকে হারিয়েছিল ঘুষের বিনিময়ে । যা পরে স্বীকার করেছিলেন জেনারো লেদেসমা ।

আহাস/ক্রী/০০৬