Download WordPress Themes, Happy Birthday Wishes

৬ মাসের জন্য নিষিদ্ধ ক্রুসিয়ানি

বসুন্ধরা কোচ অস্কার ব্রুজোন

ক্রীড়ালোক প্রতিবেদকঃ

বাংলাদেশের ঘরোয়া ফুটবলে ৬ মাসের জন্য নিষিদ্ধ হয়েছেন আন্দ্রেস ক্রুসিয়ানি । সেই সাথে এক লাখ টাকা জরিমার কবলেও পড়েছেন ক্রুসিয়ানি । শৃঙ্খলা ভঙ্গের অভিযোগে আর্জেন্টাইন ক্রুসিয়ানিকে এই শাস্তি দিয়েছে বাংলাদেশ ফুটবল ফেডারেশন (বাফুফে) ।

মঙ্গলবার (২ আগস্ট) এক বিজ্ঞপ্তিতে ক্রুসিয়ানির সাজার কথা জানিয়েছে বাফুফে । শুধু ক্রুসিয়ানি নয় , শাস্তির মুখে পড়েছেন বসুন্ধরার কোচ অস্কার ব্রুজেনও । মিডিয়ার কাছে ‘বিতর্কিত’ বক্তব্য দেয়ার কারণে ব্রুজনকে এক লাখ টাকা জরিমানা ও এক ম্যাচ নিষিদ্ধ করা হয়েছে।

চলমান বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লীগে (বিপিএল) গত ২৬ জুলাই গোপালগঞ্জে উত্তর বারিধারাকে ৭-০ গোলে হারায় সাইফ স্পোর্টিং ক্লাব । ম্যাচের ৩৯ মিনিটে রেফারির একটি সিদ্ধান্তের প্রতিবাদে সহকারী রেফারি রাসেল মাহমুদের সঙ্গে কথা কাটাকাটিতে জড়িয়ে পড়েন সাইফের কোচ ক্রুসিয়ানি। এক পর্যায়ে মেজাজ হারিয়ে ক্রুসিয়ানি মাথা দিয়ে ঢুস মারেন সহকারী রেফারিকে। তখন তাকে লালকার্ড দেখিয়ে ড্রেসিংরুমে পাঠিয়ে দেয়া হয়। এছাড়া ক্রুসিয়ানির বিরুদ্ধে অভিযোগ , চতুর্থ রেফারিকে উত্তেজিত হয়ে প্রাণনাশের হুমকি দেয়ার ।

একই ম্যাচে উত্তর বারিধারার ডাগ আউটে থাকা উত্তর বারিধারা ক্লাবের সহকারী ম্যানেজার জাহাঙ্গীর আলম, টিম ম্যানেজার জনাব নুর হোসেন ও খেলোয়াড় সুজন বিশ্বাস শারীরিকভাবে লাঞ্ছিত করেন সহকারী রেফারি । ম্যাচে তারাও দেখেছেন লাল কার্ড ।

এই ঘটনার সত্যতা খুঁজে পেয়েছে বাফুফে ডিসিপ্লিনারী কমিটি । তাতেও দোষীও সাব্যস্ত হয়েছেন অভিযুক্তরা । ক্রুসিয়ানির সাথে তাই শাস্তির আওতায় এসেছেন উত্তর বারিধারা সংশ্লিষ্টরা । শাস্তি হিসেবে উত্তর বারিধারার সহকারী ম্যানেজার জাহাঙ্গীর আলমকে ১ বছর যেকোনো ফুটবল থেকে নিষিদ্ধ ঘোষণার পাশাপাশি ৫০ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়েছে।

ম্যানেজার নূর হোসেন ও খেলোয়াড় সুজন বিশ্বাসকে ২৫ হাজার টাকা জরিমানার পাশাপাশি ঘরোয়া ফুটবল থেকে ৬ মাসের জন্য নিষিদ্ধ করা হয়েছে। উত্তর বারিধারা ক্লাবকে জরিমানা করা হয়েছে ১ লাখ টাকা।

বাংলাদেশের ফুটবলে ক্রুসিয়ানি খুবই পরিচিত এক মুখ । এই আর্জেন্টাইন ২০০৫ সালে বাংলাদেশ জাতীয় দলের দায়িত্ব নিয়েছিলেন । তাঁর অধীনেই ২০০৫ সালে করাচিতে সাফ চ্যাম্পিয়নশিপের ফাইনালে খেলেছিল বাংলাদেশ। কিন্তু ২০০৬ সালে এএফসি চ্যালেঞ্জ কাপের ব্যর্থতার পর বরখাস্ত করা হয় তাকে। ২০০৭ সালে অবশ্য আবাহনী লিমিটেডের কোচ হয়ে ঢাকায় ফিরেছিলেন। কিন্তু বেশিদিন থাকতে পারেননি। পরে তিনি মালদ্বীপ জাতীয় দলের কোচ হয়েছিলেন।

পরবর্তীতে ২০২১-২২ মৌসুমে সাইফের কোচ হিসেবে তৃতীয়বারের মত বাংলাদেশে এসেছেন ক্রুসিয়ানি । তাঁর অধীনে সদ্য শেষ হওয়া বিপিএলে ২২ ম্যাচ শেষে ৩৭ পয়েন্ট নিয়ে তৃতীয় হয়েছে সাইফ । যদিও আগামী মৌসুমে সাইফের সাথে তার গাঁটছড়া থাকবে কিনা সন্দেহ । ইতোমধ্যে সাইফের সাথে তার চুক্তি শেষ হয়েছে । আর নতুন করে চুক্তি বাড়াতে তিনি আগ্রহী নন ।

আসলে বাংলাদেশের ঘরোয়া ফুটবল নিয়ে ক্রুসিয়ানি হতাশ ।বিশেষ করে ঘরোয়া ফুটবলের রেফারিং নিয়ে তার বিস্তর অভিযোগ । লীগের শুরুর দিকে রেফারিংয়ের সমালোচনা করায় শোকজ ও আর্থিক জরিমানার মধ্যে পড়েছিলেন।

একই কারণে শাস্তির কবলে পড়েছেন বসুন্ধরা কোচ অস্কার ব্রুজেন । তার অধীনে বসুন্ধরা কিংস জিতেছে টানা তিনটি লীগ শিরোপা । গড়েছে আবির্ভাবেই হ্যাট্রিক লীগ শিরোপা জয়ের অনন্য রেকর্ড । কিন্তু সর্বশেষ বিপিএল জয়ের পর স্প্যানিশ কোচ গণমাধ্যমে বলেন , ‘সব আবাহনীর পক্ষে ছিল’ । যা ভালোভাবে নেয় নি বাফুফে ।

এছাড়া একই সভায় জরিমানা করা হয়েছে মুক্তিযোদ্ধা সংসদ আর চট্টগ্রাম আবাহনীকে । মুক্তিযোদ্ধার বিপক্ষে ম্যাচে চট্টগ্রামের কোচ মারুফুল হক সহ অন্য কর্মকর্তারা রেফারির দিকে তেড়ে যাওয়ায় ক্লাবটিকে ৫০ হাজার টাকা জরিমানা করা এবং সংশ্লিষ্টদের সতর্ক করা হয়েছে। এছাড়া শেখ রাসেলের বিপক্ষে ম্যাচে রেফারির সিদ্ধান্তকে আমলে না নেওয়ায় মুক্তিযোদ্ধা সংসদকে ৫০ হাজার টাকা জরিমানার শিকার হয়েছে।

আহাস/ক্রী/০০৩