Download WordPress Themes, Happy Birthday Wishes

ইনজুরিতে জেরবার টাইগারদের মুখরক্ষা হবে তো ?

ক্রীড়ালোক প্রতিবেদকঃ

জিম্বাবুয়ের মাটিতে বাংলাদেশের সফর দুঃস্বপ্নে পরিনত হবে , কে জানতো ! শুরুতে টি-টুয়েন্টি সিরিজে হার । এখন ওয়ানডে সিরিজেও চোখ পাকাচ্ছে সিরিজ হারের শংকা । এমন অবস্থায় সিরিজের দ্বিতীয় ম্যাচ বাংলাদেশের জন্য বাঁচা-মরার লড়াই । যা বাংলাদেশ হারলেই টি-টুয়েন্টির পর ওয়ানডে সিরিজ জয়ের উল্লাসটাও করবে স্বাগতিকরা । এই ম্যাচের আগে প্রশ্ন একটাই , বাংলাদেশ কি পারবে দ্বিতীয় ম্যাচ জিতে সিরিজে নিজেদের আশা ধরে রাখতে ?

রবিবার (৭ আগস্ট) তিন ম্যাচ ওয়ানডে সিরিজের দ্বিতীয়টিতে মুখোমুখি হবে বাংলাদেশ এবং জিম্বাবুয়ে । হারারেতে ম্যাচ শুরু বাংলাদেশ সময় দুপুর ১টা ১৫ মিনিটে ।

হারারেতেই সিরিজের প্রথম ম্যাচে তিনশো পেরিয়ে যাওয়া ইনিংস গড়েও বাংলাদেশ হেরেছে পাঁচ উইকেটে । মুলত সিকান্দার রাজা আর ইনোসেন্ট কাইয়ার অবিশ্বাস্য ব্যাটিংয়ের কাছেই হেরেছে বাংলাদেশ । সিকান্দার রাজা বিশ্বকাপ বাছাই পর্ব থেকেই খুনে ফর্মে আছেন । বাংলাদেশের বিপক্ষে টি-টুয়েন্টি সিরিজেও ছিলেন সেরা । ওয়ানডে সিরিজটাও শুরু করেছেন রাজার মত । অন্যদিকে ক্যারিয়ার সেরা ইনিংস খেলে বাংলাদেশকে ডুবিয়েছেন কাইয়া । যাতে ইন্ধন জুগিয়েছে বাংলাদেশের মিস ফিল্ডিং । দুইজনকেই ক্যাচ ফেলে বাংলাদেশের ফিল্ডাররা সুযোগ করে দিয়েছে সেঞ্চুরির । নইলে দুজনকেই ফিরতে হত হাফসেঞ্চুরির আগেই । কিন্তু তা না হওয়ায় জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে টানা ১৯ ম্যাচ জয়ের ধারা শেষ হয় বাংলাদেশের। ২০১৩ সালের পর প্রথমবারের মতো বাংলাদেশকে হারিয়ে তিন ম্যাচের ওয়ানডে সিরিজে এখন ১-০ ব্যবধানে এগিয়ে জিম্বাবুয়ে।

জিম্বাবুয়ে সফরে বাংলাদেশের ভাগ্যটাও বিরুপ আচরণ করছে । টি-টুয়েন্টি সিরিজের দ্বিতীয় ম্যাচে ইনজুরি-আক্রান্ত হয়ে ছিটকে গেছেন নুরুল হাসান সোহান । আর প্রথম ওয়ানডে ম্যাচের পর ছিটকে গেছেন লিটন দাস । এছাড়া ইনজুরিতে রয়েছেন মোস্তাফিজুর রহমান , শরিফুল ইসলাম আর মুশফিকুর রহিম ।

শরিফুল আর মুশফিক চোট কাটিয়ে দ্বিতীয় ম্যাচে মাঠে নামতে পারবেন , এমন আশা করছে টিম ম্যানেজমেন্ট । কিন্তু মোস্তাফিজের না খেলা অনেকটাই নিশ্চিত । ইতোমধ্যে ওয়ানডে সিরিজের বাকী দুই ম্যাচের জন্য বাংলাদেশ থেকে উড়িয়ে নেয়া হয়েছে ওপেনিং ব্যাটার নাঈম শেখ এবং পেসার এবাদত হোসেনকে।

বাংলাদেশ দলের সঙ্গে থাকা ফিজিও মোজাদ্দেদ আলফা সানি জানিয়েছেন, ‘মোস্তাফিজের এমআরআইতে খুব খারাপ কিছু আসেনি, শুধু জয়েন্ট ইফিউশন। তাই মুস্তাফিজকে হয়ত আগামী ম্যাচটা বিশ্রাম দিব। পরের ম্যাচ থেকে উনি থাকবেন।’

সব মিলিয়ে অনেকটাই বেকায়দায় থাকা বাংলাদেশের দ্বিতীয় ম্যাচের একাদশে আসবে একাধিক পরিবর্তন । এমনকি , বাড়তি স্পিনার হিসেবে তাইজুল ইসলাম কিংবা নাসুম আহমেদকে খেলাবার কথা ভাবছেন স্পিন কোচ রঙ্গনা হেরাথ । এছাড়া বাংলাদেশ থেকে উড়ে যাওয়া এবাদত আর নাইম শেখের ম্যাচে নামাও অনেকটা নিশ্চিত । এতসব পরিবর্তনের মধ্যে বাংলাদেশ দ্বিতীয় ওয়ানডে ম্যাচ জিতে সিরিজে সমতা আনবে , এটা প্রত্যাশা ।

এখন পর্যন্ত জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে ৭৯টি ম্যাচ খেলেছে বাংলাদেশ। এরমধ্যে ৫০টিতে জিতেছে টাইগাররা। হেরেছে ২৯টিতে। এছাড়া ২০১৩ সালের পর জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে কোন ওয়ানডে সিরিজ হারে নি টাইগাররা ।

বাংলাদেশের সম্ভাব্য একাদশ:
তামিম ইকবাল (অধিনায়ক), এনামুল হক বিজয়, মুশফিকুর রহিম, মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ, আফিফ হোসেন, মেহেদী হাসান মিরাজ, মোসাদ্দেক হোসেন সৈকত, তাসকিন আহমেদ, শরিফুল ইসলাম, তাইজুল ইসলাম ও হাসান মাহমুদ।

আহাস/ক্রী/০০৩