Download WordPress Themes, Happy Birthday Wishes

রোনালদোর ভয়ে পিএসজি ছাড়ার হুমকি দিলেন মেসি

ক্রীড়ালোক প্রতিবেদকঃ

ক্রিশ্চিয়ানো রোনালদোর সঙ্গে কখনই একই দলে খেলবেন না লিওনেল মেসি । এটা তিনি সাফ জানিয়ে দিয়েছেন পিএসজি (প্যারিস সেইন্ট জার্মেই) কর্তাদের । সেই সাথে হুমকি দিয়েছেন , রোনালদোকে দলে ভেড়ালে তিনি খুঁজবেন অন্য ঠিকানা !

২০২১-২২ মৌসুমে রোনালদো যোগ দিয়েছিলেন ইংলিশ জায়ান্ট ম্যানচেস্টার ইউনাইটেডে । ইংলিশ প্রিমিয়ার লীগে ৩০ ম্যাচে ১৮ গোল করেছেন তিনি । তার চেয়ে পাঁচ ম্যাচ বেশী খেলা মোহাম্মদ সালাহ আর সন হউং মিন ২৩টি করে গোল নিয়ে ছিলেন যৌথ সেরা গোলদাতা । এছাড়াও ছয়টি গোল করেছেন চ্যাম্পিয়ন্স লীগে । কিন্তু প্রিমিয়ার লীগে ষষ্ঠ স্থান পাওয়ায় ম্যান ইউ আসন্ন চ্যাম্পিয়ন্স লীগে খেলার সুযোগ হারিয়েছে । যে কারণে রোনালদো রেড ডেভিল শিবির ছাড়ার সিদ্ধান্ত নিয়ে ফেলেছেন ।

অন্যদিকে ২০২১-২২ মৌসুমে ক্যারিয়ারের শুরু থেকে খেলা বার্সেলোনা ত্যাগ করে পিএসজিতে যোগ দেন মেসি । পিএসজি ফরাসী লীগ ওয়ান জিতলেও তাতে মেসির অবদান ছিল সামান্যই । লীগে ২৬ ম্যাচ খেলে তিনি করেছেন মাত্র ছয় গোল আর এসিস্ট ১৪টি । এছাড়া চ্যাম্পিয়ন্স লীগের নক আউট পর্বে রিয়েল মাদ্রিদের বিপক্ষে পেনাল্টি মিস করে পিএসজির বিদায়ে সহায়তা করেন ! গোটা মৌসুমে পিএসজির জার্সিতে মেসির গোলের সংখ্যা ছিল ১১টি !

রোনালদো ম্যান ইউ ছাড়ার সিদ্ধান্ত জানিয়ে দিয়েছেন ক্লাব কর্তৃপক্ষকে । তিনি এখনও যোগ দেন নি দলের অনুশীলনে । যাচ্ছেন না দলের হয়ে থাইল্যান্ড আর অস্ট্রেলিয়ায় প্রাক-মৌসুম সফরে । এতে রোনালদোর ম্যান ইউ ছাড়ার সিদ্ধান্ত যে পাকা , সেটা স্পষ্ট । যদিও ম্যান ইউর নতুন কোচ এরিক টেন হাগ কিছুতেই রোনালদোকে ছাড়তে রাজি না । ডাচ কোচ সাফ জানিয়ে দিয়েছেন , রোনালদো বিক্রির জন্য না । এমনকি আগামী মৌসুমে ম্যান ইউর দুরবস্থা কাটাতে রোনালদোর কাঁধে অধিনায়কত্বের ভার তুলে দেয়ার আভাস দিয়ে রেখেছেন তিনি । কিন্তু তাতেও রোনালদোর মন বদলাবে কিনা সন্দেহ ।

রোনালদোর সাথে ম্যান ইউর চুক্তি এখনও এক বছর বাকী আছে । কিন্তু রোনালদো যখন রিয়েল মাদ্রিদ আর জুভেন্টাস ছাড়েন , তখনও দুই ক্লাবের সাথে তার চুক্তি শেষ হয় নি । তাই রোনালদো চাইলে দল ছাড়ার কোন না কোন পথ খুঁজে নেবেন , এটা নিশ্চিত । ইতোমধ্যে রোনালদোকে দলে নেয়ার জন্য আগ্রহ দেখিয়েছে চেলসি , বায়ার্ন মিউনিখ , স্পোর্টিং লিসবন , এএস রোমার মত ক্লাব । সর্বশেষ সেই তালিকায় যোগ হয়েছে পিএসজি’র নাম । আর তাতেই বুঝি আতঙ্কিত মেসি দিলেন পিএসজি ছাড়ার হুমকি ।

মেসি আর রোনালদো , ক্যারিয়ারের শুরু থেকে একে অপরের প্রবল প্রতিদ্বন্দ্বী । বিশ্ব ফুটবলে একই সময়ে দুই খেলোয়াড়ের মধ্যে এমন প্রতিযোগিতা বুঝি আর দেখা যায় নি । রোনালদো যেখানে আন্তর্জাতিক ফুটবল আর উয়েফা চ্যাম্পিয়ন্স লীগে সর্বকালের সেরা গোলদাতা , সেখানে মেসি বেশ কিছুটা পিছিয়ে । আবার চ্যাম্পিয়ন্স লীগ জয়ের ক্ষেত্রেও রোনালদোকে ধরতে পারেন নি মেসি । শুধু তাই না , ইউরোপের সেরা তিন লীগের ক্লাবের প্রত্যেকের হয়ে (ম্যান ইউ , রিয়েল মাদ্রিদ , জুভেন্টাস) তিনি করেছেন শতাধিক গোল । অন্যদিকে এক ক্লাবের হয়ে (বার্সেলোনা) হয়ে সবচেয়ে বেশী গোলের বিশ্বরেকর্ড মেসির । এই ক্ষেত্রে মাত্র নয় মৌসুম খেলে রিয়েল মাদ্রিদের ইতিহাসের সর্বোচ্চ গোলদাতাও রোনালদো । পরিসংখ্যান বলছে , রিয়েলের হয়ে ৪৩৮ ম্যাচে ৪৫০ গোল করেছেন রোনালদো । আর মেসি বার্সার জার্সিতে ৭৭৮ ম্যাচ ৬৭২ বার পেয়েছেন জালের দেখা । ম্যাচ প্রতি  গোল গড়ে মেসির চেয়ে লা লিগায় অনেক এগিয়ে রোনালদো । মেসির মত ১৭ মৌসুম এক দলে খেললে বিশ্বরেকর্ডটা কার হত , সেটা সহজেই অনুমেয় ।  

অবশ্য  ব্যক্তিগত পুরস্কার ‘ব্যালন ডি অর’ বা ‘ইউরোপিয়ান গোল্ডেন শ্যু’  জয়ের ক্ষেত্রে মেসি পেছনে ফেলেছেন রোনালদোকে । মোট কথা , ফুটবলে মেসি আর রোনালদোর প্রতিযোগিতা এখনও শেষ হয় নি  । যদিও মেসির বয়স এখন ৩৫ আর রোনালদোর ৩৭ বছর । দুজনেই ক্যারিয়ারের শেষ দিকে চলে এসেছেন । কিন্তু রেকর্ডের ‘ক্ষুধা’ তাদের মধ্যে এখনও সমান ।

হয়ত ব্যক্তিগতভাবে পিছিয়ে পড়ার শংকাতেই মেসি চান না রোনালদোর সাথে একই দলে খেলতে । মধ্যমাঠ আর উইঙ্গার পজিশনে খেলা রোনালদো এখন নিজের খেলার ধারা বদলেছেন । তিনি এখন পুরদস্তুর স্ট্রাইকার । পিএসজিতে গেলেও সেই স্ট্রাইকার পজিশনেই খেলবেন রোনালদো । তাতে মেসিকে নেমে আসতে হবে কিছুটা নীচে , হয়তো এটাকিং মিডফিল্ডার হিসেবে । কিলিয়ান এমবাপ্পে আর নেইমারকে দুই উইংয়ে দিয়ে প্রধান স্ট্রাইকার হবেন রোনালদো । তাতে মেসিকে রোনালদোর জন্য গোলের সুযোগ তৈরি করে দিতে হবে ! সেটা মেসি কেন সহ্য করবেন ?

দলে কিলিয়ান এমবাপ্পে , নেইমার আর মেসির মত মহাতারকা থাকতে রোনালদোর জন্য কেন আগ্রহী হবে পিএসজি ? কারণ একটাই , চ্যাম্পিয়ন্স লীগ শিরোপা । নেইমারকে ২০১৭ সালে পিএসজি বিশ্বরেকর্ড ট্রান্সফার ফি আর বেতনে কিনেছিল ইউরোপের সবচেয়ে বড় ট্রফি জয়ের আশায় । একই বছর দলে ভেড়ায় এমবাপ্পেকেও । কিন্তু ২০২০ সালে ফাইনালে যাওয়া পর্যন্ত ছিল তাদের সর্বোচ্চ সাফল্য । এরপর সর্বশেষ মৌসুমে মেসিকে দলে ভিড়িয়ে পিএজসি বিদায় নিয়েছে নক আউট পর্ব থেকেই । তাই হয়ত কাতারের ধনকুবের পিএসজি প্রেসিডেন্ট নাসের আল খেলাইফির নজর রোনালদোর দিকে । কারণ রোনালদো নিজেই ‘মিস্টার চ্যাম্পিয়ন্স লীগ’ । যার রয়েছে পাঁচটি শিরোপা আর রেকর্ড ১৪১ গোল ।

তবে শিরোপা নয় , রোনালদোকে পাওয়ার পেছনে ক্লাবের ইমেজ বাড়ানো আর বানিজ্যিক স্বার্থটাও দেখতে পারেন খেলাইফি । নেইমারকে আনার পর ক্লাবের সমর্থক সংখ্যা রাতারাতি বেড়ে গিয়েছিল অনেকগুণ । মেসি আসায় সেই সংখ্যা আরও বেড়েছে । এছাড়া তাদের দুজনের জার্সি বিক্রি করেই কাঁড়ি কাঁড়ি টাকা কামিয়েছে পিএসজি। এর মধ্যে রোনালদো চলে এলে তো পিএসজি’র পোয়াবারো । কারণ এখনও ব্র্যান্ড-ভ্যালুতে রোনালদো যে কাউকে টেক্কা দিয়ে চলছেন । তাই রোনালদোকে নেয়ার জন্য খেলাইফির পিএসজি’র আগ্রহ সবদিক থেকেই স্বাভাবিক ।

তবে রোনালদোকে দলে পেতে পিএসজির আগ্রহের বিষয়টি মেনে নিতে পারছেন না মেসি। ভেনেজুয়েলার সংবাদমাধ্যম এল নাসিওনাল জানিয়েছে, মেসি নাকি এরই মধ্যে পিএসজি কর্তাদের প্যারিস ছাড়ার ‘হুমকি’ দিয়েছেন। আর মেসির এই হুমকি যে রোনালদোর তুলনায় নিজের পিছিয়ে পড়ার ভয় থেকেই দেওয়া এটা অনুমান করা খুব বেশী কঠিন না ।

আহাস/ক্রী/০০৩