Download WordPress Themes, Happy Birthday Wishes

হাল্যান্ডদের হারিয়ে ‘গোল্ডেন বুট’ জয়ের সামর্থ্য রাখেন রোনালদো

আহসান হাবীব সুমন/ক্রীড়ালোকঃ

২০২১-২২ মৌসুমটি একেবারেই ভাল যায় নি ম্যানচেস্টার ইউনাইটেডের । ইংলিশ প্রিমিয়ার লীগের সবচেয়ে সফল দলটি পয়েন্ট টেবিলের ষষ্ঠ স্থানে থেকে শেষ করেছে মৌসুম । এতে ২০২২-২৩ মৌসুমের উয়েফা চ্যাম্পিয়ন্স লীগে খেলার সুযোগ হারিয়েছে ম্যান ইউ  । আগামী মৌসুমে তাদের খেলতে হবে ইউরোপের ক্লাব ফুটবলে দ্বিতীয় সারির আসর ইউরোপা লীগে । 

ইপিএলের রেকর্ড ২০বারের চ্যাম্পিয়ন ম্যান ইউর জন্য ইউরোপা লীগে খেলা অবশ্য নতুন কিছু না । গত এক যুগেই তাদের  ইউরোপা লীগে খেলতে হয়েছে পাঁচবার । শিরোপাও জিতেছে ২০১৬-১৭ মৌসুমে । আবার ২০২০-২১ মৌসুমে ফাইনালে উঠেও টাইব্রেকারে হারতে হয়েছে ভিয়ারিয়েলের কাছে । কিন্তু তবু ম্যান ইউর আগামী মৌসুমে ইউরোপা লীগে জায়গা পাওয়া নিয়ে সমালোচনা বেশী হচ্ছে , কারণ দলে ছিলেন একজন ক্রিশ্চিয়ানো রোনালদো ।

ফুটবল ইতিহাসের অন্যতম সেরা খেলোয়াড় রোনালদো মানেই চ্যাম্পিয়ন্স লীগ । বর্তমান ফুটবলারদের মধ্যে সবচেয়ে বেশী পাঁচবার ইউরোপের সেরা ক্লাব ফুটবলের শিরোপাটি জিতেছেন তিনি । চ্যাম্পিয়ন্স লীগের ইতিহাসের সবচেয়ে বেশী গোল তাঁর । ধরে রেখেছেন এক চ্যাম্পিয়ন্স লীগ মৌসুমে সবচেয়ে বেশী গোল করার রেকর্ডটাও । দেড় যুগের ক্যারিয়ারে তাকে কখনও চ্যাম্পিয়ন্স লীগের  বাইরে দেখা যায় নি । আগামী মৌসুমে ম্যান ইউতে রয়ে গেলে ক্যারিয়ারে প্রথমবারের মত ইউরোপা লীগে দেখা যাবে পর্তুগীজ মহাতারকাকে ।

ম্যান ইউতে রোনালদো এই প্রথম খেলছেন না । স্পোর্টিং লিসবন থেকে ২০০৩ সালে স্যার অ্যালেক্স ফার্গুসন তাকে এনেছিলেন ইংল্যান্ডের সেরা ক্লাবে । প্রথম দফায় এই ক্লাবে খেলেছেন ২০০৯ অবধি । এই সময়েই তিনি জিতেছেন ক্যারিয়ারের প্রথম চ্যাম্পিয়ন্স লীগ । জিতেছেন প্রথম ব্যালন ডি অর’ । প্রথমবার ফিফার ‘ওয়ার্ল্ড প্লেয়ার অফ দা ইয়ার’ও ২০০৮ সালে হয়েছিলেন ম্যান ইউতে থাকতেই । মোট কথা , রোনালদোর বিশ্বসেরা হয়ে ওঠার শুরুটা ছিল ম্যান ইউতেই । ম্যান ইউতে খেলে যেমন রোনালদো পেয়েছেন অনেক কিছু , তেমনি রোনালদোও ম্যান ইউকে দিয়ে গেছেন স্মরণীয় সাফল্য ।

২০২১-২২ মৌসুমে আবারও রোনালদো ফিরেছেন ম্যান ইউতে । এবারেও ওল্ড ট্রাফোর্ডে তাঁর ফেরায় বড় ভূমিকা রাখেন স্যার ফার্গুসন । প্রিয় শিষ্যকে ম্যান ইউতে ফেরার পরামর্শ দিয়েছিলেন তিনিই । যদিও ফার্গুসন এখন আর ম্যান ইউর কোচ নন । আর ম্যান ইউও আগের মত সফল দল নয় । তাই দ্বিতীয় দফায় ইংল্যান্ডে ফেরা রোনালদোকে দেখতে হয়েছে ম্যান ইউর ব্যর্থতা ।

যদিও ব্যক্তিগত পারফর্মেন্সে রোনালদো ঠিকই পেছনে  ফেলেছেন সতীর্থ সবাইকে । ৩৮ ম্যাচে ২৪ গোল করে ছিলেন দলের সেরা গোলদাতা । লীগে করেছেন ৩০ ম্যাচে ১৮ গোল । ৩৫ ম্যাচে ২৩ গোল করে টটেনহ্যামের হিউং মিন সন আর লিভারপুলের মোহাম্মদ সালাহ ছিলেন গোলদাতার শীর্ষে । দ্বিতীয় স্থানে থাকা রোনালদো পাঁচ ম্যাচ কম খেলেছেন তাদের চেয়ে । সমান সুযোগ পেলে তাঁর গোলের সংখ্যা আরও বাড়ত , সন্দেহ নেই ।

৩৭ বছরের রোনালদো সুযোগ পেয়েছেন ইপিএলের বর্ষসেরা একাদশেও । কিন্তু সত্যি কথা হচ্ছে , ক্যারিয়ারে বছরের পর বছর রোনালদো ‘অতিমানবিক’ পারফর্মেন্স উপহার নিজেকে এমন উচ্চতায় নিয়ে গেছেন ; যেখান থেকে এক মৌসুমে ২৪ গোল অনেক কম মনে হচ্ছে ! সাথে যোগ হয়েছে লীগে ম্যান ইউর ভরাডুবি ।

যদিও ম্যান ইউর সাবেক ফুটবলার মিকায়েল সিলভেস্ত্রে মনে করেন , ম্যান ইউর ভুল নীতির কারণেই সর্বশেষ মৌসুমে রোনালদো লীগের সর্বোচ্চ গোলদাতা হতে পারে নি ।

ফ্রান্স জাতীয় দলের হয়ে ২০০৬ সালের বিশ্বকাপ ফাইনাল খেলা সিলভেস্ত্রে মনে করেন , রোনালদোর এখনও সামর্থ্য আছে ইপিএলের গোল্ডেন-বুট জয়ের । আর সেটা তিনি আগামী মৌসুমে জিততেও পারেন । তবে রোনালদোকে সেই ক্ষেত্রে পর্যাপ্ত সুযোগ আর মাঠে  নিজের মত খেলার  স্বাধীনতা দিতে হবে ।

ইতোমধ্যেই ইপিএল চ্যাম্পিয়ন ম্যানচেস্টার সিটিতে যোগ দিয়েছেন আর্লিং হাল্যান্ড । নরওয়ের এই তরুণ গোল-মেশিনকে নিয়ে সবাই আশাবাদী । হয়ত আগামী মৌসুমেই ইপিএল গোল্ডেন-বুট জিতবেন সদ্য বুরুশিয়া ডর্টমুণ্ড ছেড়ে আসা হাল্যান্ড  , এমন ভাবছেন  কেউ কেউ ।

যদিও সিলভাস্ত্রে মনে করছেন , ‘ অনেকেই মনে করছে হাল্যান্ড গোল্ডেন বুট জিতবে । কিন্তু আমি তো দেখতে পাচ্ছি রোনালদোকে ! ‘

১৯৯৯-২০০৮ সাল পর্যন্ত ম্যান ইউতে খেলেছেন সিলভাস্ত্রে । তিনি সতীর্থ হিসেবে পেয়েছেন রোনালদোকেও । তাই পর্তুগীজ ফুটবল সম্রাটকে তিনি জানেন খুব ভালভাবে । ‘এক্সপ্রেস’ পত্রিকাকে দেয়া সাক্ষাৎকারে সিলভাস্ত্রে বলেছেন , ‘ শেষ মৌসুমে রোনালদো কিন্তু  সালাহ আর সনের চেয়ে খুব পিছিয়ে ছিল না । আর সে তো ম্যাচও কম খেলেছে । ম্যান ইউ পারে নি , কিন্তু রোনালদো তাঁর কাজ ঠিকই করেছে । আমার মনে হয় , আগামী মৌসুমে রোনালদোকে ধরে রেখে ম্যান ইউর নতুন পরিকল্পনা করা উচিত । সে অভিজ্ঞ আর সেরা । তাঁর এখনও অনেক কিছু দেবার সামর্থ্য আছে । দলে থাকা তরুণরাও একজন গ্রেটের পাশে থেকে অনেক কিছু শিখতে পারবে । ‘ 

রোনালদো আগামী মৌসুমে ম্যান ইউতে থাকবেন কিনা সন্দেহ আছে । কোচ এরিক টেন হাগের পরিকল্পনায় রোনালদো নেই , এমন কথাই শোনা যাচ্ছে । যদিও এসব কিছুই চূড়ান্ত নয় ।

ইংল্যান্ডের বিখ্যাত ইউ টিউবার এবং রেডিও জকি মার্ক গোল্ডব্রিজ টুইটারে লিখেছেন , ‘ ম্যান সিটি হাল্যান্ডের মত স্ট্রাইকার সাইন করিয়েছে । এটা দারুণ খবর । কিন্তু ম্যান ইউর একজন রোনালদো আছে , সে সেরা  । আসলে ম্যান ইউর সমস্যা বিশ্বমানের স্ট্রাইকার নয় , বরং তাদের কাজে লাগানো । রোনালদো হচ্ছে  ফেরারি গাড়ির মত । যাকে প্রয়োজনীয় জ্বালানি সরবরাহ না করে বসিয়ে রাখা হয়েছিল !’ 

আহাস/ক্রী/০০৩