Download WordPress Themes, Happy Birthday Wishes

নিজেকে পরিবর্তন করবেন না সাকিব

ক্রীড়ালোক প্রতিবেদকঃ

ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে প্রথম টেস্টে সাত উইকেটে হেরেছে বাংলাদেশ । প্রথম ইনিংসে চরম ব্যর্থতা স্বত্বেও ম্যাচ চতুর্থ দিনে গড়িয়েছে । কিংবা বাংলাদেশের ভাগ্যে ইনিংস পরাজয় জোটে নি , এই নিয়ে তৃপ্তির ঢেঁকুর তোলা ছাড়া অ্যান্টিগা টেস্টে উল্লেখ করার মত কিছু নেই ।

রবিবার (১৯ জুন) স্যার ভিভিয়ান রিচার্ড স্টেডিয়ামে সাত উইকেট হাতে রেখে মাঠে নামে ওয়েস্ট ইন্ডিজ । জয়ের জন্য স্বাগতিকদের বাকী ছিল আর মাত্র ৩৫ রান । কোন উইকেট না হারিয়ে মাত্র সাত ওভার খেলেই জয়ের জন্য প্রয়োজনীয় রান তুলে নেন ক্যারিবীয় দুই অপরাজিত ব্যাটার জন ক্যাম্পবেল এবং জার্মেইন ব্ল্যাকউড। ইনজুরি কাটিয়ে শেষ মুহূর্তে স্কোয়াডে ফেরা কেমার রোচ হয়েছেন ম্যাচের সেরা । দুই ইনিংস মিলিয়ে তিনি নিয়েছেন সাত উইকেট ।

অ্যান্টিগা টেস্টের দুই ইনিংসে বাংলাদেশের সংগ্রহ ১০৩ আর ২৪৫ রান । অন্যদিকে ওয়েস্ট ইন্ডিজ প্রথম ইনিংসে তোলে ২৬৫ রান । ম্যাচের চতুর্থ ইনিংসে জয়ের জন্য তাদের টার্গেট ছিল ৮৮ রানের ।

দুই দলের কেউ সেঞ্চুরির দেখা পান নি । নিজেদের প্রথম ইনিংসে সর্বোচ্চ ৯৪ রান করেছেন ক্রেইগ ব্রেথওয়েট । বাংলাদেশের হয়ে দুই ইনিংসে হাফ সেঞ্চুরি করেছেন অধিনায়ক সাকিব আল হাসান । তবে দুই ইনিংসেই সাকিব নিজের স্কোর আরও বড় করতে পারতেন । কিন্তু দুইবারেই তিনি আউট হয়েছেন উচ্চাভিলাষী শট খেলতে গিয়ে । এই নিয়ে বাংলাদেশের কোচ রাসেল ডোমিঙ্গো খানিকটা উষ্মাও প্রকাশ করেছেন । যদিও সাকিব নিজে বলেছেন , ‘ ‘নিজের ব্যাটিং নিয়ে আমি ইতিবাচক ছিলাম। সহজভাবে ভাবছিলাম—মারার বল পেলে মারব, নাহয় ঠেকাব। সব সময় গেম প্ল্যান এমন সাধারণ রাখি। এভাবেই সফল হয়েছি। আমি এটা পরিবর্তনও করব না!’

ম্যাচ শেষে সংবাদ সম্মেলনে সাংবাদিকদের প্রশ্ন ছিল বাংলাদেশের ব্যাটিং ব্যর্থতা নিয়ে । যদিও সেই প্রশ্নে সাকিব ক্ষেপে গিয়ে বলেন , ‘ ‘দেখুন! এটাতো আমার আসলে খুব একটা আলোচনার বিষয় না। কোচেরই আলোচনার বিষয়। এখন আমি যদি কোচিংও করাই, অধিনায়কত্বও করি তাহলে তো সমস্যা।’

যদিও দলের ব্যাটসম্যানদের ব্যর্থতা মেনে নিয়ে সাকিব জানান , ‘ ‘আমরা যদি নিজেদেরকে আরও ভালোভাবে প্রয়োগ করতে পারতাম তাহলে ভালো হতো। ৬ উইকেট হারিয়ে লাঞ্চে যাওয়াটা ভালো বিষয় নয়। সেই প্রথম সেশন আমাদের ম্যাচটা শেষ করে দিয়েছে। টেস্টে আমাদের প্রতিনিয়তই ধস নামছে। এটা গ্রহণযোগ্য নয়। ব্যাটারদের রান করার উপায় খুঁজে বের করতে হবে। এটা নিয়ে আমাদের কাজ করতে হবে। এটা সহজ সমীকরণ।’

তবে ম্যাচে বাংলাদেশের বোলিং আর ফিল্ডিং নিয়ে সন্তুষ্ট সাকিব । বাংলাদেশের হয়ে অ্যান্টিগায় দুই ইনিংসে খালিদ আহমেদ নিয়েছেন পাঁচ উইকেট । প্রথম ইনিংসে মেহেদি হাসান মিরাজ নিয়েছিলেন চার উইকেট । এছাড়া এবাদত দুইটি এবং সাকিব আর মুস্তাফিজুর নিয়েছেন একটি করে উইকেট ।

সাকিবের বক্তব্য , ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে দুই টেস্ট সিরিজের প্রথম টেস্টে যা হয়েছে, এর চেয়ে বেশি কিছু নাকি তিনি প্রত্যাশাই করেননি ! দলের পারফর্মেন্স নিয়ে তিনি অখুশি নন , এটাও জানিয়ে দিয়েছেন বাংলাদেশের অধিনায়ক । তবে অনেক জায়গাতেই দলের আরও উন্নতি করার সুযোগ আছে বলে জানিয়ে দিয়েছেন সাকিব ।

আহাস/ক্রী/০০১