Download WordPress Themes, Happy Birthday Wishes

নতুন ঠিকানায় রোনালদো !

ক্রীড়ালোক প্রতিবেদকঃ

ম্যানচেস্টার ইউনাইটেডে সম্ভবত আর থাকা হচ্ছে না ক্রিশ্চিয়ানো রোনালদোর । নতুন কোচ এরিক টেন হাগের নতুন পরিকল্পনার কারণেই দল ছাড়তে হচ্ছে রোনালদোকে । ইতোমধ্যেই রোনালদোর এজেন্ট জর্জ মেন্ডেস নেমে গেছেন নতুন ক্লাবে খোঁজে !

২০০৩ সাল থেকে ২০০৯ পর্যন্ত ম্যানচেস্টার ইউনাইটেডে খেলেছেন রোনালদো । মুলত ম্যান ইউর হয়েই রোনালদোর বিশ্ব ফুটবলে সেরা হয়ে ওঠা । রেড ডেভিলদের জার্সিতে রোনালদো খেলেছেন ছয় মৌসুম । সব মিলিয়ে ২৯২ ম্যাচে করেছেন ১১৮ গোল । জিতেছেন উয়েফা চ্যাম্পিয়ন্স লীগসহ নয়টি শিরোপা । জিতেছেন ক্যারিয়ারের প্রথম ব্যালন ডি অর’ । ম্যান ইউ ছেড়ে পরবর্তীতে নয় মৌসুম খেলেছেন রিয়েল মাদ্রিদে । আর দুই মৌসুম ইতালির জুভেন্তাসে ।

স্পেন আর ইতালির অধ্যায় শেষ করে দ্বিতীয় দফায় রোনালদো ফেরেন ম্যান ইউ শিবিরে । ২০২১-২২ মৌসুমে পুরনো ক্লাবের হয়ে ৩৮ ম্যাচে ২৪ গোল করেছেন সিআর-সেভেন । ছিলেন ক্লাবের সর্বোচ্চ গোলদাতা । ৩০ ম্যাচে ১৮ গোল করে ইংলিশ প্রিমিয়ার লীগের তৃতীয় সেরা গোলদাতাও ছিলেন তিনি । যেখানে লিভারপুলের মোহাম্মদ সালাহ আর টটেনহ্যামের হিউং-মিন সন ২৩ গোল করে যৌথভাবে সেরা গোলদাতার সম্মান পেয়েছেন , কিন্তু তারা দুইজনেই খেলেছেন ৩৫টি করে ম্যাচ । ধারণা করা যায় , তাদের সমান ম্যাচ খেললে ৩৭ বছরেও রোনালদো হতে পারতেন ইপিএলের সেরা গোলদাতা । সেরা গোলদাতা হতে না পারলেও ইপিএলের বর্ষসেরা একাদশে ঠিকই জায়গা করে নিয়েছেন আধুনিক ফুটবলের সম্রাট ।

সব মিলিয়ে প্রত্যাবর্তনের মৌসুমে রোনালদো নামের প্রতি ঠিকই সুবিচার করেছেন । কিন্তু দল হিসেবে ম্যান ইউ পায় নি কোন সাফল্য । লীগে ষষ্ঠ হয়ে রেড ডেভিলরা হারিয়েছে চ্যাম্পিয়ন্স লীগে খেলার সুযোগ । তাদের জায়গা হয়েছে উয়েফা ইউরোপা লীগে । স্বাভাবিকভাবেই ম্যান ইউ ম্যানেজমেন্ট বিষয়টি ভালভাবে নেয় নি । তারা বিদায় করেছে কোচ রাফ রাংগনিককে । রাংনিকের জায়গায় দায়িত্ব পেয়েছেন এরিক টেন হাগ । আর নতুন দায়িত্ব নিয়েই ম্যান ইউ স্কোয়াডকে নতুন করে সাজাবার পরিকল্পনায় নেমেছেন হল্যান্ডের কোচ । যে পরিকল্পনার কারণে দল ছাড়ছেন রোনালদো ।

ইতালির সংবাদমাধ্যম লা রিপাব্লিকা জানিয়েছে , রোনালদো মনে করছেন ডাচ কোচ এরিক টেন হ্যাগের পরিকল্পনায় নেই তিনি। যে কারণে রোনালদোর এজেন্ট জর্জ মেন্ডিস এরই মধ্যে নতুন ক্লাব খোঁজা শুরু করে দিয়েছেন বলে গুঞ্জন শোনা যাচ্ছে।

জানা গেছে , ইতালির এএস রোমা দারুণ আগ্রহী রোনালদোর বিষয়ে । রোমার কোচ হিসেবে বর্তমানে আছেন পর্তুগীজ হোসে মারিনিও । যার সাথে রোনালদোর সম্পর্ক পুরনো । ২০১০-১৩ পর্যন্ত মারিনিও রিয়েলে রোনালদোর কোচ ছিলেন । সেই সুবাদেই মারিনিও ফের রোনালদোর সাথে কাজ করতে আগ্রহী ।

পত্রিকাটি জানিয়েছে , রোনালদো রোমায় এলে ট্যাক্স বিষয়ে বাড়তি সুবিধা পাবেন । এছাড়া তাকে গিয়ালোরসিরা তাকে বছরে ২৩ মিলিয়ন ইউরো বেতন দিতেও রাজি । যদিও বিষয়টি এখনও ম্যান ইউ কিংবা রোমার তরফ থেকে আনুষ্ঠানিকভাবে পরিস্কার করা হয় নি ।

ইতালিতেও রোনালদো ছিলেন তুমুল সফল । জুভেন্তাসের হয়ে ২০১৮-১৯ থেকে ২০২০-২১ পর্যন্ত তিন মৌসুমে ইতালি লীগে তার গোলের সংখ্যা ৮১ টি , ম্যাচ খেলেছেন মাত্র ৯৮টি । আর তুরিনের বুড়িদের হয়ে সব মিলিয়ে তার গোলের সংখ্যা ১০১টি । টানা দুই মৌসুম তিনি ছিলেন ইতালিয়ান সিরি ‘এ’ ফুটবলের বর্ষসেরা খেলোয়াড় । জিতেছেন দুইটি লীগ , একটি ইতালিয়ান কাপ আর দুইটি ইতালিয়ান সুপার কাপ ।

তবে ব্যক্তিগতভাবে সফল হলেও রোনালদো আবার ইতালিতে ফিরবেন কিনা এই নিয়ে সন্দেহ আছে । কারণ রোমা এই মুহূর্তে চ্যাম্পিয়ন্স লীগে নেই । আর কে না জানে , রোনালদো চ্যাম্পিয়ন্স লীগে খেলাকে কতটা গুরুত্ব দেন । পাঁচটি চ্যাম্পিয়ন্স লীগ জেতা রোনালদো বনেদি আসরটির ইতিহাসের সেরা গোলদাতা । সেই সাথে চ্যাম্পিয়ন্স লীগ ইতিহাসের সেরা খেলোয়াড়ও । তাই চ্যাম্পিয়ন্স লীগে সুযোগ না পাওয়া রোমায় রোনালদো যাবেন , এটা অনেকেই বিশ্বাস করছেন না । এই ক্ষেত্রে চলে আসছে পর্তুগালের বেনফিকা আর স্পোর্টিং লিসবনের নাম । লিসবনের হয়েই রোনালদো তার পেশাদার ফুটবল ক্যারিয়ার শুরু করেছিলেন । আর অন্য একটি সুত্র জানিয়েছে , বেনফিকা ইতোমধ্যে রোনালদোর এজেন্টের সাথে যোগাযোগ করেছে ।

২০১৮-১৯ সালের পর বেনফিকা আর পর্তুগীজ প্রিমিয়ার লিগার শিরোপা পায় নি । তবে সর্বশেষ মৌসুমে  তৃতীয়  হওয়ায় তারা খেলবে চ্যাম্পিয়ন্স লীগে । তাই আগামী মৌসুমে বেনফিকায় রোনালদোকে দেখতে পাওয়ার সম্ভাবনাই বেশী দেখছেন বিশেষজ্ঞরা ।  বিষয়টি আরও  গুরুত্ব পাচ্ছে , বেনফিকা থেকে ডারউইন নুনেজ ম্যান ইউতে চলে আসায় । ২২ বছর বয়সী উরুগুয়ান ডারউইন সর্বশেষ পর্তুগীজ প্রিমিয়ার লীগের সেরা গোলদাতা আর  সেরা খেলোয়াড় ছিলেন  তাকে হারিয়ে রোনালদোর দিকে হাত বাড়াচ্ছে বেনফিকা , এমনটাই খবর ।  

আহাস/ক্রী/০০৩