Download WordPress Themes, Happy Birthday Wishes

ত্রিশ বছরে এই প্রথম

ক্রীড়ালোক প্রতিবেদকঃ

ঘরের মাঠে তিন দশকের মধ্যে প্রথমবার অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে ওয়ানডে সিরিজ জিতেছে শ্রীলঙ্কা । সিরিজের চতুর্থ একদিনের ম্যাচে স্বাগতিকরা জয় পেয়েছে মাত্র চার রানে । আর এতেই পাঁচ ম্যাচ সিরিজে ৩-১ ব্যবধানে এগিয়ে গেছে লংকানরা । দুই দলের শেষ ম্যাচটি তাই স্রেফ আনুষ্ঠানিকতা হয়ে দাঁড়িয়েছে ।

মঙ্গলবার (২১ জুন) কলম্বোয় অনুষ্ঠিত ম্যাচে শ্রীলঙ্কা প্রথমে ব্যাট করে ৪৯ ওভারে ২৫৮ রানে অল আউট হয় । জবাবে পুরো ৫০ ওভারে অস্ট্রেলিয়া সব উইকেট হারিয়ে ২৫৪ রানে থামে ।

শ্রীলংকার ইনিংসে সেঞ্চুরি করেছেন চারিথ আশালাংকা । তিনি ১১০ রান করেছেন ১০৬ বলে । তার ব্যাট থেকে আসে ১০টি চার আর ১টি ছক্কা । এটি তার ক্যারিয়ারের প্রথম ওয়ানডে শতক । ম্যাচের সেরাও হয়েছেন তিনি ।

টস হেরে ব্যাট করতে নামা শ্রীলঙ্কা ৩৪ রানের মধ্যে ৩ উইকেট হারিয়ে বিপদে পড়ে যায় । তবে চতুর্থ উইকেটে ধনঞ্জয়া ডি সিলভাকে নিয়ে ১০১ রানের জুটি গড়েন আশালাংকা । ধনঞ্জয়া খেলেন ৬১ বলে সাতটি চারে সাজানো ৬০ রানের ইনিংস ।

শেষদিকে ওয়ানিন্দু হাসারাঙ্গা ২০ বলে অপরাজিত ২১ রানের ইনিংস খেলে দলকে আড়াইশো রানের গণ্ডি পার করান ।

অজিদের হয়ে ম্যাথিউ কুহনিম্যান, প্যাট কামিন্স ও মিচেল মার্শ ২টি করে উইকেট নেন।

জবাবে ব্যাট করতে নামা অস্ট্রেলিয়াও দারুণ ব্যাট করে , যদিও সিরিজে সমতা ফেরানো জয়ের দেখা পায় নি । ভাল শুরু করেও অজিরা শ্রীলংকার স্পিনের কাছে ধরাশায়ী হয়েছে। ডেভিড ওয়ার্নার শুরুতে দারুণ খেলেন। উদ্বোধনী এই ব্যাটসম্যান ৯৯ রানে স্ট্যাম্পড হন।

৩৫.৫ ওভারের সময় ৪ উইকেটে অস্ট্রেলিয়ার রান ছিল ১৮৯। জয়টা হাতের নাগালেই ছিল। কিন্তু এরপর মাত্র ৬৫ রানে শেষ ৬টি উইকেট হারায় তারা। অবস্থা আরও খারাপ হতে পারতো, যদি না প্যাট কামিন্স ৩৫ রানের ইনিংস না খেলতেন। আর কুহনিম্যান শেষ ওভারে ১৪ রান না নিতেন।

ওয়ার্নারের ৯৯ ও কামিন্সের ৩৫ রানের বাইরে ত্রাভিস হেড ২৭ ও মিচেল মার্শ ২৬ রান করেন। বল হাতে চামিকা করুণারত্নে, ধনঞ্জয়া ডি সিলভা ও জেফরি বন্দরসে ২টি করে উইকেট নেন।

ঘরের মাঠে সর্বশেষ ১৯৯২ সালে অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে কোনো দ্বিপাক্ষিক ওয়ানডে সিরিজ জিতেছিল শ্রীলঙ্কা। এরপর কেটে গেছে ৩০ বছর। এরমধ্যে দুই দল লঙ্কানদের মাটিতে মোটে তিনটি দ্বিপাক্ষিক ওয়ানডে সিরিজ খেলেছিল। যার সবগুলোতে সিরিজ জিতেছিল অস্ট্রেলিয়া । 

আহাস/ক্রী/০০৩