Download WordPress Themes, Happy Birthday Wishes

মেসি আছেন নেইমার নেই

আহসান হাবীব সুমন/ক্রীড়ালোকঃ

বুধবার (১৭ নভেম্বর) বাংলাদেশ সময় ভোর সাড়ে পাঁচটায় মুখোমুখি হচ্ছে বিশ্ব ফুটবলের সবচেয়ে বড় দুই প্রতিদ্বন্দ্বী ব্রাজিল এবং আর্জেন্টিনা । ল্যাটিন আমেরিকা অঞ্চলের বিশ্বকাপ বাছাইয়ের ম্যাচটি অনুষ্ঠিত হবে আর্জেন্টিনার স্যান জুয়ানে ।

ইতোমধ্যেই ল্যাটিন আমেরিকা থেকে সবার আগে কাতার বিশ্বকাপে খেলা নিশ্চিত করেছে ব্রাজিল । ইতোমধ্যেই ১২ ম্যাচ থেকে ৩৪ পয়েন্ট পাওয়া সেলেকাওরা কাতার বিশ্বকাপের টিকেট হাতে নিয়েই মুখোমুখি হবে আর্জেন্টিনার । অন্যদিকে আর্জেন্টিনার কাতার বিশ্বকাপে খেলাও কেবল সময়ের ব্যাপার । তারা পেয়েছে ১২ ম্যাচে ২৮ পয়েন্ট । ব্রাজিলের বিপক্ষে জয় পেলে আর পরবর্তী অবস্থানে থাকা ইকুয়েডর নিজ ম্যাচে হেরে গেলে , আর্জেন্টিনার জন্য বিশ্বকাপ নিশ্চিত হয়ে যেতে পারে । তবে ব্রাজিলের বিপক্ষে না জিতলেও পরবর্তী পাঁচ ম্যাচ থেকে আর্জেন্টিনা প্রত্যাশিত জয় তুলে নিলেই নিশ্চিত হয়ে যাবে কাতার বিশ্বকাপে অংশগ্রহণ ।

ব্রাজিল আর আর্জেন্টিনার পরের স্থানে থাকা ইকুয়েডর ১৩ ম্যাচে পেয়েছে ২০ পয়েন্ট । চিলি, কলম্বিয়া আর উরুগুয়ে পেয়েছে ১৩ ম্যাচে সমান ১৬ পয়েন্ট । অর্থাৎ ব্রাজিল আর আর্জেন্টিনার পর বিশ্বকাপ বাছাইয়ে পরবর্তী তিনটি স্থানের জন্য চলছে জোর লড়াই ।

ল্যাটিন আমেরিকা থেকে সরাসরি চারটি দল পাবে কাতারের টিকেট । পয়েন্ট টেবিলের পাঁচ নাম্বার দল পাবে আন্তঃমহাদেশীয় প্লে-অফে খেলার সুযোগ ।

আর্জেন্টিনা-ব্রাজিলের সুপার ক্লাসিকোয় দর্শকরা ‘মিস’ নেইমারের খেলা । উরুতে পুরনো ব্যাথা নতুন করে চাঙ্গা হয়ে উঠেছে । ফলে আর্জেন্টিনার বিপক্ষে মাঠে নামা হচ্ছে না নেইমারের ।

নেইমার না থাকলেও শুরু থেকে খেলবেন লিওনেল মেসি । গত দুই সপ্তাহের বেশী সময় ধরে তিনি ভুগছিলেন হ্যামস্ট্রিং ইনজুরিতে । যার জন্য খেলতে পারেন নি পিএসজির হয়ে দুইটি গুরুত্বপূর্ণ ম্যাচ । তবে বিশ্বকাপ বাছাইয়ে উরুগুয়ের বিপক্ষে সর্বশেষ ম্যাচে শেষ পনেরো মিনিটের জন্য মাঠে নেমেছিলেন আর্জেন্টিনার অধিনায়ক ।

ব্রাজিলের বিপক্ষে মেসি ফেরায় একাদশে নাও দেখা যেতে পারে পাওলো দিবালাকে। শঙ্কা আছে মিডফিল্ডার লেন্দ্রো পারদেসকে নিয়েও। গত মাসে পেরুর বিপক্ষে খেলার সময় পাওয়া উরুর চোট এখনো ভুগাচ্ছে তাকে। তাই উরুগুয়ের বিপক্ষেও খেলতে সমস্যা হয় তার। এই মিডফিল্ডারের জায়গায় গুইদো রদ্রিগেজকে একাদশে আনতে পারেন স্কালোনি।

অন্যদিকে ব্রাজিলের একাদশেও আসবে পরিবর্তন। নেইমার তো থাকছেন না । এছাড়া কার্ড নিষেধাজ্ঞার কারণে আর্জেন্টিনা ম্যাচে থাকতে পারছেন না কাসেমিরো। এই মিডফিল্ডারের জায়গা নিবেন ফাবিনিও। এছাড়া চাপ না থাকায় কোচ টিটে ম্যাচে আনতে পারেন আরও পরিবর্তন । গ্যাব্রিয়েল জেসুসের বদলে আক্রমণভাগে দেখা যেতে পারে ম্যাথিউস কুনাকে আর রক্ষণে অভিজ্ঞ থিয়াগো সিলভার জায়গা নিতে পারেন এডের মিলিতাও।

সর্বশেষ কোপা আমেরিকার ফাইনালে আর্জেন্টিনা ১-০ গোলে হারায় ব্রাজিলকে । জয় করে ২৮ বছর পর প্রথম কোন আন্তর্জাতিক শিরোপা । শুধু তাই না , কোচ লিওনেল স্কোলানির অধীনে দলটি অপরাজিত আছে ২৭ ম্যাচে । সব মিলিয়ে নিজেদের ঘরের মাঠে কিছুটা হলেও এগিয়ে থেকে মাঠে নামছে আর্জেন্টিনা ।

ব্রাজিলের বিশ্বকাপে সর্বশেষ দুই দেখায় জিতেছে আর্জেন্টিনা । অন্যদিকে ব্রাজিলের শেষ জয় চিরপ্রতিদ্বন্দ্বীদের বিপক্ষে ২০১৯ সালের কোপা আমেরিকার সেমি ফাইনালে । তবে দুই দেশের মুখোমুখি লড়াইয়ের পরিসংখ্যানে ব্রাজিল কিছুটা এগিয়ে আছে । সেলেকাওরা এখন পর্যন্ত আলবেসেলেস্তেদের বিপক্ষে জিতেছে ৪৬ ম্যাচ , হেরেছে ২১টি । আর ড্র হয়েছে ২৫ ম্যাচ ।

চলতি বিশ্বকাপ বাছাইয়েই ব্রাজিল বনাম আর্জেন্টিনার ম্যাচটি পরিত্যাক্ত হয়েছে । সাও পাওলোতে গত ৫ সেপ্টেম্বর খেলাও শুরু হয়েছিল । কিন্তু আর্জেন্টিনার চার খেলোয়াড়ের কোয়ারেন্টাইন ভাঙ্গার অভিযোগে ব্রাজিলের হেলথ রেগুলেটরি এজেন্সি (আনভিসা) খেলার মাঠে অভিযান চালায়। এরপর সেখানে ঘটে অনাহূত ঘটনা। তারপর বাধ্য হয়েই ম্যাচটি স্থগিত করেছে দক্ষিণ আমেরিকার ফুটবলের নিয়ন্ত্রক সংস্থা কনমেবল। অনাকাক্সিক্ষত ওই ঘটনার সূত্রপাত হয়েছিল ম্যাচের পঞ্চম মিনিটে। সাইড লাইনের পাশে অচেনা একজনকে দেখে আর্জেন্টিনার দুই খেলোয়াড় নিকোলাস ওটামেন্ডি ও মার্কোস আকুনা জিজ্ঞেস করেন আপনি কে? সঙ্গে সঙ্গে তাদের ঘিরে ধরেন অনেকে। মুহূর্তের মধ্যে হাতাহাতি হয়ে যায়। পরে দ্রুত এসে পরিস্থিতি সামাল দেয়ার চেষ্টা করেন আর্জেন্টাইন কোচ লিওনেল স্কোলানি ।

জানা যায়, সাইডলাইনে থাকা লোকটি ছিলেন ব্রাজিলের স্বাস্থ্য কর্মকর্তা। এমিলিয়ানো মার্টিনেজ, এমিলিয়ানো বুয়েন্দিয়া, জিওভান্নি লো সেলসো ও ক্রিশ্চিয়ান রোমেরো এই চার খেলোয়াড়ের বিরুদ্ধে কোয়ারেন্টাইন না মানার অভিযোগ উঠেছে। যে কারণে তাদের আটক করতে মাঠে উপস্থিত হন ব্রাজিলের স্বাস্থ্য বিভাগের কর্মকর্তা ও আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর সদস্যরা। ওই সময় আর্জেন্টিনার ফুটবলার ও ব্রাজিলের ওই কর্মকর্তাদের মধ্যে হাতাহাতির ঘটনা ঘটে। এরপর মাঠ ছেড়ে ড্রেসিংরুমে চলে যায় আর্জেন্টিনা দল। ঝামেলার পর ব্রাজিলিয়ান স্বাস্থ্য কর্মকর্তাদের সঙ্গে কথা বলতে দেখা যায় দুই দলের অধিনায়ক মেসি ও নেইমারকে। পরিস্থিতি সামাল দেয়ার চেষ্টা করতে দেখা যায় দুজনকে। তবুও ম্যাচটি বন্ধ করে দেয়া হয়। ওই ম্যাচের ভাগ্য এখনও ঝুলে থাকলেও ফিরতি লেগে মুখোমুখি হচ্ছে দুই জনপ্রিয় দেশ।

ব্রাজিল আর আর্জেন্টিনার ম্যাচ ভক্তদের কাছে কতটা প্রত্যাশিত , সেটা বোঝা গেছে ম্যাচের আগেই । সান জুয়ানে এই ম্যাচ দেখার টিকিট কাটতে দুই মাইল লম্বা লাইন দেখা গেছে। আর্জেন্টিনার সেই শহরের প্রায় সব হোটেলই পরিপূর্ণ। অর্থাৎ বিশ্বকাপ নিশ্চিত হলেও ব্রাজিলের সমর্থকরা প্রিয়-শত্রুকে হারাবার আশায় দলবেঁধে মাঠে আসা ছাড়ছেন না । আবার আর্জেন্টিনার স্বাগতিক সমর্থকরাও নিজ দেশের জয় দেখতে মাঠে ভরে আসছেন । সব মিলিয়ে স্যান জুয়ানে এই ম্যাচ ঘিরে সৃষ্টি হয়েছে উৎসবের আমেজ ।

আহাস/ক্রী/০০২