Download WordPress Themes, Happy Birthday Wishes

মাহমুদুল্লাহ হারাচ্ছেন অধিনায়কত্ব !

ক্রীড়ালোক প্রতিবেদকঃ

সংযুক্ত আরব আমিরাতে চলমান আইসিসি টি-টুয়েন্টি বিশ্বকাপ থেকে সবার আগে বিদায় নিয়েছে বাংলাদেশ । সুপার টুয়েলভ পর্বে টানা পাঁচ হারের তিক্ত স্বাদ নিয়ে ইতোমধ্যে নিজ ঠিকানায় ফিরেছে বাংলাদেশের জাতীয় ক্রিকেট দল ।

চলতি আইসিসি বিশ্বকাপে বাংলাদেশের পারফর্মেন্স নিয়ে চলছে তুমুল সমালোচনা । যেখানে সমালোচনার তোপে পড়েছেন টিম ম্যানেজমেন্ট থেকে শুরু করে দলের কোচ আর অধিনায়ক । আসরে মাহমুদুল্লাহ রিয়াদের অধিনায়কত্ব ছিল দৃষ্টিকটু ভুল সিদ্ধান্তে ভরা । সময়ের প্রয়োজনে খেলায় বোলিং চেঞ্জ কিংবা ফিল্ডিং সাজানোর ক্ষেত্রে তিনি দিতে পারেন নি বিচক্ষণতার প্রমাণ ।

অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে নিজেদের শেষ ম্যাচে আট উইকেটে হারের পর সংবাদ সম্মেলনে এসে দলনেতা মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ তার নেতৃত্বে ঘাটতির কথা অকপটে স্বীকার করেছেন। তিনি স্পষ্ট বলেছেন, ‘আমি চেষ্টা করেছি দলটিকে আগলে রাখার জন্য। দলের কাছ থেকে ভালো খেলা আদায় করে নেওয়ার চেষ্টা করেছি। হয়তো আমার নেতৃত্বে কিছু ঘাটতি ছিল।’

অধিনায়কত্ব ছাড়ার প্রশ্নেও মাহমুদুল্লাহ বলেছেন , বোর্ড চাইলে যে কোন সময় দায়িত্ব ছাড়তে প্রস্তুত তিনি । এমনকি প্রস্তুত টি-টুয়েন্টি থেকে অবসর নিতেও !

এদিকে বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের (বিসিবি) সভাপতি নাজমুল হাসান পাপনও চাইছেন টি-টুয়েন্টি দলের অধিনায়ক বদল করতে । তিনি পরবর্তী অধিনায়ক হিসেবে তামিম ইকবালের নাম প্রস্তাব করেছেন ।

তামিম ইকবাল সর্বশেষ টি-টুয়েন্টি বিশ্বকাপে ছিলেন না । তিনি ফিরছেন নভেম্বরে পাকিস্তানের বিপক্ষে ঘরের মাঠে সিরিজ দিয়ে । ইতোমধ্যে বিসিবি’র তরফ থেকে তামিমকে টি-টুয়েন্টি অধিনায়ক হওয়ার প্রস্তাব দেয়া হয়েছে । তবে পাকিস্তানের বিপক্ষে সিরিজে নয় , ২০২২ সালের প্রথম থেকে তামিমের কাঁধে চাপিয়ে দেয়া হতে পারে টি-টুয়েন্টি অধিনায়কের দায়িত্ব ।

বাংলাদেশের হয়ে তামিম সবশেষ টি-টোয়েন্টি খেলেছেন গত বছরের মার্চে, জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে। এরপর বাংলাদেশ ২৫টি টি-টোয়েন্টি খেললেও তামিম ছিলেন না । শোনা যাচ্ছে , কোচ রাসেল ডোমিঙ্গোর টি-টুয়েন্টি ভাবনায় তামিম নেই ! তামিমের চেয়ে লিটন দাস আর নাইমের উপরেই বেশী ভরসা ছিল বাংলাদেশের দক্ষিণ আফ্রিকান কোচের । তবে সর্বশেষ বিশ্বকাপ সব হিসেব বদলে দিয়েছে ।

ওয়ানডে ক্রিকেটে বাংলাদেশ তামিমের নেতৃত্বে ১২ ম্যাচে পেয়েছে ৮টি জয় । সবকিছু ঠিকঠাক থাকলে তার নেতৃত্বে ২০২৩ বিশ্বকাপও খেলতে পারে বাংলাদেশ। দীর্ঘ মেয়াদে ওয়ানডে অধিনায়কত্ব পাওয়ার পাশাপাশি তাকে টি-টোয়েন্টির দায়িত্ব দেওয়া হচ্ছে।

আহাস/ক্রী/০০৩