Download WordPress Themes, Happy Birthday Wishes

নিজের মাঠে বার্সেলোনার ‘ডাকাতি’ !

ক্রীড়ালোক প্রতিবেদকঃ

আবারও নিজের মাঠে জয় পেয়েছে বার্সেলোনা । গোল পেয়েছেন লিওনেল মেসি । সেটাও রেফারির দেয়া হাস্যকর এক পেনাল্টি সিদ্ধান্তে ।যাকে চুরি নয় , বলা চলে রীতিমত ‘ডাকাতি’ । কিন্তু তাতে কি , চুরি করা জয়ে বার্সেলোনা আপাতত ঠিকই উঠে গেছে স্প্যানিশ লা লীগার পয়েন্ট টেবিলের শীর্ষে ।

শনিবার (৭ মার্চ) নিজেদের মাঠ ন্যু ক্যাম্পে বার্সেলোনা ১-০ গোলের হারিয়েছে রিয়েল সোসিদাদকে । দারুণ বিতর্কিত এই জয়ে ২৭ ম্যাচে ৫৮ পয়েন্ট পাওয়া বার্সেলোনা উঠে এসেছে লীগ টেবিলের শীর্ষে । অন্যদিকে এক ম্যাচ কম খেলা রিয়েল মাদ্রিদ ৫৬ পয়েন্ট নিয়ে আছে দুইয়ে ।

পুরো ম্যাচে প্রতিপক্ষের মাঠে সমানে সমান খেলেছে সোসিদাদ । বরং প্রথমার্ধে সোসিদাদ বেশ কয়েকবার আতংক ছড়িয়েছে বার্সার রক্ষণে । কিন্তু কার্যকর গোলদাতার অভাবে অতিথিরা পায় নি গোলের দেখা ।

অন্যদিকে এই ম্যাচেও ছন্নছাড়া ফুটবল খেলে গেছে কুইকে স্যাতিয়েনের শিষ্যরা । বলের দখলেও আগের ম্যাচগুলোর মত বার্সেলোনার আধিপত্য দেখা যায় নি । দুই দলের বলের দখল ছিল ৫৫-৪৫ ভাগ ।

বার্সেলোনাকে তাদের মাঠেই ৮০ মিনিট পর্যন্ত ঠেকিয়ে দিয়েছিল সোসিদাদ । খেলার ধরণ অনুযায়ী সোসিদাদের এক পয়েন্ট পাওয়া অনেকটাই অবধারিত ছিল । কিন্তু বার্সার এই বিপদে এগিয়ে আসেন রেফারি । ৮১ মিনিটে এমন এক পেনাল্টি তিনি উপহার দেন , যা দেখে হয়ত বার্সার কট্টর সমর্থকরা পর্যন্ত লজ্জা পাবে ।

৮১ মিনিটে বদলি হিসেবে নামা আর্তুরো ভিদাল বাম প্রান্ত থেকে ক্রস করেছিলেন বক্সের ভেতর। রবিন লি নরমান্দ বল ক্লিয়ারও করেছিলেন। কিন্তু সবাইকে অবাক করে দিয়ে কোন আবেদন ছাড়াই ভিএআরের পরামর্শে রেফারি মাঠের বাইরে রিপ্লে দেখে সিদ্ধান্ত বদলেছেন। নরমান্দ বল ক্লিয়ার করার জন্য লাফিয়ে উঠে হেড করতে চাইলেও বল লেগেছিল তার কাঁধের একটু নীচে । কিন্তু বার্সাকে জেতানোর  এইটুকু সুযোগ নষ্ট করতে চান নি রেফারি । করেনও নি । সোজা বাজিয়ে দেন পেনাল্টির বাঁশি ।

সেই পেনাল্টি থেকে মেসি করেন চলতি লীগে নিজের ১৯তম গোল । যার মধ্যে ১৬টি তিনি করলেন নিজের মাঠে । অর্থাৎ ঘরের মাঠে ‘বাঘ’ মেসি ফের গোলের দেখা পেয়েছেন রেফারির বদান্যতায় , সেটাও নুই ক্যাম্পের পরিচিত পরিবেশে ।

মেসি দুই সপ্তাহ আগে সর্বশেষ ঘরের মাঠেই এইবারের বিপক্ষে করেছিলেন চার গোল । মাঝে প্রতিপক্ষের মাঠে ন্যাপলি আর রিয়েল মাদ্রিদের বিপক্ষে ছিলেন গোলশূন্য । নিজের মাঠে ফিরে আবারও জালের দেখা পেয়েছেন সাম্প্রতিক সময়ে দারুণ সমালোচনায় থাকা আর্জেন্টিনার ফুটবলার ।

নিজের মাঠে খেলা হলেও মেসিকে চেনা যায় নি । বরং দিন দিন হতাশায় মুষড়ে পড়ছেন তিনি , সেটা বোঝা যাচ্ছে তার আচরণে । রেফারি আর প্রতিপক্ষের খেলোয়াড়দের সাথে তার ‘গরম মেজাজ’ দেখা গেছে কয়েকবার । ৪১ মিনিটে সোসিয়েদাদের মিকেল মেরিনোকে মারাত্মক এক ফাউল করেছিলেন মেসি। ভাগ্য বিপক্ষে গেলে দেখতে পারতেন সরাসরি লাল কার্ডও। তবে হলুদ কার্ড দেখে সে যাত্রা বেঁচে যান মেসি।

এক মিনিট আগেই বক্সের মধ্যে প্রায় ফাঁকায় বল পেয়েও বাইরে মেরেছেন মেসি ।

তবে ম্যাচের একমাত্র গোল করে একটি নতুন রেকর্ড গড়েছেন মেসি । ইউরোপের শীর্ষ ৫ লিগের ইতিহাসে এখন সর্বোচ্চ গোলদাতা বার্সেলোনার অধিনায়ক। ৪৩৮ গোল তার, আর দ্বিতীয় স্থানে থাকা ৪৩৭ গোল ক্রিস্টিয়ানো রোনালদোর।

আহাস/ক্রী/০০১