Download WordPress Themes, Happy Birthday Wishes

দারুণ সব চমকে ব্রাজিলের স্কোয়াড ঘোষণা

ক্রীড়ালোক প্রতিবেদকঃ

২০২২ সালের বিশ্বকাপ বাছাইয়ে মাঠে নমতে চলেছে ব্রাজিল । বলিভিয়া আর পেরুর বিপক্ষে ম্যাচ দিয়ে শুরু হচ্ছে ব্রাজিলের কাতার বিশ্বকাপের মিশন ।

শুক্রবার (৬ মার্চ) আসন্ন দুইটি বিশ্বকাপ ম্যাচের জন্য নিজেদের স্কোয়াড ঘোষণা করেছেন ব্রাজিলিয়ান কোচ টিটে । ব্রাজিলের সবচেয়ে বড় তারকা নেইমার জুনিয়রকে রেখেছেন টিটে । তবে বাদ দিয়েছেন এই মুহূর্তে বিশ্বের সেরা গোলরক্ষক অ্যালিসন বেকারকে ।

চলতি মার্চেই শুরু হচ্ছে ২০২২ সালের বিশ্বকাপের বাছাই পর্ব । আগামী ২৮ মার্চ ব্রাজিল তাদের প্রথম ম্যাচ খেলবে বলিভিয়ার বিপক্ষে । আর ১ এপ্রিল সেলেকাওদের ম্যাচ পেরুর বিপক্ষে ।

অ্যালিসনকে ইনজুরির কারণে দলে নিতে পারেন নি টিটে । লিভারপুলের এই কিপার কোমরের ইনজুরিতে ভুগছেন । যদিও অল রেড কোচ ইউর্গেন ক্লপস জানিয়েছেন , অ্যালিসনের চোট খুব গুরুতর না । কিন্তু তবু তাকে নিয়ে কোন ঝুঁকি নেবে না লিভারপুল । একই কারণে ঝুঁকিতে যাচ্ছেন না ব্রাজিল কোচ টিটেও ।

অ্যালিসনের চোটের সুবাদে ম্যানচেস্টার সিটির এডারসন সুযোগ পাচ্ছেন ব্রাজিলের পোস্ট সামলাবার ।

সময়ের আলোচিত দুই তারকা রিয়েল মাদ্রিদের ভিনিসিয়াস জুনিয়র আর রড্রিগোকে ২৩ সদস্যের স্কোয়াডে ডাকেন নি টিটে । যদিও রিয়েল মাদ্রিদে দুই খেলোয়াড়ই এখন বেশ আলোচিত । কিন্তু তবু টিটে তাদের ডাকেন নি । 

এছাড়া লা  কার্ডের খাঁড়ায়  এক ম্যাচ আন্তর্জাতিক নিষেধাজ্ঞায় থাকা  গ্যাব্রিয়েল জেসুসকে দলে রেখেছেন টিটে । যদিও তিনি প্রথম ম্যাচে বলিভিয়ার বিপক্ষে সাইড লাইনে বসেই খেলা দেখবেন । 

ল্যাটিন আমেরিকার সেরা আসর ‘কোপা লিবাটেরোস’  জয়ী ফ্লেমিঙ্গোর তিন ফুটবলারকে দলে নিয়েছেনট টিটে । তারা হচ্ছেন মিডফিল্ডার এভারটন রেভেইরো আর দুই ফরোয়ার্ড ব্রুনো হেনরিক্স আর গ্যাব্রিয়েল বারবোসা ।  ইতোমধ্যেই  গ্যাব্রিয়েল  বারবোসাকে সবাই ‘গ্যাবি-গোল’ বলে ডাকতে শুরু করেছেন  । ২০১৯ সালে সব মিলিয়ে ৫৯ ম্যাচে ৪৩ গোল করেছেন ২৩ বছর বয়সী ফরোয়ার্ড । চলতি বছর তিনি এখন পর্যন্ত  করেছেন সাত ম্যাচে নয়টি গোল । দুইদিন আগেই ঘরোয়া ফুটবলে ক্লাবের হয়ে মারাকানা স্টেডিয়ামে করেছেন হ্যাট্রিক । ক্লাব ক্যারিয়ারে এখন পর্যন্ত ২৯২ ম্যাচে ১৩৮ গোল করেছেন তিনি । গত দুই মৌসুমে ব্রাজিলিয়ান  লীগের সেরা  গোলদাতা ছিলেন বারবোসা । 

ব্রাজিল স্কোয়াড-

গোলরক্ষক : ওয়েভারটন (পালমেইরাস), এডারসন (ম্যান সিটি), ইভান (পোন্তে প্রেতা)

ডিফেন্ডার : দানি আলভেজ (সাও পাওলো), দানিলো (জুভেন্তাস), রেনান লোদি (অ্যাতলেটিকো মাদ্রিদ), অ্যালেক্স সান্দ্রো (জুভেন্তাস), মার্কুইনোস (পিএসজি), ফেলিপে লুইস (অ্যাতলেটিকো মাদ্রিদ), এডার মিলিতাও (পোর্তো), থিয়াগো সিলভা (পিএসজি)।

মিডফিল্ডার : আর্থার মেলো (বার্সেলোনা), ক্যাসেমিরো (রিয়াল মাদ্রিদ), ব্রুনো গুইমারেস (লিঁও) , ফিলিপে কৌতিনহো (বায়ার্ন মিউনিখ), ফ্যাবিনহো (লিভারপুল), এভারটন রিবেইরো (ফ্লামেঙ্গো)

ফরোয়ার্ড : নেইমার (পিএসজি), গ্যাব্রিয়েল জেসুস (ম্যানসিটি), রবার্তো ফিরমিনো (লিভারপুল), গ্যাব্রিয়েল বারবোসা (ফ্লামেঙ্গো), এভারটন (গ্রেমিও), রিচার্লিসন (এভারটন), ব্রুনো হেনরিক (ফ্লামেঙ্গো)।

আহাস/ক্রী/০০৪