Download WordPress Themes, Happy Birthday Wishes

ফাঁকা মাঠে গোল দিতে পারছেন না সালাহউদ্দিন

ক্রীড়ালোক প্রতিবেদকঃ

আর মাস তিনেক পরেই অনুষ্ঠিত হবে বাংলাদেশ ফুটবল ফেডারেশনের (বাফুফে) নির্বাচন । আর সেই নির্বাচনে বাফুফে’র সভাপতি পদে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করতে দেখা যাবে দেশের দুই ফুটবল লিজেন্ড কাজী সালাহউদ্দিন আর বাদল রায়কে । বাংলাদেশের ফুটবলের সর্বোচ্চ আসন পেতে দুই সাবেক সুপারস্টারের লড়াইয়ের ঘোষণা নতুন করে সৃষ্টি করেছে চাঞ্চল্যের ।

আগামী এপ্রিলে অনুষ্ঠিত হবে বাফুফে’র পরবর্তী নির্বাচন । যেখানে নির্বাচন করবেন গত তিনবারের বিজয়ী কাজী সালহউদ্দিন । এদিকে আসন্ন নির্বাচনে সালাহউদ্দিনের বিপক্ষে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করার কথা ছিল বাংলাদেশ জেলা ও বিভাগীয় ফুটবল অ্যাসোসিয়েশনের মহাসচিব তরফদার মোঃ রুহুল আমিনের । গত দুই বছরের বেশী সময় ধরে এই নির্বাচন নিয়ে ব্যাপক প্রচারণাও চালিয়েছেন তরফদার । কিন্তু দিন তিনেক আগে আচমকাই বাফুফে নির্বাচন থেকে নিজেকে সরিয়ে নেয়ার ঘোষণা দেন সাইফ পাওয়ার-টেকের কর্ণধার তরফদার রুহুল আমিন ।

সাম্প্রতিক সময়ে আলোচিত ফুটবল সংগঠক তরফদার রুহুল আমিনের নির্বাচন থেকে সরে দাঁড়াবার ঘোষণায় বিস্মিত হয়েছিল সবাই । ধারণা করা হচ্ছিলো , বর্তমান বাফুফে সভাপতি কাজী সালাহউদ্দিন বিনা চ্যালেঞ্জেই জিতে যাচ্ছেন পুরনো পদে ।

কিন্তু সেটা আর হচ্ছে না । বাফুফে’র বর্তমান সহসভাপতি বাদল রায় সভাপতি পদে লড়াইয়ের ঘোষণা দিয়েছেন। বৃহস্পতিবার (২০ ফেব্রুয়ারি) মোহামেডান স্পোর্টিং ক্লাবে সংবাদ সম্মেলন করে এই ঘোষণা দেন বাংলাদেশের জাতীয় ফুটবল দলের সাবেক ফুটবলার বাদল রায় ।

বাদল রায় বলেন , ‘ আর কেউ না দাঁড়ালে আমিই বাফুফে’র সভাপতি পদে লড়ব । ‘

তিনি বলেন , ‘ সালাহউদ্দিন বড় তারকা হতে পারেন , কিন্তু তার সাংগঠনিক ক্ষমতা নেই । আমরা ৩৮০ উপ‌জেলায় হা‌ন্টিং করলাম। প‌রিকল্পনা নিলাম। বহুবার বস‌তে ব‌লে‌ছি সালাউ‌দ্দিন ভাই‌কে। একা‌ডে‌মি আমার প্রস্তাব ছিল। তৈরিও করেছিলাম। দুঃখ লাগে, সেটা হারালাম। সি‌লে‌টে অ-১৬ দল চ্যা‌ম্পিয়ন হলো। সবাই পরে ‌হারি‌য়ে গেল। ‘

তরফদার রুহুল আমিনের নির্বাচন থেকে সরে যাওয়া প্রসঙ্গে বাদল রায় জানান , ‘ তরফদার রুহুল আমিন সাহেব সরে যাওয়ার পেছনে সালাহউদ্দিন ভাই দায়ী । ‘

বাদল রায় আরও জানিয়েছেন , ‘ তরফদার রুহুল আমিন শেখ কামালকে স্মরণ করেছেন । শেখ কামালের নামে টুর্নামেন্ট করতে এগিয়ে এসেছেন । সালাহউ‌দ্দিন সা‌হেব‌কে কখনও শেখ কামা‌লের নাম নি‌তে শু‌নিনি। উ‌নি না‌কি কামালের বন্ধু ! ‘

মোহামেডানের সাবেক অধিনায়ক জানান , ‘ ‘ব্যক্তিগত কারণ দেখিয়ে তরফদার রুহুল আমিন সাহেব সরে গেছেন। আমি তো মরি নাই। আমাদের মাতৃসম প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা যাকে আমি মায়ের আসনে বহু আগেই বসিয়েছি; ওনি আমাকে পূনর্জন্ম দিয়েছেন। যতদিন বেঁচে থাকব অনিয়ম, দুর্নীতির বিরুদ্ধে কথা বলে যাব । ’

বাদল রায় বলেছেন , ‘ ফুটব‌লের সংকট চল‌ছে, সবাই বল‌ছে আমা‌কে সাম‌নে আসতে। সালাউদ্দিন সাহেব চাপ দিয়ে তরফদারকে সরিয়েছেন। এটা সবাইকে বিস্মিত করেছে । কিন্তু সবার ম‌তো আ‌মিও চাই নতুন নেতৃত্ব আসুক। আসুন সব‌াই মি‌লে একজন‌কে নি‌য়ে আ‌সি। আশা করি, কেউ না কেউ দাঁড়া‌বে। সভাপ‌তি প‌দে নতুন কেউ প্রার্থী না হলে আমি নি‌জেই প্রার্থী হবো।’

আহাস/ক্রী/০১০