Download WordPress Themes, Happy Birthday Wishes

ন্যাপলির মাঠে বার্সেলোনার ভরাডুবি !

ক্রীড়ালোক প্রতিবেদকঃ

উইয়েফা চ্যাম্পিয়ন্স লীগের নক আউট পর্বে ন্যাপলির মুখোমুখি হতে চলেছে বার্সেলোনা । আসরের অন্যতম ফেভারিট দল বার্সেলোনা প্রথম লেগের ম্যাচটি খেলবে ন্যাপলির মাঠ স্যান পাওলপ স্টেডিয়ামে । মঙ্গলবার (২৫ ফেব্রুয়ারি) বাংলাদেশ সময় রাত দুইটায় শুরু হবে ম্যাচটি ।

ন্যাপলির বিপক্ষে মাঠে নামার আগে বার্সেলোনা শিবিরে খানিকটা হলেও স্বস্তির বাতাস বইছে । চলতি বছরের শুরু থেকে খাপছাড়া ফুটবল খেলা বার্সেলোনা সর্বশেষ লীগ ম্যাচে এইবারকে হারিয়েছে ৫-০ গোলে । টানা চার ম্যাচে গোল না পাওয়া লিওনেল মেসি একাই এইবারের বিপক্ষে করেছেন চার গোল । সেই সাথে বার্সেলোনাও উঠে এসেছে লা লীগার পয়েন্ট টেবিলের এক নাম্বারে । অবশ্য লেভান্তের কাছে রিয়েল মাদ্রিদ না হারলে বার্সার শীর্ষে ওঠা হত না । কিন্তু তারপরেও এইবারের বিপক্ষে বড় জয় নিশ্চিতভাবেই বার্সার শিবিরে বাড়তি অক্সিজেন জোগাবে ।

অন্যদিকে বার্সেলোনার প্রতিপক্ষ ন্যাপলি নেই ইটালিয়ান সিরি ‘এ’ শিরোপা দৌড়ে । তারা আছে লীগ টেবিলের ষষ্ঠ স্থানে । তবে শেষ লীগ ম্যাচে ব্রেসিয়ার মাঠে ২-১ গোলে জিতেছে ন্যাপলসের দলটি । তার আগে ক্যালিয়ারির বিপক্ষে জিতেছে ১-০ গোলে । আবার তার আগেই ইন্টারের মাঠে কোপা ইটালিয়ার সেমি ফাইনালের প্রথম লেগে জিতে ফিরেছে ন্যাপলি । সব মিলিয়ে শেষ তিন ম্যাচে টানা জয়ে জেনারো গাটুসোর শিষ্যরাও আছে আত্মবিশ্বাসের তুঙ্গে । এছাড়া সর্বশেষ সব প্রতিযোগিতা মিলিয়ে সাত ম্যাচের ছয়টিতেই জিতেছে ক্লাবটি ।

ন্যাপলি দলে আছে বেলজিয়ামের ড্রাইস মার্টিন্স , ইটালির লরেঞ্জো ইন্সিগনের মত ফরোয়ার্ড । গোল লাইনে আছে কলম্বিয়া জাতীয় দলের কিপার ডেভিড অসপিনার মত তারকা । ডিফেন্সটাও পর্তুগালের মারিও রুই , সার্বিয়ার মাসিমোভিচ আর ইটালির জিওভানি ডি লরেঞ্জোর মত নির্ভরযোগ্য খেলোয়াড় । যারা প্রত্যেকেই নিজ দেশের জাতীয় দলের প্রতিনিধি । এই দলের বিরুদ্ধে বার্সেলোনার ফরোয়ার্ডদের পক্ষে গোল পেতে বেশ খানিকটা সমস্যা হওয়ারই কথা ।

যদিও ন্যাপলির জন্য চ্যাম্পিয়ন্স লীগের ইতিহাস খুব ভাল না । এই পর্যন্ত তিনবার খেলে কখনই নক আউট পর্বের বাঁধা পেরুতে পারে নি । আর গত এক যুগে বার্সেলোনা কখনও সেরা ষোল থেকে বিদায় হয় নি । শিরোপা জিতেছে পাঁচবার । সর্বশেষ ২০০৬-০৭ মৌসুমে অ্যাওয়ে গোলের হিসেবে লিভারপুলের কাছে হেরে সেরা ষোল পর্ব থেকে বাদ পড়েছিল কাটালানরা ।

তবে ২০০৬ সালেই বার্সেলোনা সর্বশেষ জিতেছিল ইটালির মাঠে এসি মিলানের বিপক্ষে ১-০ গোলে । সেই ম্যাচে আবার মিলানের হয়ে খেলেছিলেন বর্তমান ন্যাপলি কোচ গাটুসো । তবে ইউরোপিয়ান কোন প্রতিযোগিতায় আজ পর্যন্ত ন্যাপলির মুখোমুখি হয় নি ন্যাপলি ।

আজকের ম্যাচে বার্সেলোনার মূল ভরসা অবশ্যই মেসি । বার্সার অধিনায়ক এই মুহূর্তে আছেন বেশ অস্বস্তিতে । লুইস সুয়ারেজ আর উসমান ডেম্বেলের অনুপস্থিতিতে তিনি এখন বড় একা । রাইট উইঙ্গে নিজে খেলছেন , বামে আছেন আনসু ফাতিহ । আর ফরোয়ার্ড হিসেবে এন্থইন গ্রিজম্যান । তবে গ্রিজম্যান আর ফাতিহর সাথে মেসির সেই তালমিল গড়ে ওঠে নি লম্বা সময়েও । রেজিস্ট্রেশন না হওয়ায় ন্যাপলির বিপক্ষে খেলতে পারছেন না ডেনমার্কের নতুন ফরোয়ার্ড মার্টিন ব্রেটওয়েট ।

আজ ন্যাপলির বিপক্ষে মাঠে নামতে পারছেন না ইনজুরিতে থাকা সার্জিও রবার্টো । ফলে নেলসন সেমেদো , জেরাড পিকে ক্লেমেন্ট লেংলেট আর জুনিয়র ফিরপোদের জন্য এই ম্যাচ হতে চলেছে কঠিন পরীক্ষা । এমনিতেই ঘরের বাইরে যে কোন মাঠে আজকাল ভুগতে হচ্ছে বার্সেলোনাকে । চলতি বছরেই ঘরের বাইরে তিন ম্যাচে হেরেছে বার্সেলোনা । হেরেছে দেশের বাইরে সৌদি আরবে অ্যাথলেটিকো মাদ্রিদের বিপক্ষে । তাই ন্যাপলির মাঠে বার্সেলোনা কেমন করে , সেটা দেখার অপেক্ষায় এখন ।

যদিও বার্সার অধিনায়ইক মেসি জানিয়ে রেখেছেন , চলতি মৌসুমে চ্যাম্পিয়ন্স লীগ জয়ের মত অবস্থায় নেই তার দল । তিনি নিজেই বিশ্বাস করছেন না , বার্সেলোনা চ্যাম্পিয়ন্স লীগ জিতবে ।

আহাস/ক্রী/০০২