Download WordPress Themes, Happy Birthday Wishes

দুই টাইগারকে নিয়ে বিশ্বকাপের সেরা একাদশ ঘোষণা

ক্রীড়ালোক প্রতিবেদকঃ

ইতিহাস গড়ে আইসিসি অনূর্ধ্ব-১৯ ওয়ানডে বিশ্বকাপের শিরোপা জিতেছে বাংলাদশ । রবিবার (৯ ফেব্রুয়ারি) পচেফস্ট্রমে অনুষ্ঠিত রুদ্ধশ্বাস ফাইনালে বাংলাদেশ তিন উইকেটে হারিয়েছে চারবারের যুববিশ্বকাপ চ্যাম্পিয়ন ভারতকে । সেই সাথে নিজেদের ইতিহাসে প্রথমবারের মত জয় করে নিয়েছে আইসিসি আয়োজিত কোন টুর্নামেন্ট ।

দক্ষিণ আফ্রিকার মাটিতে বাংলাদেশের চূড়ান্ত সাফল্যের মধ্য দিয়ে শেষ হয়েছে আইসিসি যুব বিশ্বকাপ টুর্নামেন্ট । আসর শেষ হবার জনপ্রিয় ক্রিকেট ওয়েবসাইট ‘ক্রিকবাজ’ ঘোষণা করেছে আসরের সেরা একাদশ । যেখানে চ্যাম্পিয়ন বাংলাদেশ থেকে সুযোগ পেয়েছেন আকবর আলী আর রকিবুল হাসান । এছাড়া রানার্স-আপ ভারতের আছেন তিনজন । এছাড়া স্বাগতিক দক্ষিণ আফ্রিকা , নিউজিল্যান্ড , পাকিস্তান , আফগানিস্তান , জিম্বাবুয়ে আর ক্যানাডা থেকে সুযোগ মিলেছে একজন করে ক্রিকেটারের ।

ক্রিক-বাজের স্কোয়াডঃ

যশস্বী জশওয়াল-

সদ্য শেষ হওয়া যুব বিশ্বকাপের সেরা ব্যাটসম্যান ছিলেন ভারতীয় ওপেনার যশস্বী । গোটা আসরে ছয় ম্যাচে একটি শতকের সাথে চারটি হাফসেঞ্চুরি হাঁকিয়েছেন তিনি । করেছেন ১৩৩.৩৭ গড়ে পুরো ৪০০ রান । সেমি ফাইনালে পাকিস্তানের বিপক্ষে শতকের পর ফাইনালেও করেছেন ৮৮ রান ।

শুধু বিশ্বকাপ আসরেই না , ১৮ বছর বয়সী মুম্বাই ক্রিকেটার যশস্বী ইতোমধ্যেই নিজেকে ভারতের ভবিষ্যৎ তারকা হিসেবে প্রতিষ্ঠিত করতে শুরু করেছেন । ইতোমধ্যেই লিস্ট ‘এ’ ক্রিকেটে ডাবল সেঞ্চুরি করা যশস্বীকেই বিশ্বকাপের সেরা একাদশের ওপেনার হিসেবে রাখা হয়েছে ।

ইব্রাহিম জার্দান-

বিশ্বকাপের সেরা একাদশে যশস্বীর ওপেনিং পার্টনার হিসেবে থাকছেন আফগানিস্তানের ইব্রাহিম জার্দান । ইতোমধ্যেই দেশের মূল জাতীয় দলের হয়ে দুইটি টেস্ট , একটি ওয়ানডে আর তিনটি টি-২০ আন্তর্জাতিক ম্যাচ খেলেছেন ইব্রাহিম । গত সেপ্টেম্বরে চট্টগ্রামে বাংলাদেশের বিপক্ষে টেস্ট অভিষেক হয় তার । আর বাকী ম্যাচ খেলেছেন ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে ।

দক্ষিণ আফ্রিকায় অনুষ্ঠিত যুব বিশ্বকাপে ইব্রাহিম পাঁচ ম্যাচে করেছেন ২৪০ রান । সর্বোচ্চ করেছেন ৫২ বলে ৮৭ রান । সেটাও প্রথম ম্যাচে দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষে । এরপর দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষেই স্থান নির্ধারণী ম্যাচে করেছেন ৭৩ রান ।

রবীন্দ্র রাশান্থা-

আসরের দ্বিতীয় সর্বোচ্চ ২৮৬ রান করেছেন শ্রীলঙ্কার ক্রিকেটার রাশান্থা । ১৮ বছর বয়সী এই টপ অর্ডার ৭১.৫০ গড়ে হাঁকিয়েছেন একটি সেঞ্চুরি আর একটি হাফসেঞ্চুরি । নাইজেরিয়ার বিপক্ষে প্লেট কোয়ার্টার ফাইনালে তিনি করেছেন ১০২ রান । এছাড়া প্লেট ফাইনালে ইংল্যান্ডের বিপক্ষে তার ব্যাট থেকে আসে ৬৬ রান ।

ওয়ান ডাউনে রাশান্থাকে রেখেছে ক্রিক-বাজ ।

ব্রেইস পারসন্স-

নিজেদের মাটিতে অনুষ্ঠিত যুব বিশ্বকাপে দারুণ হতাশ করেছে দক্ষিণ আফ্রিকা । কোয়ার্টার ফাইনালে বাংলাদেশের কাছে হেরে শেষ হয় স্বাগতিকদের শিরোপা জয়ের স্বপ্ন । পরবর্তীতে স্থান নির্ধারণী ম্যাচে আফগানিস্তানের কাছে হেরে অষ্টম স্থান নিয়েই সন্তুষ্ট থাকে প্রোটিয়া যুব দল । কিন্তু এই দলের অধিনায়ক ব্রেইস পারসন্স সবার নজর কেড়েছেন । করেছেন ছয় ম্যাচে ২৬৫ রান । একটি সেঞ্চুরিও ছিল তার , সাথে পাঁচ উইকেট । ফলে বিশ্বকাপের সেরা একাদশে ঠিকই নিজের জায়গা করে নিয়েছেন তিনি ।

ইমানুয়েল বাওয়া-

ছয় ম্যাচে একটি সেঞ্চুরি আর একটি হফসেঞ্চুরির সাথে ২৩৯ রান জিম্বাবুয়ের ইমানুয়েল আছেন সেরা একাদশে ।

বেকহ্যাম হুইলার-গ্রিনল-

সেমি থেকে বিদায় নেয়া নিউজিল্যান্ডের হয়ে পাঁচ ম্যাচে ১৮৬ রান করেছেন হুইলার । আসরে তার আছে দুইটি ফিফটি ।

আকবর আলী-

বাংলাদেশের ফাইনাল জয়ের নায়ক আকবর আলীকে রাখা হয়েছে যুব বিশ্বকাপের সেরা একাদশে উইকেট কিপারের ভূমিকায় । পুরো আসরে আকবর নিজেকে প্রমাণের তেমন সুযোগ পান নি । কিন্তু ফাইনালে দারুণ চাপের মুখে করেন অপরাজিত ৪৩ রান । ম্যাচের সেরাও হয়েছেন তিনি ।

সেরা স্কোয়াডে জায়গা পাওয়ার জন্য আকবরকে ক্যানাডার উইকেট কিপার নিকোলাস মনোহরের সাথে লড়তে হয়েছে । নিকোলাস একটি সেঞ্চুরিও করেছেন টুর্নামেন্টে । কিন্তু ফাইনালে আকবরের দৃঢ়তার কাছে হেরে গেছেন তিনি ।

অখিল কুমার –

ক্যানাডার পেসার পেয়েছেন ২০২০ সালের যুব বিশ্বকাপের দ্বিতীয় সর্বোচ্চ উইকেট । আসরের পাঁচ ম্যাচে তার উইকেটের সংখ্যা ১৬টি । জাপানের বিপক্ষে ৪৬ রানে নিয়েছেন ছয়টি উইকেট । এছাড়া সংযুক্ত আরব আমিরাত আর জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে নিয়েছেন তিনটি করে উইকেট ।

রবি বিষ্ণয়ী –

রাজস্থানের ১৯ বছর বয়সী লেগ স্পিনার রবি ছিলেন আসরের সর্বোচ্চ উইকেট শিকারি । ছয় ম্যাচের প্রতিটাতেই অন অন্তত একটি উইকেট পেয়েছেন তিনি । আসরে তার উইকেটের সংখ্যা ১৭টি । জাপানের বিপক্ষে আট ওভারে পাঁচ রান দিয়েন চার উইকেট ।

কোয়ার্টার ফাইনালে অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে ব্যাট হাতে ৩০ রান করে রবি প্রমাণ দিয়েছেন অল রাউন্ড দক্ষতার ।

রকিবুল হাসান –

ছয় ম্যাচে ১২ উইকেট নিয়ে বাংলাদেশের সেরা বোলার ছিলেন রকিবুল । দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষে কোয়ার্টার ফাইনালে তিনি নেন পাঁচ উইকেট । এছাড়া গ্রুপ পর্বে স্কটিশদের বিপক্ষে চার উইকেট পেয়েছিলেন এই বামহাতি লেগ স্পিনার । বাংলাদেশের বিশ্বকাপ জয়ের রকিবুলের রয়েছে অনন্য ভুমিকা ।

কার্তিক ত্যাগি –

ছয় ম্যাচে ১১ উইকেট পাওয়া ১৯ বছরের ভারতীয় পেসার আছেন বিশ্বকাপের সেরা একদশে ।

আহাস/ক্রী/০০৪