Download WordPress Themes, Happy Birthday Wishes

আত্মবিশ্বাসী রোনালদো

ক্রীড়ালোক প্রতিবেদকঃ

উইয়েফা চ্যাম্পিয়ন্স লীগের নক আউট পর্বের শুরুতেই বড় ধাক্কা খেয়েছে জুভেন্টাস । দুইবারের চ্যাম্পিয়নরা প্রথম লেগের ম্যাচের ম্যাচে হেরে গেছে ফ্রান্সের অলিম্পিক লিওর কাছে । অথচ লিওর মাঠেও শক্তির বিচারে দুইবারের ইউরোপিয়ান চ্যাম্পিয়ন জুভেন্টাস ছিল ফেভারিট । কিন্তু নিজেদের মাটিতে ইটালিয়ান চ্যাম্পিয়নদের হারিয়ে সবাইকে চমকে দিয়েছে লিও ।

লিওর অলিম্পিক স্টেডিয়ামে জুভেন্টাসের হার নিয়ে অনেকেই সমালোচনা করছেন । কিন্তু দলের সবচেয়ে বড় তারকা ক্রিস্টিয়ানো রোনালদো এসব কিছু নিয়ে মাথা ঘামাচ্ছেন না একেবারেই । তিনি বরং অনেকটাই নির্ভার । রোনালদো বিশ্বাস করেন , পরের লেগে নিজেদের মাঠে লিওকে হারিয়েই কোয়ার্টার ফাইনালে উঠবে জুভেন্টাস ।

আগামী ১৮ মার্চ নিজেদের মাঠ আলিয়াঞ্জ স্টেডিয়ামে লিওকে আতিথ্য দেবে জুভেন্টাস । প্রথম লেগে ০-১ গোলে হারা জুভেন্টাসকে কমপক্ষে দুই গোলের ব্যবধানে জিততে হবে । তাহলেই জুভেন্টাস উঠবে কোয়ার্টার ফাইনালে ।

এমন পরিস্থিতিতেও অবশ্য জুভেন্টাস মহাতারকা রোনালদো তারকা খুব বেশী চিন্তিত নন । তিনি জানিয়েছেন , ‘ আমরা এখনই চ্যাম্পিয়ন্স লীগ থেকে বিদায় নেয়ার চিন্তা করছি না । হ্যাঁ , এটা ফুটবলের সবচেয়ে কঠিন প্রতিযোগিতা । এখানে যে কোন মুহূর্তে অনেক অনাকাঙ্ক্ষিত ঘটনা ঘটে যেতে পারে । ‘

আধুনিক ফুটবলের সম্রাট রোনালদো জানান , ‘ আমি আসলে দ্বিতীয় লেগে লিওর বিপক্ষে খেলার জন্য মুখিয়ে আছি । বলতে পারেন অধৈর্য হয়ে আছি । ‘

চলতি আসরের গ্রুপ পর্বে অপরাজিত ছিল জুভেন্টাস । প্রথম ম্যাচে অ্যাথলেটিকো মাদ্রিদের সাথে ড্র করার পরের পাঁচ ম্যাচ টানা জিতেছে তুরিনের বুড়িরা ।

ব্যক্তিগতভাবে রোনালদোর সময়টা চলমান চ্যাম্পিয়ন্স লীগে অবশ্য খুব ভাল যাচ্ছে না । আসরের সর্বকালের সেরা গোলদাতা রোনালদো এখন পর্যন্ত করেছেন মাত্র দুই গোল । আসরে সব মিলিয়ে তার গোলের সংখ্যা ১২৮টি ।

নক আউট পর্বে চাপের মধ্যে ভাল খেলার দারুণ রেকর্ড আবার রোনালদোর আছে । ইতিহাসের একমাত্র খেলোয়াড় হিসেবে তিনিই করেছেন গ্রুপ পর্বের চেয়ে নক আউট স্টেজে বেশী গোল । যেখানে গ্রুপ পর্বে রোনালদোর গোলের সংখ্যা ৬৩টি , সেখানে নক আউট পর্বে পর্তুগীজ তারকা করেছেন ৬৩টি গোল ।

গত আসরেও সেরা ষোলর প্রথম লেগে অ্যাথলেটিকো মাদ্রিদের কাছে ০-২ গোলে হেরেছিল জুভেন্টাস । কিন্তু ফিরতি লেগে রোনালদোর হ্যাট্রিকে জুভেন্টাস জিতে যায় ৩-০ গোলে । আর দুই লেগ মিলিয়ে ৩-২ গোলের অগ্রগামিতায় পা রাখে কোয়ার্টার ফাইনালে ।

২০১৫-১৬ মৌসুমেও একই ঘটনা ঘটিয়েছেন রোনালদো । উলভবার্গের বিপক্ষে প্রথম ম্যাচে রিয়েল মাদ্রিদ হেরেছিল ০-২ গোলে । কিন্তু পরের লেগে জার্মান প্রতিপক্ষে রিয়েল উড়িয়ে দেয় ৩-০ গোলে । সেই ম্যাচেও হ্যাট্রিক করেছিলেন রোনালদো ।

এবার লিওর বিপক্ষে রোনালদোর তেমন ম্যাজিক দেখার অপেক্ষায় জুভেন্টাস । ২০১৮-১৯ মৌসুমের শুরুতে রিয়েল মাদ্রিদ থেকে জুভেন্টসে যোগ দেয়া রোনালদো নিজেও তেমনটা নিশ্চিত চাইবেন ।

আহাস/ক্রী/০০১