Download WordPress Themes, Happy Birthday Wishes

বিশ্বরেকর্ড গড়লেন শ্রীলঙ্কার পেসার

ক্রীড়ালোক প্রতিবেদকঃ

দক্ষিণ আফ্রিকায় অনূর্ধ্ব-১৯ বিশ্বকাপে বিশ্বরেকর্ড গড়েছেন শ্রীলঙ্কার পেসার মাথিসা পাথিরানা । ভারতের বিপক্ষে গ্রুপ পর্বের ম্যাচে ১৭৫ কিলোমিটার বেগে বল করে ক্রিকেট দুনিয়া হৈচৈ ফেলে দিয়েছেন এই তরুণ ।

পাথিরানা বোলিং একশানের সাথে অনেকটাই মিল আছে শ্রীলঙ্কার গ্রেট লাসিথ মালিঙ্গার । এই জন্য অনেকেই তাকে ‘নতুন মালিঙ্গা’ বলেও ডাকে । কিন্তু বলের গতিতে মালিঙ্গা কেন , বিশ্ব ক্রিকেট ইতিহাসের সব গতি-দানবকে ছাড়িয়ে গেছেন তিনি ।

দক্ষিণ আফ্রিকার ব্লুমফন্টেইনে ‘এ’ গ্রুপের ম্যাচে মুখোমুখি হয়েছিল শ্রীলঙ্কা আর ভারত । ম্যাচটি ভারত জিতেছে ৯০ রানের বড় ব্যবধানে । প্রথমে ব্যাট করে ভারত নির্ধারিত ৫০ ওভারে তোলে চার উইকেটে ২৯৭ রানের বিশাল স্কোর । জবাবে ৪৫.২ বলে ২০৭ রানে অল আউট হয়ে যায় শ্রীলঙ্কা ।

ম্যাচে শ্রীলঙ্কা হেরে গেলেও ইতিহাস গড়েছেন দলের ১৭ বছর বয়সী পেসার পাথিরানা । খেলার চতুর্থ ওভারেই গতির অবিশ্বাস্য ঝড় তুলে সবাইকে হতবাক করেন তিনি । যশস্বী জয়সওয়াকে তিনি যে বল করেন , স্পিড-গানে তার গতি ছিল ১৭৫ কিলোমিটার !

যদিও বলটি পিচে পড়ে লেগ স্টাম্পের অনেকটাই বাইরে দিয়ে চলে যায়। আম্পায়ার বলটিকে ওয়াইড হিসেবে ঘোষণা দেন । পুরো ম্যাচে আট ওভার বল করে ৪৯ রান দিয়েছেন মাথিরানা । পান নি কোন উইকেট । 

এদিকে আইসিসি (ইন্টারন্যাশনাল ক্রিকেট কাউন্সিল) পাথিরানার বল নিয়ে এখনও কোন মন্তব্য করে নি । তবে গতিতে তিনি কে পাকিস্তানের সাবেক পেসার শোয়েব আখতারকে ছাড়িয়ে গেছেন , এটা বলছে স্পিড-গান । আইসিসি-র খাতায় এখনও পর্যন্ত আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে বিশ্বের দ্রুততম ডেলিভারির মালিক শোয়েব । ২০০৩ বিশ্বকাপে নিউল্যান্ডসে ইংল্যান্ডের বিরুদ্ধে ঘন্টায় ১৬১.৩ কিলোমিটার বেগে বল করে রেকর্ড গড়েছিলেন ‘রাওয়ালপিণ্ডি এক্সপ্রেস’।

শোয়েবের কাছাকাছি বোলিং করে তাঁর পিছনে রয়েছেন দুই অজি পেসার শন টেট ও ব্রেট লি৷ প্রাক্তন পাক পেসারের কাছাকাছি গতিতে বল করেছিলেন।

দুই অজি বোলারের বলের গতিবেগ ছিল ঘন্টায় ১৬১.১ কিলোমিটার। ২০০৫-এ নেপিয়ারে নিউজিল্যান্ডের বিরুদ্ধে এই রেকর্ড করেন লি৷ আর ২০১০ লর্ডসে ইংল্যান্ডের বিরুদ্ধে এই রেকর্ড ছিল টেটের৷ রবিবার ব্লুমফন্টেনে অনূর্ধ্ব-১৯ বিশ্বকাপে ভারতের বিরুদ্ধে এঁদের সকলকে ছাপিয়ে যান পাথিরানা৷

তবে বলটি ওয়াইড হওয়ায় , এটিকে বিশ্বরেকর্ড হিসেবে আইসিসি স্বীকৃতি দেবে কিনা সেটা নিয়ে অনেকেই সন্দেহ পোষণ করেছেন । তবে আনুষ্ঠানিকভাবে হলেও এখন পর্যন্ত পাথিরানার ১৭৫ কিলোমিটার গতি যে সর্বোচ্চ , এই নিয়ে সন্দেহ নেই কারুর ।

আহাস/ক্রী/০০৩