Download WordPress Themes, Happy Birthday Wishes

বঙ্গবন্ধু গোল্ডকাপের বিশেষ আসরেও নিম্নমানের দল !

ক্রীড়ালোক প্রতিবেদকঃ

২০২০ সাল বাংলাদেশের জন্য হতে চলেছে দারুণ স্মরণীয় একটি বছর । কারণ এই বছরেই পালিত হবে বাংলাদেশের জাতীর জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মশতবার্ষিকী । এই উপলক্ষ্যে সারা বছর জুড়ে থাকছে নানান আয়োজন । যেখানে অন্তর্ভুক্ত আছে খেলাধুলাও ।

আগামী ১৭ মার্চ বঙ্গবন্ধুর শততম জন্মদিন । এই উপলক্ষ্যে ২০২০ ও ২০২১ সালকে ‘মুজিব বর্ষ’ ঘোষণার কথা জানিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।১৯২০ সালের ১৭ মার্চ গোপালগঞ্জের টুঙ্গিপাড়ায় জন্ম নেন শেখ মুজিবুর রহমান।

বঙ্গবন্ধুর জন্মশতবার্ষিকীর বিশেষ আয়োজন থাকছে ফুটবলেও । যার অন্যতম হচ্ছে বঙ্গবন্ধু গোল্ডকাপ ফুটবল । দেশের ফুটবলে আগেও অনুষ্ঠিত হয়েছে বঙ্গবন্ধু গোল্ডকাপ । কিন্তু বঙ্গবন্ধুর জন্মশতবার্ষিকীর কারণে আয়োজনে-আকর্ষণে এটির আগের সবগুলোকে ছাড়িয়ে যাওয়ার কথা জানিয়েছিল বাংলাদেশ ফুটবল ফেডারেশন (বাফুফে) । কিন্তু সেটা শেষ পর্যন্ত হবে কিনা দেখা দিয়েছে সেই নিয়ে সন্দেহ । কারণ আসন্ন আয়োজনেও বাফুফে আনতে পারছে না আন্তর্জাতিক পরিসরে পরিচিত বড় কোন দল ।

আগামী ১৫ই জানুয়ারি থেকে শুরু হবে বঙ্গবন্ধু গোল্ড কাপ ফুটবলের ৬ষ্ঠ আসরের খেলা। ছয় দল নিয়ে অনুষ্ঠিত এই আসরের ড্র শনিবার (৪ জানুয়ারি) রাজধানীর প্যানপ্যাসিফিক সোনারগাঁ হোটেলে সম্পন্ন হয়েছে ।

ড্র অনুষ্ঠানে যুব ও ক্রীড়া প্রতিমন্ত্রী মো. জাহিদ আহসান রাসেল এমপি বলেছেন, ‘বঙ্গবন্ধু গোল্ডকাপের মধ্য দিয়ে দেশের ফুটবল পৌঁছবে অনন্য উচ্চতায়। আমি এই টুর্নামেন্টের সার্বিক সাফল্য কামনা করি।’

আসলেই কি তাই ?

এবারের আসরে বাংলাদেশ ছাড়া খেলছে গতবারের চ্যাম্পিয়ন ফিলিস্তিন , শ্রীলঙ্কা , বরুন্ডি, মরিসাস এবং সিসিলি। এদের মধ্যে ফিফা র‍্যাংকিংয়ে ১০৬ নাম্বারে আছে ফিলিস্তিন । তারাই এই আসরের সবচেয়ে শক্তিশালী দল । অন্যদিকে আফ্রিকার বুরুন্ডি ১৫১ , মরিশাস ১৭২ , সিসিলি ২০০ আর শ্রীলঙ্কা আছে ২০৬ নাম্বারে । আর স্বাগতিক বাংলাদেশ রয়েছে ১৮৭তম অবস্থানে ।

অর্থাৎ ফিলিস্তিন ছাড়া র‍্যাংকিং বিচারে বাংলাদেশের চেয়ে এগিয়ে বুরুন্ডি আর মরিশাস । কিন্তু সেটাও কতটা তা না দেখে বলা মুশকিল । কারণ এই দুই দলের সাথে সিসিলি একেবারেই অপরিচিত আন্তর্জাতিক অঙ্গনে । তার উপর বেশীরভাগ সময়ে যেমন হয় , সেইভাবে বঙ্গবন্ধু গোল্ডকাপে এইসব দেশ মূল দল না পাঠালেও অবাক হবার কিছু থাকবে না । সেই ক্ষেত্রে এমন আসর দেশের ফুটবলের কতটুকু উপকারে আসবে , সেই প্রশ্ন থেকেই যায় !

আসন্ন বঙ্গবন্ধু গোল্ডকাপে বাংলাদেশের গ্রুপে পড়েছে প্রতিযোগিতার বর্তমান চ্যাম্পিয়ন ফিলিস্তিন। ‘এ’ গ্রুপে স্বাগতিকদের আরেক প্রতিপক্ষ শ্রীলঙ্কা। বঙ্গবন্ধু গোল্ডকাপের অনুষ্ঠিত ড্রয়ে ছয় দলের প্রতিযোগিতায় ‘বি’ গ্রুপে রয়েছে বুরুন্ডি, সিশেলস ও মরিসাস।

সবশেষ ২০১৮ সালে প্রতিযোগিতার পঞ্চম আসরে তাজিকিস্তানকে টাইব্রেকারে ৪-৩ গোলে হারিয়ে চ্যাম্পিয়ন হয়েছিল ফিলিস্তিন। ফিফার র‌্যাঙ্কিংয়ে ছয় দলের মধ্যে সবচেয়ে এগিয়ে তারাই, ১০৬তম। আগের পাঁচ আসরের মধ্যে ২০১৫ সালে মালয়েশিয়া অনূর্ধ্ব-২৩ দলের কাছে ৩-২ গোলে হেরে রানার্সআপ হওয়া বাংলাদেশের সর্বোচ্চ পাওয়া। ২০১৬ ও ২০১৮ সালে শেষ চারে হেরে বিদায় নিয়েছিল দল।

বাফুফে সভাপতি কাজী মো. সালাউদ্দিনের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত ড্র অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন অর্থমন্ত্রী আ হ ম মুস্তফা কামাল। আরো উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশ ফুটবল ফেডারেশনের সিনিয়র সহসভাপতি ও টুর্নামেন্ট কমিটির চেয়ারম্যান আবদুস সালাম মুর্শিদী, ঢাকা উত্তর সিটি কর্পোরেশনের সাবেক মেয়র আতিকুল ইসলাম, বঙ্গবন্ধু জন্মশতবর্ষিকী উদযাপন কমিটির সদস্য সচিব ড. কামাল আবু নাসের চৌধুরী, প্রধানমন্ত্রীর বিশেষ সহকারী ব্যারিস্টার বিপ্লব বড়ুয়া, স্পন্সর প্রতিষ্ঠান কে-স্পোর্টসের সিইও ফাহাদ এম এ করিম ও ফিফা কাউন্সিল মেম্বার মাহফুজা আক্তার কিরন।

আহাস/ক্রী/০০৬