Download WordPress Themes, Happy Birthday Wishes

ছেলের সাথে খেলেই অবসরে যাবেন রোনালদো ?

আহসান হাবীব সুমন/ক্রীড়ালোকঃ

বাবা ক্রিস্টিয়ানো রোনালদো শুধু সময়ের না , ইতোমধ্যেই বিশ্বের সর্বকালের সেরা ফুটবলার স্বীকৃতি পাবার নেশায় মত্ত । অন্যদিকে ছেলে রোনালদো জুনিয়র কাঁপাচ্ছেন বয়সভিত্তিক ফুটবল । বাবার মতই রিয়েল মাদ্রিদ ছেড়ে নয় বছরের ক্রিস্টিয়ানো রোনালদো জুনিয়র এখন জুভেন্টাসের শিশু দলে । সর্বশেষ মৌসুমে বাবার মতই তিনি হয়েছেন বছরের সেরা ফুটবলার (বালক বিভাগে) ।

ইতোমধ্যেই বাবার পদাঙ্ক অনুসরণ করে চলা জুনিয়র রোনালদো নজর কেড়েছেন ফুটবল বোদ্ধাদের । বাবা রোনালদোর প্রত্যক্ষ সাহচর্যে জুনিয়র রোনালদো শিশু বয়সেই এখন এক প্রতিশ্রুতিশীল ফুটবলার । যদিও বিখ্যাত বাবার সন্তানেরা সফল হয়েছে , এমন উদাহরণ খুব বেশী নেই । আর সেটা খেলাধুলা ছাড়া অন্য যে কোন ক্ষেত্রেই প্রযোজ্য । তবে রোনালদো জুনিয়র এই ধারার ব্যতিক্রম হবেন , এমন প্রত্যাশা সকলের ।

সম্প্রতি রোনালদো টানা চতুর্থবারের মত জিতেছেন ‘গ্লোব বেস্ট ফুটবলার অ্যাওয়ার্ড ‘। এই ক্ষেত্রে তিনি হারিয়েছেন লিওনেল মেসি , ভার্জিল ভ্যান ডাইক আর মোহাম্মদ সালাহকে ।

দুবাইয়ে এই পুরস্কার নেয়ার জন্য উপস্থিত ছিলেন রোনালদো । দুবাইয়ে অবস্থানকালে টেনিসের মহাতারকা নোভাক জোকোভিচের সাথে এক ট্রেনিং সেশনে অংশ নেন আধুনিক ফুটবলের সম্রাট । এছাড়া অংশ নেন গ্লোব কর্তৃপক্ষ আয়োজিত এক বিশেষ সাক্ষাৎকারে । যেখানে রোনালদো অনেক বিষয়ের সাথে খোলাখুলি কথা বলেন নিজের অবসরের সম্ভাবনা নিয়েও ।

৩৪ বছর বয়সী রোনালদো জানান , ‘ আমি যখনই অবসরের চিন্তা করি , তখনই বাঁধ সাধে আমার ছেলে । কারণ সে একদিন আমার সাথে খেলতে চায় ।’

জুভেন্টাস তারকা জানান , ‘ ক্রিস্টিয়ানিনহোর খুব ইচ্ছা সে ফুটবলার হবে । আর তার পেশাদার ফুটবলার হিসেবে অভিষেক হবে আমার সাথে খেলে । আমি জানি না , এটা সত্যি স্বম্ভব কিনা । কিন্তু এটা হতেও পারে ! ‘

রোনালদো আগেও কয়েকবার বলেছেন , তিনি চল্লিশ  পর্যন্ত  খেলতে চান । সেই সময় পর্যন্ত তার মাঠে থাকা মানে রোনালদো জুনিয়রের বয়স ১৬ হয়ে যাওয়া ! এই সময়ে জুনিয়র রোনালদো প্রস্তুত হয়ে যেতে পারেন পেশাদার ফুটবলের জন্য । অনেক প্রতিভাবান ফুটবলার তাদের ক্যারিয়ার শুরু করেছেন ১৫-১৬ বছর বয়সে ।

রোনালদো জুনিয়রের ক্ষেত্রে তেমন কিছু হলে হয়ত সিনিয়রের সাথে একদিন একই ম্যাচে খেলতে দেখা যেতে পারে তাকে । বাপ-বেটার একই ম্যাচে মাঠে নামা নিশ্চিতভাবেই হবে ফুটবলের জন্য দারুণ একটি ঘটনা । কারণ বাবা রোনালদো তো আর যে সে ফুটবলার না , একেবারে বিশ্বসেরা ।

আহাস/ক্রী/০০৫