Download WordPress Themes, Happy Birthday Wishes

কোহলিদের হাতেই যাচ্ছে টি-২০ বিশ্বকাপ !

ক্রীড়ালোক প্রতিবেদকঃ

২০০৭ সালে আইসিসি আয়োজিত প্রথম টি-২০ বিশ্বকাপ আসরেই বাজীমাৎ করেছিল ভারত । দক্ষিণ আফ্রিকায় অনুষ্ঠিত সেই আসরের ফাইনালে মহেন্দ্র সিং ধোনির নেতৃত্বে পাকিস্তানকে হারিয়ে শিরোপা জয় করে ভারত । যা ১৯৮৩ সালের ওয়ানডে বিশ্বকাপের পর ভারতের প্রথম বিশ্বশিরোপা ।

চলতি বছরের ১৮ অক্টোবর অস্ট্রেলিয়ার মাটিতে শুরু হবে সপ্তম টি-২০ বিশ্বকাপের লড়াই । এবারের আসরে স্বাগতিক অস্ট্রেলিয়াকে অনেকেই ফেভারিট ধরছেন । অস্ট্রেলিয়াও তাদের অধরা টি-২০ বিশ্বকাপ ট্রফি ছুঁতে মরিয়া । সর্বশেষ ওয়ানডে বিশ্বকাপজয়ী ইংল্যান্ড আর রানার-আপ নিউজিল্যান্ডকেও পরিবেশ-পরিস্থিতির কারণে ফেভারিট ধরছেন অনেকেই ।

তহলে কি অস্ট্রেলিয়ায় অনুষ্ঠিতব্য টি-২০ বিশ্বকাপে এশিয়ান কোন দেশের শিরোপা জয়ের সম্ভাবনা নেই ?

না , এমনটা অন্তত ভাবছেন না ক্রিকেট রেকর্ডের বরপুত্র ব্রায়ান চার্লস লারা । ক্রিকেটের সর্বকালের অন্যতম সেরা এই খেলোয়াড় মনে করেন , আগামী টি-২০ বিশ্বকাপ জিতবে বিরাট কোহলির ভারত ।

লারা জানিয়েছেন । ‘ এই মুহূর্তে বিশ্বের সবচেয়ে ভয়ংকর দলের একটি ভারত । তারা অসাধারণ ক্রিকেট খেলছে । আমার মতে , তাদের বিশ্বকাপ জয়ের সম্ভাবনাই সবচেয়ে বেশী । ‘

বর্তমান সময়ে বিশ্বের সবচেয়ে জনপ্রিয় টি-২০ ফ্রেঞ্চাইজি লীগ হচ্ছে ভারতের আইপিএল । এখানে খেলে টি-২০ ক্রিকেটে হাত পাকিয়েছেন বিশ্বের অনেক তারকা ক্রিকেটার । ভারতেও টি-২০ খেলোয়াড়ের অভাব নেই । রোহিত শর্মা , শিখর ধাওয়ান আর খোদ অধিনায়ক বিরাট কোহলি তো আছেনই । সাথে লোকেশ রাহুল, ঋষভ পন্ত, শ্রেয়াস আয়ার, হার্দিক পান্ডিয়া, যশপ্রীত বুমরা, যুজবেন্দ্র চাহাল, মোহাম্মদ শামি, কূলদীপ যাদব, দীনেশ কার্তিক – প্রত্যেকে টি-২০ ক্রিকেটের চাহিদা মিটিয়ে যুগের সঙ্গে তাল মিলিয়ে খেলতে পারেন। তবে আইপিএল শুরু হওয়ার পর থেকে একবারও টি-২০ বিশ্বকাপ জেতেনি ভারত। এটা ভারতের জন্য অবশ্যই দারুণ হতাশার ।

লারা মনে করছেন অস্ট্রেলিয়াতেই ভারত সেই হতাশা কাটিয়ে সাফল্য পাবে । ওয়েস্ট ইন্ডিজের গ্রেট জানিয়েছেন , ‘ ভারতের আছে বিরাট কোহলির মত একজন অধিনায়ক । তাকে আমার সবার সেরা মনে হয় । ও সবার চেয়ে ওপরে। ওর ধারাবাহিকতা ও ফিটনেস প্রশংসা করার মতোই।’

তবে টি-২০ ক্রিকেট দারুণ অনিশ্চয়তার । এখানে যে কোন সময় ম্যাচের রং বদলায় । তাই ভারতকে সতর্ক করে লারা জানান , ‘ নকআউট রাউন্ডগুলোতে যেকোনো পর্যায়ে ম্যাচের মোড় ঘুরে যেতে পারে। গত বছর ইংল্যান্ডের বিপক্ষে বিশ্বকাপের সেমিফাইনালেই সে অভিজ্ঞতা হয়ে গেছে ভারতের। ‘

আসলেই তাই । পুরো আসরে দারুণ খেলে সেমি ফাইনাল থেকে ভারতের বিশ্বকাপ শেষ হওয়া ছিল সবার জন্যই হতাশার । গত কয়েকটি বড় আসর গ্রুপ কিংবা প্রথম রাউন্ডে ভারত ছিল দুর্বার । কিন্তু নক-আউট পর্বের কোন একটি পর্যায়ে এসে ভেঙ্গে পড়তে দেখা যাচ্ছে টিম-ইন্ডিয়াকে । এমন যদি আগামী টি-২০ বিশ্বকাপেও হয় , তাহলে লারার ভবিষ্যৎবাণী বিফল প্রমাণিত হবে ।

আহাস/ক্রী/০০৫