Download WordPress Themes, Happy Birthday Wishes

যুব বিশ্বকাপের ফাইনালে খেলার স্বপ্ন ?

ক্রীড়ালোক প্রতিবেদকঃ

নতুন ২০২০ সালের শুরুতে বাংলাদেশের যুব ক্রিকেটারদের সামনে আছে কঠিন এক পরীক্ষা । দক্ষিণ আফ্রিকায় অনুষ্ঠিতব্য আইসিসি অনূর্ধ্ব-১৯ বিশ্বকাপ ক্রিকেট যে একেবারে কড়া নাড়ছে । এতে অনেক বড় স্বপ্ন নিয়ে খেলতে যাচ্ছে বাংলাদেশের যুবা ক্রিকেটাররাও । কত বড় সেই স্বপ্ন ?

বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের (বিসিবি) সভাপতি নাজমুল হাসান পাপন কিন্তু স্বপ্ন দেখছেন ফাইনালে খেলার । তিনি জানান , ‘ যেভাবে প্রস্তুতি নিয়েছে বাংলাদেশ তাতে সেমিফাইনাল কিংবা ফাইনাল অসম্ভব কিছুই নয়। ‘ 

যুব বিশ্বকাপের জন্য গত ২১ ডিসেম্বর আকবর আলীকে অধিনায়ক করে দল ঘোষণা করে বিসিবি । যেখানে সহ-অধিনায়ক হিসেবে থাকছে তৌহিদ হৃদয় । ১৫ সদস্যের দলের বাইরে স্ট্যান্ড-বাই রাখা হয়েছে ছয়জন । 

বিশ্বকাপের জন্য আগামী ৩ জানুয়ারি দক্ষিণ আফ্রিকার উদ্দ্যেশে রওয়ানা দেবে বাংলাদেশের যুব দল । সেখানে মূল আসরের আগে আফগানিস্তান আর দক্ষিণ আফ্রিকার স্থানীয় অনূর্ধ্ব-১৯  দলের সাথে দুইটি প্রস্তুতি ম্যাচ খেলবে  জুনিয়র টাইগাররা । 

বিশ্বকাপের মূল আসর  শুরু হচ্ছে ১৭ জানুয়ারি । দক্ষিণ আফ্রিকার চারটি শহরের মোট আট ভেন্যুতে  হবে এবারের আসর । ২৮ দিনের এই আসরের ফাইনাল অনুষ্ঠিত হবে ৯ ফেব্রুয়ারি । 

আসন্ন যুব বিশ্বকাপে গ্রুপ  ‘সি’তে  পাকিস্তান , স্কটল্যান্ড আর জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে লড়বে বাংলাদেশ । ১৮ জানুয়ারি বাংলাদেশের  প্রথম ম্যাচ জিম্বাবুয়ের সাথে । এরপর ২১ জানুয়ারি আকবর আলীদের  মোকাবেলা  স্কটল্যান্ডের বিপক্ষে । আর ২৪ জানুয়েরি গ্রুপের শেষ ম্যাচে বাংলাদেশের প্রতিপক্ষ পাকিস্তান । 

প্রতি গ্রুপের সেরা দুই দল যাবে  কোয়ার্টার ফাইনালে । আর বাকীদের ঠাই হবে প্লেট-পর্বে । অনূর্ধ্ব-১৯ ক্রিকেট বিশ্বকাপে বাংলাদেশের সর্বোচ্চ সাফল‌্য তৃতীয় স্থান অর্জন। ২০১৬ সালে ঘরের মাঠে শ্রীলঙ্কাকে হারিয়ে বাংলাদেশ তৃতীয় স্থান লাভ করেছিল।

এবার সেই সাফল্যকে ছাপিয়ে যেতে চায় বাংলাদেশ । এই নিয়ে বিসিবি সভাপতি জানান , ‘

‘এর আগে যত দল বাইরে পাঠিয়েছি এবারের থেকে ভালো দল পাঠাতে পারিনি। এ দলটি ইংল্যান্ডে খেলে এসেছে, ২-০ তে জিতেছে। নিউজিল্যান্ডে গিয়ে ৪-১ এ জিতে এসেছে। ওসব কন্ডিশনে তারা ভালো খেলেছে। শ্রীলঙ্কায় এশিয়া কাপে ভালো করেছে। ফাইনাল খেলেছে। আমি আশাবাদী যে তারা এবারের বিশ্বকাপে ভালো করবে। ওদেরকে বলেছি, আমি কখনো দক্ষিণ আফ্রিকায় যাইনি, জাতীয় দলের জন‌্যও না। ওরা যদি সেমিফাইনালে ওঠে তাহলে যাব ওদের খেলা দেখতে।’

১৫ সদস্যের বাংলাদেশ দল : আকবর আলী (অধিনায়ক), তৌহিদ হৃদয় (সহ-অধিনায়ক), তানজিদ হাসান তানিম, পারভেজ হোসেন ইমন, প্রান্তিক নওরোজ নাবিল, মাহমুদুল হাসান জয়, শাহাদাত হোসেন, শামীম হোসেন, মৃত্যুঞ্জয় চৌধুরী নিপুন, তানজিম হাসান সাকিব, অভিষেক দাস, শরিফুল ইসলাম, শাহিন আলম, রকিবুল হাসান ও হাসান মুরাদ।

স্ট্যান্ডবাই : অমিত হাসান, এসএম মেহরাব হাসান, আশরাফুল ইসলাম সিয়াম, মিজানুর রহমান মোহান্না, রুহেল মিয়া ও আসাদুল্লাহ হিল গালিব।

আহাস/ক্রী/০০৩