Download WordPress Themes, Happy Birthday Wishes

সিপিএলে ম্যাচ পাতানোর অভিযোগ ভারতীয় মালিকের বিরুদ্ধে !

ক্রীড়ালোক প্রতিবেদকঃ

হঠাৎ করেই যেন ম্যাচ ফিক্সিং ইস্যুতে গরম হয়ে উঠেছে ক্রিকেট বিশ্ব । সাম্প্রতিক সময়ে ম্যাচ ফিক্সিংয়ের দায়ে নিষিদ্ধ হয়েছেন সংযুক্ত আরব আমিরাতের একাধিক খেলোয়াড় । ভারতের কর্ণাটক প্রিমিয়ার লীগের কয়েকজন খেলোয়াড় আর কোচ গ্রেফতার হয়েছেন সাম্প্রতিক সময়ে । তবে সবচেয়ে বেশী আলোচিত ছিল বাংলাদেশের বিশ্বসেরা অল রাউন্ডার সাকিব আল হাসানের এক বছরের জন্য নিষিদ্ধ । সাকিব অবশ্য ম্যাচ ফিক্সিংয়ের জন্য নিষিদ্ধ হন নি , বরং ক্রিকেট জুয়াড়িদের কাছ থেকে অফার পেয়েও গোপন রাখার অপরাধে তাকে সাজা দিয়েছে আইসিসি ।

এদিকে এবার ম্যাচ ফিক্সিং কান্ডে আলোচনায় উঠে এসেছে ক্যারিবিয়ান প্রিমিয়ার লীগ (সিপিএল) । জানা গেছে , সিপিএলের এক মালিককে ম্যাচ ফিক্সিং চেষ্টার অভিযোগে পাঠিয়ে দেয়া হয়েছে নিজ দেশে ।

ভারতের ব্যাঙ্গালোর মিরর’ জানিয়েছে সিপিএলে ম্যাচ ফিক্সিংয়ের খবর । মজার ব্যাপার হচ্ছে , সিপিএলে ম্যাচ ফিক্সিং চেষ্টায় থাকা মালিক একজন ভারতীয় । আইসিসির দুর্নীতি-দমন বিভাগের নজরে পড়ে যাওয়ায় তাকে আসরের মাঝপথে তাকে দেশে ফেরত পাঠান হয়েছে ।

তবে ভারতীয় মালিকের পরিচয় জানানো হয় নি । তবে সেখানে ত্রিনবাগো নাইট রাইডার্সের মালিক সুপার স্টার শাহরুখ খান । বার্বাডোজ ট্রাইডেন্টের মালিকানাতেও বিজয় মালিয়া ছিলেন। এ মৌসুমেই মালিকানা বদল হয়েছে বার্বাডোজের।

পরিচয় প্রকাশ না করায় বিষয়টি নিয়ে উঠেছে বিশেষ আলোড়ন । খবরে জানানো হয়েছে , কোন এক দলের ভারতীয় মালিক পাকিস্তানের এক ক্রিকেটারকে প্রস্তাব দিয়েছিলেন। কিন্তু পাকিস্তানি খেলোয়াড় সে প্রস্তাব সঙ্গে সঙ্গে দুর্নীতি-দমন বিভাগকে জানিয়ে দিয়েছে। সেই খবর জানার সাথে সাথে ভারতীয় মালিককে দেশে ফেরত পাঠানো হয় ।

চলতি বছরের সর্বশেষ আসরের ফাইনালে বার্বাডোস ট্রাইডেন্টড শিরোপা জিতেছে ফাইনালে গায়ানা অ্যামাজন ওয়ারিয়র্সকে হারিয়ে । চলতি বছর একাধিক ম্যাচ নিয়ে অনেকেই প্রকাশ করেছিলেন সন্দেহ ।

আহাস/ক্রী/০০৯