Download WordPress Themes, Happy Birthday Wishes

ভুল শোধরাতে ওয়েস্ট ইন্ডিজ দলে ফেরানো হলো তাকে

ক্রীড়ালোক প্রতিবেদকঃ

আবারও ওয়েস্ট ইন্ডিজ জাতীয় ক্রিকেট দলের প্রধান কোচের দায়িত্ব পেয়েছেন ফিল সিমন্স । তিন বছর আগে বরখাস্ত হওয়া সিমন্সকে ফের একবার উইন্ডিজ দলের প্রধান কোচ হিসেবে দায়িত্ব দেয়া হয়েছে । ডেসমন্ড হেইন্স আর ফ্লোয়েড রেইফারের সম্ভাবনা থাকলেও শেষ পর্যন্ত সিমন্সকে দায়িত্ব দিয়েছে উইন্ডিজ ক্রিকেট বোর্ড ।

২০১৬ সালে ওয়েস্ট ইন্ডিজকে টি-২০ বিশ্বকাপ জেতানোর পর বিতর্কিত ভাবে বরখাস্ত করা হয় ফিল সিমন্সকে। আপাতত চার বছরের জন্য সিমন্সের সাথে চুক্তি করেছে উইন্ডিজ ক্রিকেট বোর্ড ।

২০১৯ বিশ্বকাপের আগ দিয়ে তখনকার কোচ রিচার্ড পাইবাসকে সরানোর পর থেকে হেড কোচের পদ শূন্য ছিল ওয়েস্ট ইন্ডিজের, অন্তর্বর্তীকালীন কোচ হিসেবে কাজ করছিলেন ফ্লোয়েড রেইফার।

সিমন্সকে দায়িত্ব দিয়ে বোর্ড প্রেসিডেন্ট রিকি স্কেরিট বলেছেন, ‘ফিল সিমন্সকে ফেরানোর মধ্য দিয়ে যে শুধু পূর্বের একটা ভুল সংশোধন করা হলো সেটি নয়, আমার মনে হয়, ক্রিকেট ওয়েস্ট ইন্ডিজ সঠিক মানুষকেই নির্বাচন করেছে। আমি ফ্লয়েড রেইফারকেও তার কঠোর পরিশ্রমের জন্য ধন্যবাদ জানাতে চাই। ‘

ওয়েস্ট ইন্ডিজের হয়ে ২৬টি টেস্ট ও ১৪৩টি ওয়ানডে খেলা সিমন্স কোচিং ক্যারিয়ারে শুরুতে দায়িত্ব নিয়েছিলেন জিম্বাবুয়ের। সে পদ থেকে বহিষ্কার করা হয়েছিল তাকে, এরপর আয়ারল্যান্ডের হয়ে কাটিয়েছেন দীর্ঘ সময়। ২০১১ থেকে ২০১৫ সাল পর্যন্ত তাদের দায়িত্বে ছিলেন তিনি, এ সময়ে আয়ারল্যান্ড খেলেছিল তিনটি বিশ্বকাপ। তার আমলের উত্থানই পরে পথ দেখিয়েছিল ২০১৭ সালে তাদের টেস্ট স্ট্যাটাস পাওয়ার ক্ষেত্রে।

আয়ারল্যান্ড ছেড়ে ওয়েস্ট ইন্ডিজেরে চ্যালেঞ্জ নিয়েছিলেন তিনি, তবে শেষটা সুখকর ছিল না সেবার। এরপর আফগানিস্তানকে নিয়ে বিশ্বকাপে গিয়েছিলেন সিমন্স, অবশ্য বিশ্বকাপের আগে আসগর আফগানকে অধিনায়কত্ব সরিয়ে দেওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়ে টুইটারে অসন্তোষ জানিয়েছিলেন তিনি। বিশ্বকাপের পর ছেড়ে দিয়েছেন সে দায়িত্বও।

উইন্ডিজ কোচ নিয়োগ প্রক্রিয়ায় ক্রিকেট বোর্ড আগেই ঘোষণা করে দিয়েছিল। ওয়েস্ট ইন্ডিজের বাইরের কেউ এই পদের জন্য আবেদন করতে পারবে না।

সর্বশেষ ক্যারিবিয়ান প্রিমিয়ার লীগে সাকিব আল হাসানের বার্বাডোস ট্রিডেন্টসের কোচ ছিলেন তিনি । বার্বাডোস তার অধীনেই শিরোপা জিতেছে এবার ।

আহাস/ক্রী/০০৪