Download WordPress Themes, Happy Birthday Wishes

জামাল ভূঁইয়ার শরীরে চারটি বুলেট

ক্রীড়ালোক প্রতিবেদকঃ

বাংলাদেশের ফুটবলে এখন বইছে সুবাতাস । বিশ্বকাপ বাছাই পর্বে আফগানিস্তান আর কাতারের সাথে লড়াকু হার । এরপর ভারতের বিপক্ষে তাদেরই মাটিতে ড্র । যদিও শেষ মুহূর্তে গোল না খেলে ম্যাচটি জিততে পারত বাংলাদেশ । সব মিলিয়ে বহুদিন অন্ধকারে তলিয়ে থাকা বাংলাদেশের ফুটবলের সামনে এখন আশার আলো ।

কোচ জেমি ডের অধীনে এখন সত্যি আশা জাগানিয়া ফুটবল খেলছে বাংলাদেশ । যার নেতৃত্ব দিচ্ছেন জামাল ভুঁইয়া । এই মুহূর্তে বাংলাদেশের ফুটবলের সবচেয়ে বড় তারকা আর আশার আলো জামাল ভুঁইয়া , সন্দেহ নেই । যার বাবা-মা বাংলাদেশী হলেও , তার জন্ম কিন্তু ডেনমার্কে । প্রবাসী বাবা-মায়ের সন্তান জামাল ভুঁইয়া ২০১৩ সালে প্রথম গায়ে চড়ান বাংলাদেশের জার্সি । আর এখন তো তিনি সেই দলের নেতা ।

জামাল ভুঁইয়া নিজেই জানিয়েছেন , তার দাদা প্রথমে ডেনমার্ক যান ১৯৬৩ সালে । এরপর ১৯৬৭ সালে তার বাবা আর ১৯৭১ সালে মা । সেই থেকে তার পরিবার ডেনমার্কের স্থায়ী বাসিন্দা ।

১৯৯০ সালের ১০ এপ্রিল কোপেনহেগেনে জন্ম জামাল ভূঁইয়ার । কৈশোরে পা রাখার আগেই ফুটবলের সঙ্গে ভালোবাসা শুরু । কিশোর বয়সে এএফসি কোপেনহেগেনের যুবদলের হয়ে গোল আছে তার, বিখ্যাত সেই ক্লাবের মূল দলে খেলারও হাতছানি ছিল। কিন্তু একটা দুর্ঘটনা বদলে দেয় জামালের কক্ষপথ। কোপেনহেগেনে গোলমালের মাঝে পড়ে গুলিবিদ্ধ হয়ে কোমাতেও চলে গিয়েছিলেন। জীবণ মৃত্যুর সেই সন্ধিক্ষণ পেরিয়ে জামাল এখন দিচ্ছেন বাংলাদেশের ফুটবলে নতুন জীবন।

সেই ঘটনা সম্পর্কে জামাল ভুঁইয়া জানান , ‘ সেটা ২০০৭ সালের ঘটনা। আমার বয়স তখন ১৬/১৭ বছর। স্কুল থেকে বাসায় ফিরছিলাম। আমরা যেখানে থাকতাম, সেই জায়গাটা তেমন ভালো ছিল না। আমি অবশ্য ভয় পেতাম না। তবে সেদিন একজন লোক আমাকে তাড়াতাড়ি বাসায় ফিরতে বলেন। তার সঙ্গে কথা বলার কয়েক মিনিট পর আমাকে লক্ষ্য করে চারটি গুলি করা হয়। একটি কনুইয়ে আর অন্যটি তলপেটে লাগে। বাকি দুটি গুলি বেরিয়ে যায় শরীর ঘেঁষে। দুই দিন কোমায় ছিলাম, তিন/চার মাস হাসপাতালে থাকতে হয়েছিল। সেরে উঠে ১৪ মাস পর ফুটবল খেলতে শুরু করি। ‘

সেই সময়ে জামাল ভুঁইয়া ভেবেছিলেন , আর কোনদিন ফুটবল মাঠে ফিরতে পারবেন না তিনি । কিন্তু কোপেনহেগেন যুব দলের কোচ জনি লারসনের উৎসাহে আবার ফুটবলে ফেরেন তিনি । যদিও বহুদিন সেই ঘটনা তাকে তাড়িয়ে বেরিয়েছে । মাঝেমাঝেই রাতে জেগে উঠতেন দুঃস্বপ্ন দেখে ।

বাংলাদেশের হয়ে ৪১ ম্যাচ খেলা জামাল ভুঁইয়ার মনপ্রাণ জুড়ে এখন লাল সবুজের দল । বাংলাদেশের ফুটবলকে তিনি নিয়ে যেতে চান আরও অনেক দূরে ।

আহাস/ক্রী/০০৬