Download WordPress Themes, Happy Birthday Wishes

‘রহস্যজনক’ ম্যাচে জয়ের নায়ক ড্যারেন স্যামি

ক্রীড়ালোক প্রতিবেদকঃ

ওয়েস্ট ইন্ডিজের ঘরোয়া টি-২০ আসর ‘ক্যারিবিয়ান প্রিমিয়ার লীগে’ (সিপিএল) জয় পেয়েছে সেইন্ট লুসিয়া জুক্স । দলটি ২০ রানের ব্যবধানে হারিয়েছে সেইন্ট কিটস এন্ড ন্যাভাল প্যাট্রিয়টকে । এই জয়ে ব্যাট হাতে বড় অবদান রাখেন অধিনায়ক ড্যারেন স্যামি ।

বুধবার (বাংলাদেশ সময়) ভোরে সেইন্ট লুসিয়ার ড্যারেন স্যামি স্টেডিয়ামে মুখোমুখি হয় স্বাগতিক সেইন্ট লুসিয়া আর সেইন্ট কিটস । নিজেদের মাঠে শুরুতে ব্যাট করা সেইন্ট লুসিয়া ২০ ওভারে ৬ উইকেটে ১৬৫ রান তোলে । জবাবে সেইন্ট কিটসের লড়াই থামে ২০ ওভারে ৯ উইকেটে ১৪৫ রান তুলেই ।

ম্যাচে সাতে নামা স্যামি ১৯ বলে করেন ৩০ রান । তার ইনিংসে ছিল তিনটি চার আর একটি ছক্কা । ষষ্ঠ উইকেটে ক্রিস্টোফার বার্নওয়েলের সাথে তার ৫৬ রানের জুটি ম্যাচে নির্ণায়ক হয়ে দেখা দেয় । ক্রিস্টোফার অপরাজিত থাকেন ২৩ বলে একটি করে চার আর ছক্কায় ২৭ রান করে ।

ওপেনার আন্দ্রে ফ্লেচার করেন সর্বোচ্চ ৩৬ রান । তার ২৩ বলের ইনিংসে ছিল চারটি চার আর দুইটি ছক্কা ।

২১ রান আসে কলিন ইনগ্রামের ব্যাট থেকে । তিনি ১৬ বলে মেরেছেন একটি করে চার আর ছক্কা ।

সেইন্ট কিটস মোহাম্মদ হাফিজ তিন উইকেট নিয়ে ছিলেন সেরা বোলার । আর দুই উইকেট পেয়েছেন আলজারি জোশেফ ।

টার্গেট তাড়ায় কেশ্রিক উইলিয়ামস আর হার্ডাস ভলিয়েনের তোপে পড়ে সেইন্ট কিটস । দুইজনেই নেন তিনটি করে উইকেট । আর দুই উইকেট পান অজি লেগ ব্রেক বোলার ফাওয়াদ আহমেদ । সব মিলিয়ে শুরু থেকে চাপে পড়া সেইন্ট কিটস আর ম্যাচে ফিরতে পারে নি ।

পরাজিত দলের হয়ে ২৯ রান আসে পাকিস্তানী হাফিজের ব্যাট থেকে । ২৮ রান করেন লরি ইভান্স । যদিও ম্যাচ জয়ের জন্য সেটা যথেষ্ট ছিল না । কারণ অন্যরা ছিলেন কার্যত ব্যর্থ ।

এই জয়ে সাত ম্যাচে পাঁচ পয়েন্ট নিয়ে চারে উঠে এসেছে সেইন্ট লুসিয়া । আর ৯ ম্যাচে আট পয়েন্ট নিয়ে তিনে আছে সেইন্ট কিটস । সেইন্ট কিটসের প্লে-অফে খেলা অনেকটাই নিশ্চিত । এমন অবস্থায় খুব সহজে তারা হারলো ধুঁকতে থাকা সেইন্ট লুসিয়ার ।  যদিও ম্যাচটি তাদের হাতেই ছিল ।  এমন অবস্থায়  সিপিএলে চলা  ম্যাচ নিয়েও প্রশ্ন তুলেছেন অনেকেই । বিশেষ করে  যেখানে সেইন্ট কিটসের খেলোয়াড়দের মধ্যে জয়ের কোন তাড়া দেখা যায় নি ! 

আহাস/ক্রী/০০৩