Download WordPress Themes, Happy Birthday Wishes

বোল্টকে ছাড়িয়ে গেলেন ফেলিক্স

ক্রীড়ালোক প্রতিবেদকঃ

বিশ্ব ক্রীড়ার সর্বকালের অন্যতম সেরা ক্রীড়াবিদ হিসেবে নিজের নাম আগেই পাকাপোক্ত করেছেন উসাইন বোল্ট । অবিশ্বাস্য গতির অধিকারী জ্যামাইকান বোল্ট ২০০৯ সালে বার্লিন অ্যাথলেটিক্স চ্যাম্পিয়নশিপের ১০০ মিটার দৌড়ে ৯.৫৮ সেকেন্ড সময় নিয়ে গড়েছেন বিশ্বরেকর্ড, হয়েছেন সর্বকালের সেরা। ক্যারিয়ারে জিতেছেন আটটি অলিম্পিক সোনার পদক । ইতিহাসের একমাত্র স্প্রিন্টার হিসেবে ১০০ আর ২০০ মিটার দৌড়ে টানা তিন অলিম্পিকে জিতেছেন সোনা । এছাড়া ১০০ , ২০০ আর ৪*১০০ মিটার দৌড়ের বিশ্বরেকর্ড তার দখলেই ।

বিশ্ব এথলেটিক্স প্রতিযোগিতায় বোল্টের পদকের সংখ্যা ১৪টি। এই একই সমান পদক জয়ের রেকর্ড আছে আরেক কিংবদন্তী মার্লিন ওটির । তবে এবার তাদের সবাইকে ছাড়িয়ে গেলেন আমেরিকা যুক্তরাষ্ট্রের অ্যালিসন ফেলিক্স ।

আইএএফ ইন্টারন্যাশনাল অ্যাথলেটিক্স চ্যাম্পিয়নশিপে মেয়েদের ৪*১০০ মিটারে সোনা জিতে এখন ফেলিক্সের পদক সংখ্যা ১৫টি । এর ১০টি সোনা, তিনটি রুপা আর দুটি ব্রোঞ্জ।

এখানেই থেমে থাকেন নি ফেলিক্স । তিনি ভেঙ্গে ফেলেছেন বোল্টের ১১ সোনার রেকর্ড । সোমবার দোহার খলিফা স্টেডিয়ামে ৪x৪০০মিটার মিক্সড রিলে ইভেন্টে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের হয়ে সোনা জয়ের সঙ্গে সঙ্গে জ্যামাইকান উসাইন বোল্টকে পেছনে ফেলেন ফেলিক্স।

১৩ মাস ট্র্যাক অ্যান্ড ফিল্ডের বাইরে থাকার পর এই প্রথম মাঠে ট্র্যাকে নেমে ফেলিক্স ব্যক্তিগত রেকর্ড তো গড়লেনই, পাশাপাশি সোনা জয়ের পথে ৪*৪০০ মিটার ইভেন্টে বিশ্বরেকর্ডও সেট করলেন যুক্তরাষ্ট্রের মিক্সড রিলে টিম। রেকর্ড ৩:০৯:৩৪ সেকেন্ডে দৌড় শেষ করলেন মার্কিনি স্প্লিন্টাররা।

আহাস/ক্রী/০১০