Download WordPress Themes, Happy Birthday Wishes

ডুমিনির দ্রুততম হাফ সেঞ্চুরির রেকর্ডে জিতলো সাকিবরা

ক্রীড়ালোক প্রতিবেদকঃ

চলমান ক্যারিবিয়ান প্রিমিয়ার লীগের (সিপিএল) মাঝপথে বার্বাডোস ট্রিডেন্টসে নাম লিখিয়েছেন সাকিব আল হাসান । যদিও এখনও দলের সাথে যোগ দেন নি সাকিব জাতিসংঘে ইউনিসেফের বিশেষ দূত হিসেবে ভাষণ দেয়ার জন্য যুক্তরাষ্ট্রে থাকায় । তবে দুই একদিনেই দলের সাথে যোগ দিচ্ছেন সাকিব । এদিকে সাকিব যোগ দেয়ার আগেই সিপিএল দারুণ একটি জয় তুলে নিয়েছে বার্বাডোস । দলটি ৬৩ রানে হারিয়েছে শাহরুখ খানের মালিকানাধীন ত্রিনবাগো নাইট রাইডার্সকে ।

শুক্রবার নিজেদের মাঠ ব্রিজটাউনের কেনিংটনওভালে শুরুতে ব্যাট করে নির্ধারিত ২০ ওভারে পাঁচ উইকেটের খরচায় ১৯২ রান তোলে বার্বাডোস । জবাবে ১৭.৪ ওভারে ১২৯ রানে অল আউট হয়ে যায় নাইট রাইডার্স ।

প্রথমে ব্যাট করতে নামা বার্বাডোসের ওপেনিং জুটি যোগ করে ১১০ রান । হাঁফ সেঞ্চুরি তুলেই পর পর বিদায় নেন দুই ওপেনার জনসন চার্লস আর জোনাথন কার্টার । চার্লস ৩৯ বলে ৫৮ রান করেছেন আটটি ছক্কায় । আর কার্টার করেছেন ৫১ রান । তার ৪৬ বলের ইনিংসে ছিল পাঁচটি চার আর একটি ছক্কা ।

কিন্তু সত্যিকারের তান্ডব চালিয়েছেন জেপি ডুমিনি । এই দক্ষিণ আফ্রিকান মাত্র ২০ বলে করেছেন ৬৫ রান । তার ইনিংসে ছিল চারটি চারের সাথে সাতটি ছক্কা । এই ইনিংস খেলার পথে ক্যারিবিয়ান প্রিমিয়ার লীগে দ্রুততম হাঁফ সেঞ্চুরির রেকর্ড করেন ডুমিনি । তার ফিফটি এসেছে মাত্র ১৫ বলে !

নাইট রাইডার্সের হয়ে খেরি পিয়েরে আর কেইরন পোলার্ড নিয়েছেন দুইটি করে উইকেট ।

জবাবে শুরু থেকেই ধুঁকতে থাকা নাইট রাইডার্সের হয়ে কেউ বড় ইনিংস খেলতে পারেন নি । সর্বোচ্চ ২৮ রান করেছেন ড্যারেন ব্রাভো । তার ২৪ বলের ইনিংসে মিলেছে দুইটি চার আর একটি ছক্কার দেখা ।

এছাড়া কলিন মুনরো করেছেন ১৩ বলে একটি চার আর দুইটি ছক্কায় ২৩ রান ।

বার্বাডোসের হয়ে হেইডেন ওয়ালশ পাঁচ উইকেট নিয়ে করেছেন ক্যারিয়ার সেরা বোলিং । তবে ম্যাচের সেরা হয়েছেন ডুমিনি ।

এই জয়ে ছয় ম্যাচে চার পয়েন্ট হয়েছে বার্বাডোসের । তারা আছে ছয় দলের মধ্যে ছয়ে । অন্যদিকে ছয় ম্যাচে নয় পয়েন্ট নিয়ে নাইট রাইডার্স আছে দুইয়ে ।

আহাস/ক্রী/০০১