Download WordPress Themes, Happy Birthday Wishes

মোস্তাফিজ ম্লান করে দিলেন রোহিত শর্মার বিশ্বরেকর্ড

ক্রীড়ালোক প্রতিবেদকঃ

আইসিসি ওয়ানডে বিশ্বকাপের টিকে থাকার ম্যাচে দুইবারের বিশ্বচ্যাম্পিয়ন ভারতের বিপক্ষে লড়াইয়ে নেমেছে বাংলাদেশ । এজবাস্টনে চলমান ম্যাচে টস জিতে ব্যাট করা ভারত নির্ধারিত ৫০ ওভারে তুলেছে ৯ উইকেটে ৩১৪ রান ।

ভারতের ইনিংসে দুর্দান্ত এক সেঞ্চুরি হাঁকিয়েছেন রোহিত শর্মা । সেই সাথে বিশ্বকাপের এক আসরে সবচেয়ে বেশী চারটি সেঞ্চুরির বিশ্বরেকর্ড ছুঁয়েছেন তিনি । বিশ্বকাপে এই রেকর্ড ছিল শুধু শ্রীলঙ্কার কুমার সাঙ্গাকারার । ২০১৫ সালের বিশ্বকাপে বাংলাদেশ, ইংল্যান্ড, অস্ট্রেলিয়া ও স্কটল্যান্ডের বিপক্ষে পরপর চার ম্যাচে সেঞ্চুরি করেছিলেন লঙ্কান কিংবদন্তি ক্রিকেটার।

ম্যাচের শুরুতেই রোহিতের ক্যাচ ছেঁড়ে সর্বনাশ করেছিলেন তামিম ইকবাল । সেই সুযোগ কাজে লাগাতে ভুল করেন নি ভারতীয় ওপেনার । লোকেশ রাহুলকে নিয়ে প্রথম উইকেটে যোগ করেন ২৯.২ ওভারে ১৮০ রান ।

৯২ বলে সাতটি চার আর পাঁচটি ছক্কায় ১০৪ করে রোহিত আউট হলে ভাঙ্গে এই জুটি । বাংলাদেশের অকেশনাল বোলার সৌম্য সরকার এনে দেন প্রথম ব্রেক থ্রু ।

কিছুক্ষণ পরেই ৯২ বলে সাতটি চার আর একটি ছক্কায় ৭৭ রান করে আউট হয়ে যান আরেক ওপেনার লোকেশ ।

বিরাট কোহলি ২৭ বলে তিনটি চারে করেন ২৬ রান । প্রথম স্পেলে বেদম মার খাওয়া মোস্তাফিজ তুলে নেন ভারতীয় অধিনায়ককে । একই ওভারে তিনি বিদায় করেন কোন রান না করা হার্দিক পাণ্ডেয়াকে ।

এই দুই আউটে ধীরে ধীরে কমে যায় ভারতের রানের গতি ।মাঝে ঋষভ পান্ট ৪৮ আর মহেন্দ্র সিং ধোনি ৩৫ করলেও অন্যদের ব্যর্থতায় ভারতের রান প্রত্যাশিত মাত্রায় যায় নি । যা বাংলাদেশের জন্য সুখবর ।

শেষে দিকে মোস্তাফিজ নিজের দুই ওভারে ছয় রান দিয়ে নেন আরও তিনটি উইকেট । ম্যাচে কাটার মাস্টারের উইকেট পাঁচটি । বিশ্বকাপে সাকিবের পর দ্বিতীয় বাংলাদেশী হিসেবে  এক ম্যাচে পাঁচটি উইকেট নেয়ার কৃতিত্ব দেখালেন ফিজ ।    ভারতের বিপক্ষে বিশ্বরেকর্ড দিয়ে ক্যারিয়ার শুরু করা মোস্তাফিজ আজ ১০ ওভারে ৫৯ রান দিয়েছেন ।

সাকিব , রুবেল আর সৌম্য পেয়েছেন একটি করে উইকেট । শেষ ১০ ওভারে বাংলাদেশের বোলাররা দিয়েছেন মাত্র ৬৩ রান । মুলত এখানেই ম্যাচে ফেরার সুযোগ পেয়েছে টাইগার বাহিনী । 

 এই আসরেই দক্ষিণ আফ্রিকা , অস্ট্রেলিয়ার মত দলের বিপক্ষে তিনশোর বেশী করেছে বাংলাদেশ । সুতরাং ভারতের বিপক্ষে এখনও টাইগারদের জয়ের আশা ভালভাবেই করাই যায় ।

আহাস/ক্রী/০০৭