Download WordPress Themes, Happy Birthday Wishes

কি কারণে বায়ার্নের চাকুরী হারালেন নাগেলসম্যান ?

ক্রীড়ালোক প্রতিবেদকঃ

কোচের পদ থেকে হুলিয়ান নাগেলসম্যানকে বরখাস্ত করেছে বায়ার্ন মিউনিখ । ইতোমধ্যে জার্মানির চ্যাম্পিয়নরা নতুন কোচ হিসেবে নিয়োগ দিয়েছে থমাস টুশেলকে ।

বায়ার্ন মিউনিখ শুধু জার্মানির না , বিশ্ব ক্লাব ফুটবলের অন্যতম সমৃদ্ধ দল । জার্মানির বুন্দেস লিগায় সবচেয়ে বেশী ৩২বার শিরোপা জিতেছে তারা । জিতেছে ছয়টি উয়েফা চ্যাম্পিয়ন্স লীগ । সব মিলিয়ে বায়ার্নের মেজর শিরোপা সংখ্যা ৮২টি ।

নাগেলসম্যানের অধীনে বায়ার্ন ধরে রেখেছে আভিজাত্য আর সফলতা । ২০২১ সালের জুলাইয়ে তিনি বায়ার্নের দায়িত্ব নেন । তাঁর অধীনে বাভারিয়ানরা ৮৪ ম্যাচের মধ্যে জিতেছে ৬০টি । ড্র ১৪টি আর পরাজয় ১০টি । বায়ার্ন মিউনিখকে তিনি জিতিয়েছেন একটি বুন্দেস লিগা আর দুইটি জার্মান সুপার কাপ । চলতি মৌসুমের চ্যাম্পিয়ন্স লিগের কোয়ার্টার ফাইনালেও উঠেছে বায়ার্ন । নক আউট পর্বের দুই লেগেই বায়ার্নের কাছে পরাজিত হয়েছে লিওনেল মেসি আর কিলিয়ান এমবাপ্পেদের পিএসজি ।

নাগেলসম্যানের অধীনে মৌসুমটা ভালই যাচ্ছিল বায়ার্নের । তাহলে হঠাৎ কেন মৌসুমের মাঝপথে চাকুরী গেল জার্মান কোচের ? আসলে ২০২২-২৩ মৌসুমে বুন্দেস লিগায় বায়ার্নের অধারাবাহিক পারফর্মেন্স ক্ষুব্ধ করেছেন দলের কর্তাদের । এই মুহূর্তে বুন্দেস লিগার পয়েন্ট টেবিলের দুইয়ে আছে বায়ার্ন । ২৫ ম্যাচে ৫২ পয়েন্ট পেয়েছে তারা । সমান ম্যাচে ৫৩ পয়েন্ট নিয়ে শীর্ষে বুরুশিয়া ডর্টমুণ্ড । এখনও লীগ শিরোপা লড়াইয়ে ভালভাবেই টিকে আছে বায়ার্ন ।

কিন্তু সমস্যা হচ্ছে , বায়ার্ন হচ্ছে সেই দল যারা সাফল্যের সাথে মাঠের পারফর্মেন্সে বিশ্বাস করে । খেলায় জয় জরুরী , বায়ার্নের ক্ষেত্রে জয়টা কিভাবে আসছে , সেটা আরও বেশী জরুরী ।

বায়ার্নের চিফ এক্সিকিউটিভ অলিভার কান জানিয়েছেন , ‘ আমরা নাগেলসম্যানের সাথে লম্বা সময়ের জন্যই চুক্তি করেছিলাম । নাগেলসম্যান আমাদের তিনটি শিরোপা জিতিতেছে । সেই জন্য তাঁকে ধন্যবাদ । কিন্তু সম্প্রতি আমরা প্রতিপক্ষের উপর প্রাধান্য বিস্তার করে জিততে পারছি না । বায়ার্নের ঐতিহ্য হচ্ছে আক্রমণাত্মক ফুটবল । সেটা দিন দিন কমে যাচ্ছে । ‘

জার্মানির সাবেক গোলরক্ষক কান জানিয়েছেন , ‘ বিশ্বকাপের পর থেকেই আমাদের খেলায় ছন্দপতন লক্ষ্য করা যাচ্ছে । আমরা ধারাবাহিক নই । ‘

কাতার বিশ্বকাপের পর জানুয়ারিতে বায়ার্নের দুঃসময় গেছে , এটা সত্যি । জানুয়ারিতে বুন্দেস লিগায় টানা চার ম্যাচে কোন জয়ের মুখ দেখে নি নাগেলসম্যানের দল । যদিও ফেব্রুয়ারি থেকে সব প্রতিযোগিতা মিলিয়ে টানা নয়টি জয় পেয়েছে জার্মানির জায়ান্টরা । তবে ১৯ মার্চ হেরেছে বায়ার লেভারকুসেনের কাছে । তাতেই ধৈর্যের বাঁধ ভেঙেছে বায়ার্ন কর্তাদের ।

যদিও অনেকেই মনে করছে , মাঠের পারফর্মেন্সের চেয়ে  বান্ধবী লিনা ভুরজেনবার্গারের সাথে বিবাহ বহির্ভূত সম্পর্ক আর স্ত্রী ভেরেনার সঙ্গে ১৫ বছরের সম্পর্কচ্ছেদের ঘটনা প্রভাব ফেলেছে বায়ার্নের সিদ্ধান্তে । জার্মানির বিখ্যাত সংবাদপত্র ‘বিল্ড’র বায়ার্ন মিউনিখ প্রতিনিধি ছিলেন লিনা।নাগলসমানের সঙ্গে প্রেমের সম্পর্কে জড়ানোয় বায়ার্ন প্রতিনিধির দায়িত্বও ছাড়তে হয় লিনাকে।

এদিকে , বায়ার্নের নতুন কোচ হিসেবে নিয়োগ পেয়েছেন থমাস টুশেল । ৪৯ বছরের টুশেলের রয়েছে ইউরোপিয়ান সাফল্য । পিএসজি ২০২০ সালে তাদের ইতিহাসের একমাত্র চ্যাম্পিয়ন্স লীগ ফাইনালে খেলেছে টুশেলের অধীনে । চেলসিকে তিনি চ্যাম্পিয়ন্স লীগ জিতিয়েছেন ২০২০-২১ মৌসুমে । সাথে জিতিয়েছেন উয়েফা সুপার কাপ আর ফিফা ক্লাব ওয়ার্ল্ড কাপ ।

জার্মান লিগে টুশেল অসবার্গ , মেইঞ্জ আর ডর্টমুণ্ডের হয়ে কাজ করেছেন । ডর্টমুণ্ডকে জিতিয়েছেন জার্মান কাপ । ম্যানেজার হিসেবে তাঁর শিরোপা সংখ্যা এক ডজন । কিন্তু শেষ তিনটি চাকুরী থেকেই টুশেলকে বিদায় নিতে হয়েছে বরখাস্ত হয়ে ।

বুরুশিয়া , চেলসি কিংবা পিএসজির চেয়ে বায়ার্নে চাকুরী করা অনেক বেশী কঠিন । কারণ জার্মানির ক্লাবে শুধু সাফল্য সবকিছু না । এখানে খেলার মাঠে আধিপত্য বিস্তারের প্রশ্ন বড় হয়ে দেখা দেয় , যা হাড়ে হাড়ে টের পেয়েছেন নাগেলসম্যান । চলতি মৌসুমেই চ্যাম্পিয়ন্স লীসহ বুন্দেস লিগায় বায়ার্ন রয়েছে শিরোপা লড়াইয়ে । কিন্তু তবু তিনি সন্তুষ্ট করতে পারেন নি বাভারিয়ান কর্তাদের । তাই টুশেল যে জীবনের সবচেয়ে কঠিন পরীক্ষায় পড়েছেন , নিঃসন্দেহে বলে দেয়া যায় ।

আপাতত টুশেলের সাথে ২০২৫ পর্যন্ত চুক্তি করেছে বায়ার্ন । কিন্তু বুন্দেস লিগা আর চ্যাম্পিয়ন্স লীগে ব্যর্থ হলে মৌসুম শেষেই তাঁর চাকুরী থাকবে কিনা সেটা সময়েই বলে দেবে ।

আহাস/ক্রী/০০১