Download WordPress Themes, Happy Birthday Wishes

অন্যদের মত ব্যর্থ মাবিয়া আক্তার সীমান্ত

ক্রীড়ালোক প্রতিবেদকঃ

ইংল্যান্ডে চলমান কমনওয়েলথ গেমসে কোন সুসংবাদ নেই বাংলাদেশের জন্য । কিছুটা আশা ছিল দেশের সেরা মহিলা ভারোত্তোলক মাবিয়া আক্তার সীমান্তকে নিয়ে । কিন্তু তিনিও হতাশ করেছেন নিজের ইভেন্টে ।

সোমবার (১ আগস্ট) মেয়েদের ভারোত্তোলনের ৬৪ কেজি ওজন শ্রেণিতে প্রতিযোগিতায় নামেন সীমান্ত । ১২ জন প্রতিযোগীর মধ্যে ৮ম হয়েছেন তিনি । যা ছিল চরম হতাশার ।

বার্মিংহামের ন্যাশনাল এক্সিবিশন সেন্টারের এক নম্বর হলে সীমান্ত মোট ওজন তুলেছেন ১৮১ কেজি। শুরুতে স্ন্যাচে তিনি তোলেন ৭৮ কেজি । যদিও তার সেরা ৮০ কেজি। তবে ক্লিন এন্ড জার্কে নিজের সেরাটা ধরে রেখেছেন এসএ গেমসে জোড়া স্বর্ণ জয়ী এই ভারোত্তোলক। ক্লিন এন্ড জার্কে ১০৩ কেজি উঠিয়েছেন তিনি।

অথচ সবশেষ জাতীয় চ্যাম্পিয়নশিপে স্ন্যাচ ও ক্লিন এন্ড জার্ক মিলিয়ে ১৮৩ কেজি তুলেছিলেন দেশ সেরা ভারোত্তোলক সীমান্ত।

এদিকে , সাঁতারেও ব্যর্থতার ঘানি টেনেছেন বাংলাদেশের সাঁতারুরা । অবশ্য নারীদের ১০০ মিটার ব্রেস্টস্ট্রোকে ১ নম্বর হিটে পাঁচজন সাঁতারুর মধ্যে ১.২০.৩৭ সেকেন্ড সময় নিয়ে সেরা হয়েছেন মরিয়ম আক্তার। তবে সেমিফাইনালে যেতে এই টাইমিং যথেষ্ঠ ছিলো না। ২৮জন প্রতিযোগীর মধ্যে তিনি হয়েছেন ২৪তম।

স্যান্ডওয়েল অ্যাকুয়াটিক সেন্টারের পুলে পুরুষদের ৫০ মিটার ব্রেস্টস্ট্রোকে সুকুমার রাজবংশী ৪০ জনের মধ্যে ৩০তম হয়েছেন। হিটে ২৯.৯৬ সেকেন্ড সময় নিয়ে সুকুমার ৭ জনের মধ্যে ৬ষ্ঠ হয়েছেন। দক্ষিণ আফ্রিকার মিশেল লিফের টাইমিং ছিল ২৭.১০ সেকেন্ড।

১০০ মিটার বাটার ফ্লাইয়ে মাহমুদুন্নবী ৫৬.৭৮ সেকেন্ড সময় নিয়ে আটজনের মধ্যে চতুর্থ হয়েছেন । তবে সব মিলিয়ে শেষ পর্যন্ত ৪৭ জন প্রতিযোগীর মধ্যে পেয়েছেন ২৫তম স্থান ।

এছাড়া , বক্সিংয়ে ভারতের মোহাম্মদ হুসাম উদ্দিনের সামনে দাঁড়াতেই পারেন নি বাংলাদেশের সেলিম হোসেন । বার্মিংহাম ন্যাশনাল এক্সিবিশন সেন্টারের চার নম্বর হলে ফেদারওয়েট ইভেন্টে সেলিম ০-৫ বাউটে প্রতিপক্ষের কাছে হার মানেন।

রবিবার (৩১ জুলাই) বাংলাদেশের আরক বক্সার সুরকৃষ্ণ রিংয়ে নামতে পারেন নি মেডিক্যাল পরীক্ষায় ‘আনফিট’ হওয়ায় । উচ্চ রক্তচাপের কারণে তার লড়াই শেষ হয়েছিল শুরুর আগেই ।

আহাস/ক্রী/০০২