Download WordPress Themes, Happy Birthday Wishes

সাকিবকে নিয়েই যত দুশ্চিন্তা !

ক্রীড়ালোক প্রতিবেদকঃ

বাংলাদেশে পা রাখা ওয়েস্ট ইন্ডিজ স্কোয়াড এখন সময় কাটাচ্ছে কোয়ারেন্টিনে । হোটেল রুমে বন্দী ক্যারিবিয়ান দল কাটাচ্ছে অলস সময় ।

ওয়েস্ট ইন্ডিজ দলের কোয়ারেন্টাইন শেষ হচ্ছে শুক্রবার (১৫ জানুয়ারি) । ইতোমধ্যে প্রথম দফা কোভিড-১৯ পরীক্ষায় নেগেটিভ এসেছে ক্যারিবিয়ান স্কোয়াডের সবার । বুধবার হবে দ্বিতীয় ধাপের পরীক্ষা । এই পরীক্ষার রিপোর্টে নেগেটিভ আসলে পঞ্চম দিন থেকে অনুশীলনের অনুমতি পেয়েছে ওয়েস্ট ইন্ডিজ দল। ফলে শুক্রবার থেকে বিসিবি একাডেমী মাঠে অনুশীলনে আর বাধা নেই তাদের। ১৫ জানুয়ারি থেকে ১৭ জানুয়ারি এই তিনদিন দুই সেশনে অনুশীলন করবে সফরকারী দল। করোনা পরিস্থিতির দাবী মেনে জৈব সুরক্ষায় চলবে সেই অনুশীলন ।

এদিকে বাংলাদেশের বিপক্ষে তিন ম্যাচের ওয়ানডে সিরিজের সাথে দুইটি টেস্ট ম্যাচ খেলবে ওয়েস্ট ইন্ডিজ । যদিও বাংলাদেশ সফরে ওয়েস্ট ইন্ডিজ এসেছে অনেকটাই আনকোরা স্কোয়াড নিয়ে । টেস্ট অধিনায়ক জেসন হোল্ডার ,কেইরন পোলার্ড , ড্যারেন ব্র্যাভো , রোস্টন চেইজ , শেলডন কর্টরেল , শিমরান হেটমেয়ারদের কেউই আসছে না বাংলাদেশে । করোনা পরিস্থিতি নিয়ে অনিশ্চয়তার কারণে তারা নিজেদের প্রত্যাহার করে নিয়েছেন বাংলাদেশ সফর থেকে । এছাড়া ব্যক্তিগত কারণে আসছে না অলরাউন্ডার ফ্যাবিয়েন অ্যালান ও কিপার ব্যাটসম্যান শন ডওরিচ।

মুল স্কোয়াডের ১০ জন খেলোয়াড়কে রেখে এলেও ওয়েস্ট ইন্ডিজের কেউ অবশ্য আসন্ন সিরিজে নিজেদের ‘দুর্বল’ মানতে নারাজ । ইতোমধ্যে ওয়েস্ট ইন্ডিজ কোচ ফিল সিমন্স জানিয়ে দিয়েছেন , ‘ ঘরের মাঠে খেলা বলে বাংলাদেশ আত্মবিশ্বাসে এগিয়ে থাকবে । কিন্তু আমাদের নতুন ক্রিকেটাররা খেলবে জাতীয় দলে জায়গা পাকা করার জন্য । এই ক্ষেত্রে তাদের অনুপ্রেরণার কোন অভাব হবে না । ‘

সিমন্স জানিয়েছেন , বাংলাদেশের বিপক্ষে জয়ের লক্ষ্য নিয়েই মাঠে নামবে তার দল ।

এদিকে করোনা মহামারীর পর প্রথমবারের মত মাঠে নামছে বাংলাদেশ দল । সেই সাথে এক বছরের নিষেধাজ্ঞা কাটিয়ে মাঠে ফিরছেন সাকিব আল হাসান । বাংলাদেশের বিশ্বসেরা অলরাউন্ডারকে নিয়ে আলাদা ভাবনায় মেতেছেন ক্যারিবীয় দলের টেস্ট অধিনায়ক ক্রেইগ ব্রেথওয়েট । তিনি জানিয়েছেন , ‘ সাকিব বাংলাদেশের সেরা খেলোয়াড় । সে দলের সেরা অস্ত্র । ‘

বাংলাদেশের হয়ে সাকিব ৫৬ টেস্টে ৩ হাজার ৮৬২ রান ও ২১০ উইকেট পেয়েছেন সাকিব । আর ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে ১০ ম্যাচে ৭৪৫ রান ও ৫৬ উইকেট পেয়েছেন তিনি । ফলে সাকিবকে নিয়ে আলাদা ভাবনা থাকছেই ওয়েস্ট ইন্ডিজ শিবিরের ।

সাকিব ছাড়াও মুশফিকুর রহিম আর মাহমুদুল্লাহ রিয়াদ সম্পর্কে আলাদাভাবে ব্রেথওয়েট জানান , ‘ তারা দুজনেই খুব উঁচুমানের ক্রিকেটার । তারা অভিজ্ঞ । বাংলাদেশ দলে ভালোমানের স্পিনার এবং সামর্থ্যবান ব্যাটসম্যান আছে। তারা খেলবে দেশের মাটিতে । এটা অবশ্যই যে কোন দলের জন্য বাড়তি সুবিধা । ‘

নিজেদের অনভিজ্ঞ দল নিয়ে ব্রেথওয়েট বলেছেন , ‘ এটা বরং আমাদের জন্য সুবিধার কারণ হতে পারে । কারণ আমাদের দলের কয়েকজন খেলোয়াড়কে বাংলাদেশ দল দেখেই নি । এটা তাদের বাড়তি বিপদে ফেলতে পারে । । যদিও এরপরও আমাদের নিজেদের কাজটা ঠিকঠাকভাবে করতে হবে, সব বিভাগে শৃঙ্খল পারফরম্যান্স দেখাতে হবে।’

টেস্ট সিরিজে নিজে সামনে থেকে দলকে নেতৃত্ব দিতে চান, জানিয়ে রাখলেন ব্রেথওয়েট। তার কথা, ‘আমি সামনে থেকে নেতৃত্ব দিতে চাই। উদ্বোধনী ব্যাটসম্যান হিসেবে আমার কাজ হলো রান করা এবং দলকে একটা শক্ত ও মজবুত ভিতের ওপর দাঁড় করানো।’

ভারপ্রাপ্ত অধিনায়ক হলেও নেতৃত্ব ব্র্যাথওয়েটের জন্য নতুন কিছু নয়। নানা সময়ে হোল্ডারের চোট-অনুপস্থিতিতে ৫টি টেস্টে নেতৃত্ব দেওয়া হয়ে গেছে তার। ২০১৭ সালে নিউ জিল্যান্ডে ১ টেস্ট, ২০১৮ সালে বাংলাদেশে ২টি, ভারতে ১টি ও ২০১৯ সালে দেশের মাটিতে ইংল্যান্ডের বিপক্ষে ১টি। সাফল্যের ঝুলি এখনও ফাঁকা। হারের স্বাদ পেতে হয়েছে প্রতিটিতেই।

আহাস/ক্রী/০০৪