Download WordPress Themes, Happy Birthday Wishes

জেমিসন তোপে উড়ে গেলো পাকিস্তান

ক্রীড়ালোক প্রতিবেদকঃ

পাকিস্তানকে দুই ম্যাচ সিরিজে ধবল-ধোলাই করেছে নিউজিল্যান্ড । সিরিজের দ্বিতীয় আর শেষ টেস্টে পাকিস্তানকে ইনিংস আর ১৭৬ রানে হারিয়েছে স্বাগতিকরা । সেই সাথে ইতিহাসে প্রথমবার আইসিসি টেস্ট র‍্যাংকিংয়ের শীর্ষে ওঠাও নিশ্চিত হয়েছে কিউইদের ।

ক্রাইস্টচার্চে প্রথম ইনিংসে ২৯৭ রান করে পাকিস্তান । আর নিউজিল্যান্ড নিজেদের একমাত্র ইনিংস ঘোষণা দেয় ৬ উইকেটে ৬৫৯ রান তুলে । জবাবে পাকিস্তানের দ্বিতীয় ইনিংস শেষ হয় ১৮৬ রানে ।

পাকিস্তানের বিপক্ষে একমাত্র ইনিংসে নিজেদের টেস্ট ইতিহাসে পঞ্চম সর্বোচ্চ রান তোলে নিউজিল্যান্ড । ২০১৯ সালের ফেব্রুয়ারিতে বাংলাদেশের বিপক্ষে সর্বোচ্চ ৭১৫ রান তুলেছিল নিউজিল্যান্ড । আর পাকিস্তানের বিপক্ষে এটি তাদের দ্বিতীয় সর্বোচ্চ টেস্ট ইনিংস । ২০১৪ সালে শারজাহতে পাকিস্তানের বিপক্ষে ৬৯০ রান তুলেছিল কিউইরা ।

নিউজিল্যান্ডের একমাত্র ইনিংসে ডাবল সেঞ্চুরি হাঁকান কেইন উইলিয়ামসন । নিউজিল্যান্ড অধিনায়ক করেন ২৩৮ রান । ৩৬৪ বলের ইনিংসে তিনি মেরেছেন ২৮টি চার ।

পাকিস্তানের বিপক্ষে ‘ডাবল সেঞ্চুরি’ করার পথে বেশ কয়েকটি রেকর্ডের মালিক হয়েছেন উইলিয়ামসন । ক্যারিয়ারের চতুর্থ ডাবল সেঞ্চুরি এটি তার। নিউ জিল্যান্ডের হয়ে সবচেয়ে বেশি দ্বিশতকের রেকর্ডে স্পর্শ করেছেন ব্রেন্ডন ম্যাককালামের রেকর্ড। কিউই অধিনায়ক হিসেবে ডাবল সেঞ্চুরি হলো ৩টি। এই রেকর্ডে তিনি নিজেকে তুলে নিয়েছেন ম্যাককালাম ও স্টিভেন ফ্লেমিংয়ের পাশে।

একই সাথে নিউজিল্যান্ডের হয়ে সবচেয়ে দ্রুততম সময়ে সাত হাজার রানের রেকর্ড গড়েছেন উইলিয়ামসন । এই মাইল-ফলক গড়তে মাত্র ১৪৪ ইনিংস খেলতে হয়েছে কিউই অধিনায়ককে ।

এছাড়া চতুর্থ উইকেটে হেনরি নিকোলসকে সাথে নিয়ে উইলিয়ামসন গড়েছেন ৩৬৯ রানের জুটি । যা চতুর্থ উইকেটে নিউজিল্যান্ডের সর্বোচ্চ । এই জুটিতে দুজন পেছনে ফেলেন ২০০৯ সালে ভারতের বিপক্ষে গড়া রস টেইলর ও জেসি রাইডারের ২৭১ রানের পার্টনারশিপ রেকর্ড ।

রেকর্ড জুটি গড়ার পথে নিকোলস খেলেছেন ১৫৭ রানের ইনিংস । এছাড়া ওয়ানডে স্টাইলে ১১২ বলে আটটি চার আর দুইটি ছক্কায় অপরাজিত ১০২ রান করেছেন ড্যারিল মিচেল ।

নিউজিল্যান্ডের একমাত্র ইনিংস থেকে ৩৬২ রানে পিছিয়ে থেকে পাকিস্তান দ্বিতীয়বার ব্যাট করতে নামে । প্রথমেই ৮ রানে শান মাসুদের উইকেট হারিয়ে বসেছিল সফরকারীরা ।

বুধবার (৬ জানুয়ারি) বাকী নয় উইকেট হারায় পাকিস্তান । কোনো ব্যাটসম্যানই ৪০ রানের বেশি করতে পারেননি। সর্বোচ্চ ৩৭ রান করে আসে আজহার আলী ও জাফর গওহারের ব্যাট থেকে। এ ছাড়া আবিদ আলী ২৬ ও ফাহিম আশরাফ করেন ২৮ রান। আর কোনো ব্যাটসম্যান বিশের ঘর পেরোতে পারেননি। কোনো উইকেটের জুটি থেকে ৩৩ রানের বেশি আসেনি।

পাকিস্তানের বিপক্ষে দ্বিতীয় ইনিংসে ছয় উইকেট নেন কাইল জেমিসন । ম্যাচের তার উইকেটের সংখ্যা ১১টি ।

ডাবল সেঞ্চুরি হাঁকানো কেন উইলিয়ামসনের হাতে ওঠে সিরিজ সেরার পুরষ্কার।

মাউন্ট মাঙ্গানুইতে প্রথম টেস্টে ১০১ রানে হেরেছিল পাকিস্তান ।

আহাস/ক্রী/০০৩