Download WordPress Themes, Happy Birthday Wishes

তবুও সমালোচিত ধোনি!

ক্রীড়ালোক প্রতিবেদক:

ইন্ডিয়ান প্রিমিয়ার লিগের (আইপিএল) চলমান আসরে অধিনায়ক ও ব্যাটসম্যান উভয় ক্ষেত্রেই সমালোচিত হয়ে আসছে ধোনি। অন্যতম ফিনিসার হয়েও বেশ কয়েকটি ম্যাচে বিলিয়ে দিয়ে এসেছে উইকেট। সমালোচিত হয়েছেন আগে ও পরে ব্যাটে নামা বা প্লেয়ারদের নির্দিষ্ট জায়গায় না খেলানো নিয়েও। আইপিএলের চলমান আসরে বাজে পারফর্মের কারণে তার উপর ক্ষেপেছে চেন্নাই সমর্থকরা।

চেন্নাই সুপার কিংস টানা হারে পয়েন্ট টেবিলের তলানিতে আছে। তবে সেখান থেকে ফিরতে মরিয়া ধোনির দল সানরাইজার্স হায়দ্রবাদের বিপক্ষে জিতে টিকে থাকলো। তারপরও চেন্নাই অধিনায়ককে সমালোচনার কাঠগড়ায় দাড় করানো হলো। এবারের সমালোচনাটা অবশ্য তার অধিনায়কত্ব বা ব্যাটে রান পাওয়া না পাওয়া নিয়ে নয়। সানরাইজার্স হায়দ্রাবাদের বিপক্ষে আম্পায়ারের সিদ্ধান্তকে প্রভাবিত করায় তাকে পরতে হয়েছে এই মহা ফ্যাসাদে।

ঘটনাটি গত ম্যাচের দ্বিতীয় ইনিংসের ১৯তম ওভারের। ওই ওভারের তৃতীয় বলে ক্রিজে থাকা রশিদ খানকে আউট সাইড ইয়র্কার দেন শার্দুল ঠাকুর। তবে বলের সঙ্গে ব্যাট স্পর্শ না হওয়ায় ওয়াইড ঘোষণা করেন অনফিল্ড আম্পায়ার পল রাইফেল।

ঠিক তখনই উইকেটের পিছনে দাঁড়িয়ে থাকা ধোনি এর প্রতিবাদ করেন। চেন্নাই উইকেটরক্ষকের সঙ্গে প্রতিবাদ করেন শার্দুলও। এরপরই নিজের সিদ্ধান্ত বদলে নেন রাইফেল। আম্পায়ারের এমন কান্ডে স্পষ্টতই হতাশ ছিলেন হায়দরাবাদ অধিনায়ক ডেভিড ওয়ার্নার। ডাগআউটে বসে হতাশা প্রকাশ করতেও দেখা গেছে তাঁকে।

এই ঘটনার পরে ধোনির উপর ক্ষেপেছেন সমর্থকরা। এমনকি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম টুইটারে তাঁকে নিষিদ্ধ করার দাবি তুলেছেন অনেকে। যদিও অনেকে আম্পায়ারের ভুলও দেখছেন। তাদের দাবি একজন উইকেটরক্ষক আবেদন করতেই পারে, তাই বলে কি আম্পায়ারের সিদ্ধান্ত পরিবর্তন করতে হবে!

নিহে/ক্রী/০০৪