Download WordPress Themes, Happy Birthday Wishes

শক্ত অবস্থানে শ্রীলংকা

ক্রীড়ালোক প্রতিবেদকঃ

শ্রীলঙ্কায় টাইগাররা কতদিনের কোয়ারেন্টাইনে থাকবে-তা নিয়ে চলছে আলোচনা। ৭ এবং ১৪ দিন কোয়ারেন্টাইনে থাকা নিয়ে সৃষ্টি হয়েছে জটিলতা। সেই সঙ্গে লঙ্কান বোর্ডের আরও কিছু শর্ত মানতে পারেনি বিসিবি। গতকাল সোমবার বিসিবি সভাপতি নাজমুল হাসান পাপন ক্ষোভ প্রকাশ কে স্পষ্ট বলে দিয়েছেন, লঙ্কান বোর্ডের শর্ত মেনে সফরে যাওয়া সম্ভব নয়। এরপর গণমাধ্যমে মুখ খুলেছেন শ্রীলঙ্কান ক্রিকেট বোর্ডের চেয়ারম্যান শাম্মি ডিসিলভা।

শ্রীলঙ্কার আইল্যান্ড পত্রিকাকে দেওয়া সাক্ষাতকারে তিনি বলেছেন, ‘তারা (বিসিবি) যদি এটা (সাত দিন কোয়ারেন্টিন) বলে থাকে তবে সেটা ঠিক নয়। প্রকৃত অর্থেই আমি বুঝতে পারছি না -কেন তারা এক সপ্তাহের কথা বলছে। সাত দিনের কোয়ারেন্টাইনের বিষয়ে বিসিবির সাথে আমাদের কোন কথা হয়নি। তবে যাই হোক আমরা স্বাস্থ্য বিভাগের কথার বাইরে কোয়ারেন্টাইন কাল কমাতে পারব না। এটা নিশ্চিত যে বাংলাদেশ দলকে ১৪ দিনের কোয়ারেন্টাইনে থাকতে হবে। শ্রীলঙ্কা পৌঁছার আগেও যদি তারা কোয়ারেন্টাইন করে, তবুও কলম্বো পৌঁছে তাদেরকে বাধ্যতামূলকভাবে হোটেলে থাকতে হবে। সমস্ত খরচ এসএলসি বহন করবে।’

করোনা মাহামারির কারণে প্রথম পর্ব শেষ হবার পর মার্চের মধ্যভাগ থেকে স্থগিত রয়েছে বাংলাদেশের ঘরোয়া ক্রিকেট। এর আগে বিসিবি ঘোষণা দিয়েছিল ২৪ অক্টোবর তিন টেস্ট শুরুর আগে ২৭ সেপ্টেম্বর বাংলাদেশ দল কলম্বোর উদ্দেশ্যে রওনা হবে। এর মাধ্যমেই টাইগাররা আবারও ফিরবে আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে। তবে সবকিছুই এখন ভণ্ডুল হওয়ার পথে। যদিও গতকাল বিসিবি সভাপতির ক্ষোভ প্রকাশের পর বাংলায় টুইট করে শ্রীলঙ্কান ক্রিকেট বোর্ডকে বিষয়গুলো পুনর্বিবেচনার আহ্বান জানিয়েছেন দেশটির যুব ও ক্রীড়ামন্ত্রী নামাল রাজাপাক্ষে। এখন দেখার, দুই বোর্ডের এই মুখোমুখি অবস্থানের শেষ কোথায় হয়।

আহাস/ক্রী/০০৬