Download WordPress Themes, Happy Birthday Wishes

পরবর্তী আইসিসি প্রেসিডেন্ট সৌরভ !

ক্রীড়ালোক প্রতিবেদকঃ

বর্তমানে ভারতীয় ক্রিকেট কন্ট্রোল বোর্ডের (বিসিসিআই) প্রেসিডেন্ট পদে দায়িত্ব পালন করছেন সৌরভ গাঙ্গুলি । এবার তাকে বিশ্ব ক্রিকেটের নিয়ন্ত্রক সংস্থা আইসিসি’র প্রেসিডেন্ট পদে দেখতে চান ইংল্যান্ড আর দক্ষিণ আফ্রিকার প্রাক্তন অধিনায়ক ডেভিড গাওয়ার এবং গ্রায়েম স্মিথ ।

চলতি বছরেই শেষ হচ্ছে আইসিসি’র বর্তমান প্রেসিডেন্ট শশাঙ্ক মনোহরের মেয়াদ । ভারতের মনোহর আগেই জানিয়েছেন , তিনি ভবিষ্যতে আর আইসিসি সভাপতির দায়িত্বে থাকতে চান না । ফলে আইসিসিকে খুঁজতে হবে নতুন সভাপতি ।

ইতিমধ্যেই শ্রীলংকা ক্রিকেট বোর্ডের (এসএলসি) তরফ থেকে সাবেক অধিনায়ক কুমার সাঙ্গাকারার নাম আলোচিত হচ্ছে । তারা আইসিসি’র সভাপতি হিসেবে ভবিষ্যতে সাঙ্গাকারাকে দেখতে চায় । কিছুদিন আগে লংকান বোর্ডের সচিব মোহন ডি সিলভা জানিয়েছেন , ‘ আমরা আইসিসি’র সর্বোচ্চ পদের জন্য তার নাম প্রস্তাব করব । আমরা সংগঠক হিসেবে সাঙ্গাকারার অভিজ্ঞতা শ্রীলংকা ক্রিকেটের জন্যেও কাজে লাগাতে চাই । ‘

বর্তমানে সাঙ্গাকারা ক্রিকেটের আইনকানুনের অভিভাবক সংস্থা হিসেবে পরিচিত মেরিলিবোন ক্রিকেট ক্লাবের (এমসিসি) সভাপতি হিসেবে দায়িত্ব পালন করছেন । চলতি বছরের সেপ্টেম্বরেই এমসিসি’তে তার মেয়াদ শেষ হবার কথা । সেই দায়িত্ব সেহস হলেই আইসিসি’র সর্বোচ্চ পদের জন্য সাঙ্গাকারার নাম প্রস্তাব করবে বলে জানিয়েছে শ্রীলংকা বোর্ড ।

এদিকে ইতোমধ্যেই আইসিসি’র পরবর্তী সভাপতি হিসেবে ইংল্যান্ড ও ওয়েলস ক্রিকেট বোর্ড (ইসিবি) কলিন গ্রেভসের নাম প্রস্তাব করবে বলে শোনা যাচ্ছে।

যদিও দিন কয়েক আগে সাবেক ইংলিশ অধিনায়ক গাওয়ার জানিয়েছেন , ‘আইসিসি-কে নেতৃত্ব দেওয়ার যোগ্য লোক হল সৌরভ। ও খুবই ভাল মানুষ। তা ছাড়া ওর সেই ক্ষমতাটাও আছে। ‘

সর্বশেষ দক্ষিণ আফ্রিকার সাবেক অধিনায়ক স্মিথ জানিয়েছেন , ‘ কোভিড পরবর্তী সময়ে ক্রিকেটের সর্বোচ্চ প্রশাসনে যোগ্য নেতৃত্ব দরকার। সময় এসেছে এমন একজনকে দায়িত্ব দেওয়ার যে আধুনিক ক্রিকেটের সংস্পর্শে আছে, আবার যার মধ্যে নেতৃত্ব দেওয়ার গুণটাও আছে। ‘

স্মিথ সরাসরি সৌরভের নাম প্রস্তাব করে বলেন , ‘দারুণ লাগবে যদি সৌরভের মতো একজন কেউ আইসিসির নেতৃত্বে আসে। সৌরভ আইসিসির প্রেসিডেন্ট হলে ক্রিকেটেরই উপকার হবে।’

তিনি আরও বলেন ,’সৌরভ খেলাটা খুব ভাল বোঝে। সর্বোচ্চ পর্যায়ের ক্রিকেটও খেলেছে। তা ছাড়া ওকে সবাই সম্মানও করে।’

এদিকে গাওয়ার আর স্মিথের মন্তব্যের কোন প্রতিক্রিয়া বিসিসিআই কিংবা গাঙ্গুলির তরফ থেকে পাওয়া যায় নি ।

চলতি মে মাসেই আইসিসি সভাপতি হিসেবে শশাঙ্ক মনোহরের মেয়াদ শেষ হওয়ার কথা । তবে বর্তমানে করোনা মহামারীর কারণে স্থবির হয়ে আছে ক্রিকেটীয় সব কার্যক্রম । সেই ক্ষেত্রে মনোহরের মেয়াদ আরও কয়েক মাস বাড়তে পারে বলে জানা গেছে আইসিসি সূত্রে।

আগামী ২৮ মে আইসিসি’র জরুরী সভা রয়েছে । সেখানেই সংস্থার সভাপতির ভবিষ্যৎ নিয়ে আলোচনা হবে । আলোচনা হবে টি-২০ বিশ্বকাপের ভবিষ্যৎ নিয়েও ।

যদিও বর্তমানে দক্ষিণ আফ্রিকার ক্রিকেটের ডিরেক্টর স্মিথ জানিয়েছেন , ‘ করোনা মহামারীর কারণে টি-২০ বিশ্বকাপের আগে প্রস্তুতি নেয়ার সুযোগ সীমিত হয়ে গেছে । প্রতিটা দলের জন্যই এটা প্রযোজ্য । আমার মতে , টি-২০ বিশ্বকাপ আগামী বছরে পিছিয়ে নিয়ে যাওয়াই হবে সঠিক সিদ্ধান্ত । ‘

আহাস/ক্রী/০০১