Download WordPress Themes, Happy Birthday Wishes

ইতিহাস গড়লেন আর্চার

ক্রীড়ালোক প্রতিবেদকঃ

করোনা-ভাইরাসের কারণে সারা বিশ্বের ক্রীড়াঙ্গন যখন স্থবির , তখনই ঘোষণা হল ইংল্যান্ডের বর্ষসেরা ক্রীড়াবিদের নাম । ব্রিটিশ এথনিক ডাইভার্সিটি স্পোর্টস এ্যাওয়ার্ড ঘোষণা করেছে সেরা দুই ক্রীড়াবিদের নাম । তারা হলেন – ক্রিকেটার জোফরা আর্চার আর স্প্রিন্টার ডিনা অ্যাশার – স্মিথ।

২০১৮ সালে প্রথমবারের মত আইসিসি ওয়ানডে বিশ্বকাপের শিরোপা জিতেছে ইংল্যান্ড । নিজ দেশের মাটিতে অনুষ্ঠিত সেই বিশ্বকাপে ইংল্যান্ডের শিরোপা জয়ের অন্যতম নায়ক ছিলেন আর্চার । নিয়েছিলেন ২০টি উইকেট । যার স্বীকৃতি তিনি পেয়েছেন এথনিক ডাইভার্সিটি স্পোর্টস এ্যাওয়ার্ডে ।

প্রথম ওয়েস্ট ইন্ডিজ বংশদ্ভুত ক্রিকেটার হিসেবে ইংল্যান্ডের বর্ষসেরা হলেন আর্চার ।

যদিও আর্চার পুরোপুরি ইংলিশ নন । তার নিজের জন্ম ওয়েস্ট ইন্ডিজে । মা বার্বাডোজের । সেখানেই তার শৈশব-শিক্ষা জীবন। ক্রিকেট জগতে প্রবেশের পর ওয়েস্ট ইন্ডিজেই ক্রিকেটের হাতেখড়ি। ওয়েস্ট ইন্ডিজের অনুর্ধ্ব-১৯ দলের হয়ে খেলেছেন তিনি।

তবে আর্চারের বাবা ইংল্যান্ডের । যে কারণে তার আছে ইংলিশ পাসপোর্ট । ২০১৫ সালে ইংল্যান্ডে চলে আসেন আর্চার। খেলেন কাউন্টি ক্রিকেট । ইংল্যান্ডের ঘরোয়া ক্রিকেটে দুর্দান্ত পারফর্মেন্স দেখিয়ে বিশ্বকাপের ঠিক আগে সুযোগ পান ইংলিশ জাতীয় দলে । ২০১৮ সালের মে মাসে আয়ারল্যান্ডের বিপক্ষে অভিষেক হয় তার ।

২৪ বছর বয়সী আর্চার ইংল্যান্ডের হয়ে ১৪ একদিনের আন্তর্জাতিক ম্যাচে ২৩ উইকেট পেয়েছেন । খেলেছেন সাতটি টেস্ট (৩০ উইকেট) । আর একটি টি-২০ খেলে পেয়েছেন দুইটি উইকেট । আইপিএলেও ২১ ম্যাচে ২৬ উইকেট শিকার করেছেন এই পেসার ।

সব মিলিয়ে ২০১৮ সালে আবির্ভাবেই স্বপ্নের মত একটি মৌসুম কাটিয়েছেন আর্চার । আর তাতেই পুরুষ বিভাগে বর্ষসেরা ক্রীড়বিদের পুরস্কার জিতে নেন।

পুরস্কার পেয়ে জোফরা আর্চার বলেন, ‘বর্ষসেরা ক্রীড়া ব্যক্তিত্ব হতে পেরে সম্মানিতবোধ করছি।’ তবে ইনস্টাগ্রামে বর্ণবাদী খুদে বার্তা পেয়ে তার কঠোর সমালোচনা করেছেন ইংল্যান্ডের এ তারকা খেলোয়াড়।

ব্রিটেনের প্রথম অ্যাথলিট হিসেবে কোনো ওয়ার্ল্ড চ্যাম্পিয়নশিপে তিনটি মেডেল জেতেন ২৪ বছরের ডিনা অ্যাশার – স্মিথ। গত বছর ২০০ মিটারে জেতেন স্বর্ণপদক। সিলভার পান ১০০ মিটার ও ৪ গুণিতক ১০০ মিটার রিলেতে। আর তাতেই বর্ষসেরা নারী ক্রীড়াবিদ হয়েছেন ডিনা অ্যাশার-স্মিথ।

আহাস/ক্রী/০০২