Download WordPress Themes, Happy Birthday Wishes

নতুন ইতিহাস গড়লেন মেসি

ক্রীড়ালোক প্রতিবেদকঃ

সব জল্পনা-কল্পনার অবসান ঘটিয়ে ২০১৯ সালের ব্যালন ডি’অর জিতলেন বার্সেলোনার অধিনায়ক লিওনেল মেসি । ফ্রান্স সাময়িকীর দেয়া বিশ্বসেরা ফুটবলারের এই পুরস্কার ষষ্ঠবারের মত জিতলেন আর্জেন্টিনার ক্ষুদে জাদুকর । ইতিহাসে তারচেয়ে বেশী ব্যালন জেতার রেকর্ড আর কোন ফুটবলারের নেই ।

প্যারিসে সোমবার এক জমকালো অনুষ্ঠানে মেসির হাতে চলতি বছরের ব্যালন তুলে দেন ক্রোয়েশিয়ার লুকা মড্রিচ । ২০১৮ সালে রিয়েল তারকা মড্রিচ জিতেছিলেন এই পুরস্কার ।

ইতোমধ্যেই ফিফার বর্ষসেরা ফুটবলারের পুরস্কার জেতা হয়ে গিয়েছিল মেসির । ব্যালন জেতার পথেও মেসি হারিয়েছেন চির-প্রতিপক্ষ ক্রিস্টিয়ানো রোনালদোর সাথে ভার্জিল ভ্যান ডাইককে । লিভারপুলের ডাচ তারকা ভ্যান ডাইক জিতেছিলেন চলতি বছরের উইয়েফা বর্ষসেরা ফুটবলারের পুরস্কার ।

চলতি বছর ব্যালন জিতে মেসি ছাড়িয়ে গেলেন পর্তুগীজ মহাতারকা রোনালদোকে । বর্তমানে জুভেন্তাসে খেলা রোনালদো পাঁচবার জিতেছেন ব্যালন ডি অর ।

নিজ ক্লাবের হয়ে স্পেনে দারুণ একটি মৌসুম কাটিয়েছিলেন মেসি । ২০১৮-১৯ মৌসুমে বার্সেলোনাকে জিতিয়েছিলেন লা লীগা । যদিও কোপা ডেল রে’র ফাইনাল আর উইয়েফা চ্যাম্পিয়ন্স লীগের সেমি ফাইনালের বেশী এগুতে পারে নি মেসির বার্সেলোনা । কিন্তু লা লীগার সর্বশেষ মৌসুমে করেন ৩৬ গোল । যা পিচিচির সাথে তাকে এনে দেয় ইউরোপের সর্বোচ্চ গোলদাতার ‘গোল্ডেন বুট’ । এছাড়া চ্যাম্পিয়ন্স লীগেও করেছেন ১২ গোল । ক্লাব ও জাতীয় দলের হয়ে গেল মৌসুমে সব প্রতিযোগিতা মিলিয়ে ৫৮ ম্যাচ খেলে ৫৪ গোল করেন মেসি। সব মিলিয়ে তাকে বিবেচনা করা হয়েছে ব্যালনের যোগ্য হিসেবে !

বিশ্বজুড়ে সাংবাদিকদের ভোটে রেকর্ড ষষ্ঠবারের মতো পুরস্কারটি জিতলেন আর্জেন্টাইন তারকা। এতদিন সমান পাঁচবার করে পুরস্কারটি জয়ের রেকর্ড ছিল মেসি ও রোনালদোর। এমন অর্জনের পর প্রতিক্রিয়ায় সতীর্থদের অবদানের কথা উল্লেখ করেন বার্সেলোনা অধিনায়ক, “যেসব সাংবাদিকরা আমাকে ভোট দিয়েছেন এবং চেয়েছেন যে আমি এই পুরস্কার জিতি, তাদের সবাইকে আমি ধন্যবাদ দিতে চাই। আমার সতীর্থদের অনেক অনেক ধন্যবাদ যারা সত্যি এই পুরস্কার জয়ে অনেক বেশি অবদান রেখেছে। এটা অবিশ্বাস্য, সবাইকে অনেক অনেক ধন্যবাদ।”

আহাস/ক্রী/০০১