Download WordPress Themes, Happy Birthday Wishes

বাংলাদেশের অফ স্পিন অলরাউন্ডার গ্রেফতার

ক্রীড়ালোক প্রতিবেদকঃ

প্রতারণার অভিযোগে গেফতার হয়েছেন বাংলাদেশের ক্রিকেটার নাজমুস সাকিব । যদিও গ্রেফতার হবার পর নিজের ‘ক্রিকেটার’ পরিচয় গোপন রাখার অনেক চেষ্টা করেছেন তিনি । কিন্তু শেষ পর্যন্ত পুলিশি জেরার মুখে টিকতে পারেন নি ।

গ্রেফতার সাকিবের স্বীকারোক্তির বরাত দিয়ে পুলিশ জানিয়েছে, সিলেটের ওসমানীনগরে এক যুক্তরাজ্য প্রবাসীকে অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (এএসপি) পরিচয় দেন সাকিব। এক পর্যায়ে ওই প্রবাসীর সঙ্গে সখ্যতা গড়ে তোলেন। সুযোগ বুঝে একদিন ওই প্রবাসীর মোবাইল ফোনটি হাতিয়ে নেন।

এ ঘটনায় সাকিবের বিরুদ্ধে দুই মামলা দায়ের করা হয়। সেই মামলাতেই গ্রেফতার হন সাকিব ।

পুলিশ আরও জানায় , নিজেকে আবু বকর শাকিল নামে ‘এএসপি’ হিসেবে পরিচয় দিয়ে প্রতারণা করে আসছিলেন সাকিব । বিষয়টি পুলিশ হেডকোয়ার্টার্স, ঢাকার নজরে আসলে তথ্য প্রযুক্তির সহায়তায় তার অবস্থান সিলেট জেলার ওসামানীনগরের তাজপুর ইউনিয়নের দশহাল নামক স্থানে শনাক্ত করা হয়। পরে ওসমানীনগর থানা পুলিশ অভিযান চালিয়ে তাকে আটক করা হয় ।

গ্রেফতার হবার পর প্রথমে তিনি নিজেকে বাংলাদেশ পাবলিক সার্ভিস কমিশনের ৩৭তম (বিসিএস) এ উত্তীর্ণ পুলিশ ক্যাডার হিসেবে পরিচয় দেন । জানান , বাংলাদেশ পুলিশ একাডেমি সারদা হতে ১ বছরের মৌলিক প্রশিক্ষণ শেষে সিলেটে এসেছেন ।

সাকিবের বক্তব্যের অসঙ্গতিতে পুলিশের সন্দেহ হয় । পরে আরও জেরায় বেরিয়ে আসে তার ক্রিকেটার পরিচয় ।

নাজমুস সাকিব ২০১০ সালে বাংলাদেশ অনূর্ধ্ব-১৯ দলের হয়ে খেলেছেন। এছাড়াও বাংলাদেশ বিমান, সূর্যতরুণ, ব্রাদার্সের মতো ক্লাবের নিয়মিত খেলোয়াড় ছিলেন এই অফস্পিন অলরাউন্ডার।

আহাস/ক্রী/০০৬