Download WordPress Themes, Happy Birthday Wishes

অলিম্পিকে যোগ হচ্ছে ক্রিকেট

ক্রীড়ালোক প্রতিবেদকঃ

ফিফা ফুটবল বিশ্বকাপ বিশ্বের সবচেয়ে জনপ্রিয় ক্রীড়া আসর । কিন্তু বিশ্বর সবচেয়ে বড় ক্রীড়া ইভেন্ট ‘অলিম্পিক’ তাতে কোন সন্দেহ নেই । প্রতি চার বছর অন্তর বিশ্ব ক্রীড়ার এই মহাযজ্ঞ ‘দ্য গ্রেটেস্ট শো অন আর্থ’ বলে পরিচিত । যেখানে বিশ্বের অগনিত দেশ অংশ নেয় ফুটবল , এথলেটিক্সসহ নানান ক্রীড়া ইভেন্টে । কিন্তু বিশ্ব ক্রীড়ার সেরা আসরটিতে ক্রিকেট সব সময়েই উপেক্ষিত । কারণ বহুযুগ ধরেই অলিম্পিকের মত আসরে ক্রিকেট খেলার কোন জায়গা নেই ।

ক্রিকেটের বিশ্ব নিয়ন্ত্রক সংস্থা ‘আইসিসি’ অবশ্য বহুদিন ধরেই চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে অলিম্পিকে ক্রিকেটকে অন্তর্ভুক্ত করার জন্য । কিন্তু সেটা এতদিন সফলতার মুখ দেখে নি । তবে আইসিসি লাগাতার চেষ্টায় ২০২৮ সালের অলিম্পিকে ক্রিকেটের অন্তর্ভুক্তির একটা সম্ভাবনা দেখা দিয়েছে ।

এমসিসি ওয়ার্ল্ড ক্রিকেট কমিটির চেয়ারম্যান মাইক গ্যাটিং বলেন, আইসিসির প্রধান নির্বাহী মানু সাওহানির সঙ্গে আমরা কথা বলেছি। ২০২৮ অলিম্পিকে ক্রিকেট অন্তর্ভুক্ত করার ব্যাপারে আমরা আশাবাদী। সেই লক্ষ্যে আইসিসি কাজ করে যাচ্ছে। বিশ্বব্যাপী ক্রিকেটকে ছড়িয়ে দিতে এটি খুবই সহায়ক হবে।

গ্যাটিং বলেছেন, প্রথমবার দুই সপ্তাহের মধ্যে প্রতিযোগিতা সম্পন্ন করে ফেলতে পারলে চার বছর পর পর এটা আয়োজন করা কঠিন হবে না। ‘

আসলে অলিম্পিকে ক্রিকেটকে অন্তর্ভুক্ত না করার মূল কারণ ‘সময়’ । ক্রিকেট দৈর্ঘ্যেলম্বা খেলা । এই ইভেন্টের জন্য তাই লম্বা সময় দরকার । কিন্ত অলিম্পিকে ক্রিকেট জায়গা পেলে পুরো প্রতিযোগিতা শেষ করতে হবে দুই সপ্তাহের মধ্যে । এটা নিয়ে এখন ভাবছে আইসিসি । কিভাবে আর কয়টি দলের মধ্যে প্রতিযোগিতা হলে নির্দিষ্ট সময়ে ক্রিকেট ইভেন্ট শেষ করা যাবে , সেটা নিয়ে চলছে ভাবনা ।

এই নিয়ে ইংল্যান্ডের সাবেক অধিনায়ক মাইক গ্যাটিং জানিয়েছেন , ‘ অলিম্পিকে একবার যখন আমরা অন্তর্ভুক্ত হয়ে যাব, তখন দুই সপ্তাহের মধ্যে প্রতিযোগিতা শেষ করার সূচিও তৈরি করা যাবে।’

উল্লেখ্য , একবারই অলিম্পিকে ক্রিকেট টুর্নামেন্ট হয়েছিল। ১৯০০ অলিম্পিকে ফ্রান্সকে হারিয়ে স্বর্ণ জিতেছিল গ্রেট ব্রিটেন। এরপর ১১৮ বছর পার হলেও অলিম্পিকে ফেরা হয়নি ক্রিকেটের। বরাবরের মতো আবারো অলিম্পিকে ক্রিকেট ফিরিয়ে আনার কথা শোনা যাচ্ছে।

অলিম্পিকে ক্রিকেটের অন্তর্ভুক্তি বাংলাদেশের জন্য হতে পারে ভাল খবর । কারণ এখন পর্যন্ত হাতে গোনা দুই একটি ইভেন্টে বাংলাদেশের অলিম্পিক অংশগ্রহণ স্রেফ নিয়ম মানার মধ্যেই সীমাবদ্ধ । যা হয়ত অনেকেই জানে না । কিন্তু ক্রিকেট বাংলাদেশের সবচেয়ে জনপ্রিয় খেলা । ক্রিকেট নিয়ে বাংলাদেশ অলিম্পিকে যেতে পারলে বিশ্বে সবচেয়ে বড় ক্রীড়া আসর নিয়ে দেশের মানুষের মধ্যে আলাদা আগ্রহ সৃষ্টি হবে , তাতে কোন সন্দেহ নেই ।

আহাস/ক্রী/০০৩